সর্বশেষ সংবাদ
◈ প্রধান মন্ত্রীর আস্থাভাজন খুলনা ১এর কর্নধর শেখ সোহেল দাকোপ বটিয়াঘাটায় ত্রান ও ঈদ উপহার বিতরণ করেন ◈ ‘আব্দুল গফুর ভূইয়া’রা সমাজের মহৎ হৃদয়ের মানুষ ‘ ◈ কুমিল্লাবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন আ.লীগ নেতা আবদুছ ছালাম বেগ ◈ নাঙ্গলকোটে এবার ১৬ স্বাস্থ্য কর্মীসহ সহ করোনা আক্রান্ত ২৫ ◈ প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহারের তালিকায় ব্যাপক অনিয়ম ও আত্মীকরনের অভিযোগ! ◈ কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে কর্মক্ষম পুরুষহীন পরিবারের মাঝে ইচ্ছেঘুড়ির মাছ মাংস বিতরণ ◈ নাঙ্গলকোটে ঈদ উপহার সামগ্রী নিয়ে সুবিধাবঞ্চিতদের পাশে আলিয়ারার আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ ◈ করোনা থেকে মুক্তি চাই – মোহাম্মদ সোহরাব হোসেন ◈ শিকল পায়ে সাম্য –মোঃ এম.রহমান ◈ নাঙ্গলকোটের পেরিয়া ইউপি চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে আইনজীবীর বাড়িতে হামলার অভিযোগ:শিশুসহ আহত ৩

অভিনন্দন পুলিশ সুপার (এসপি) শামসুন্নাহার 

6 April 2019, 12:42:55

বাংলাদেশের প্রথম মহিলা পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার ।
জাতিসংঘ সাত বার শান্তি পদক প্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা শামসুন্নাহার!

ফরিদপুরে জন্ম । বাবা শামসুল হক ও মা আমেনা বেগম। চার ভাই-বোনের মধ্যে সবার বড় । ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় আইন বিষয় পেলেন না, পড়তে হলো রাষ্ট্রবিজ্ঞানে। অনার্স করার সময়ই বিএনসিসি-তে নাম লেখান। তখন সেরা ১০ ক্যাডেটের একজন হিসেবে রাইডার ফ্লাইংয়ে সুযোগ পেয়ে যান। একজন পাইলটের সঙ্গে ওড়ার সুযোগ ছিল সেটি। বিএনসিসি-তে থাকার সময় প্যারেড করেছেন, অস্ত্র ধরেছেন। তাদের পোশাক, নিয়মশৃঙ্খলা দেখে তার মনে হলো- এমন কিছু হবো, পুলিশ হবো। বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠ চুকিয়ে বিসিএস দিলেন, মেধার জোরে উত্তীর্ণ হলেন। বিসিএস ক্যাডারে তার প্রথম পছন্দই ছিল পুলিশ।

সহকারী পুলিশ সুপার হিসেবে ২০০১ সালে বাংলাদেশ পুলিশ সার্ভিসে যোগ দেন । মানিকগঞ্জ, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ, পুলিশ সদর দপ্তর, ট্যুরিস্ট পুলিশসহ বাংলাদেশ পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটে দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। ২০০৯-২০১০ পর্যন্ত জাতিসংঘ মিশনের মাধ্যমে পূর্ব তিমুর জাতীয় পুলিশের মানবসম্পদ উন্নয়ন কর্মকান্ডের দায়িত্বেও ছিলেন। এ ছাড়া ২০১১-২০১৪ পর্যন্ত জাতিসংঘের শাখা অফিস ইতালিতে উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা হিসেবে সুনাম কুড়িয়েছেন। কর্মতৎপরতার গুণে ৭ বার জাতিসংঘ শান্তি পদক লাভ করেছেন। বাংলাদেশ পুলিশে দক্ষতার সঙ্গে দায়িত্ব পালনের স্বীকৃতিস্বরূপ প্রেসিডেন্ট পুলিশ মেডেল (পিপিএম), ৩ বার আইজি ব্যাজপ্রাপ্ত হন তিনি। ২০১৬ সালে পেয়েছেন উইমেন লিডারশিপ অ্যাওয়ার্ড। শিক্ষাজীবনেও মেধার স্বাক্ষর রেখেছেন তিনি। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ থেকে ২০০৫ সালে এমফিল করেন। পরে স্কলারশিপ পেয়ে যুক্তরাজ্যের বার্মিংহাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমবিএ করেন।

২০১৫ সালের জুনে চাঁদপুরের পুলিশ সুপার হিসেবে যোগদান করেন । সৎ ও সাহসী পুলিশ কর্মকর্তা বলেই তার সুনাম রয়েছে পুলিশ বাহিনীতে। চাঁদপুরে মাদক, বাল্যবিবাহ ও নারী নির্যাতন রোধে অগ্রণী ভূমিকা রেখেছেন তিনি। ‘পুলিশ সপ্তাহ-২০১৬’ প্যারেডে প্রথম নারী হিসেবে নেতৃত্ব দিয়ে ইতিহাস গড়েন তিনি । মহানগর পুলিশ, রেঞ্জ পুলিশ, আর্মড পুলিশ ও র‌্যাবসহ পুলিশের ১৩টি দলের সহস্রাধিক সদস্যের প্যারেডে নেতৃত্ব দিয়ে তিনি দেশজুড়ে প্রশংসিত হন। ২০১৭ সালেও পুলিশ সপ্তাহ প্যারেডে তিনি নেতৃত্ব দিয়েছেন।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: