অমর একুশের চেতনা ও মূল্যবোধের অবক্ষয় | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বিশ্ব পর্যটন দিবস ও আমাদের সম্ভাবনা ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ

অমর একুশের চেতনা ও মূল্যবোধের অবক্ষয়

21 February 2019, 6:54:29

আব্দুল কাহ্হার মুন্নাঃ

২১ মানেই অনুপ্রেরণা, ২১ মানেই মাথা উঁচু করে বাঁচা, ২১ মানেই গৌরব উজ্জ্বল একটি ইতিহাস, ২১ মানেই প্রানের উচ্ছ্বাস। ৫২ এর ভাষা আন্দোলনই ছিলো আমাদের মুক্তি সংগ্রামের প্রথম পদক্ষেপ। ২১ শের আত্মত্যাগের মধ্যে দিয়েই রক্তের কালিতে লেখা হয়েছিল “অ, আ, ক, খ” বর্ন মালার। পৃথিবীর ইতিহাসে আমরাই একমাত্র জাতি যারা মায়ের ভাষায় কথা বলার জন্যে বুকের তাজা রক্তে রাজপথ রঞ্জিত করেছিলাম।

প্রতিবছর ২১ শে ফেব্রুয়ারিতে জাতি শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করে তার বীর সন্তানদের। শহীদবেদি গুলো ঝলমল করে উঠি বর্ণিল আলপনা আর ফুলে ফুলে। খালি পায়ে শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে প্রভাতফেরীতে সবাই গেয়ে উঠে “আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙ্গানো একুশে ফেব্রুয়ারি, আমি কি ভুলিতে পারি”। উৎসবমুখর একটি পরিবেশ বজায় থাকে পুরো দেশটাতেই।

এতো ত্যাগের বিনিময়ে অর্জিত প্রানের বাংলা ভাষা আজ প্রতিনিয়ত দূষিত হচ্ছে আমাদের তথাকথিত আধুনিকতার ছোঁয়ায়। বাংলার সাথে কিছু ইংরেজি শব্দ মিশিয়ে দিয়ে আমরা জন্ম দিচ্ছি আরেকটি অদ্ভুত ভাষার, অনেকেই ব্যঙ্গ করে সেটাকে ” বাংলিশ ” বলে থাকেন !!! মায়ের ভাষাকে দূষিত করে আপনি কি আসলেই আধুনিক হচ্ছেন ??? নাকি কাকের শরীরে ময়ূর পাখা বা ময়ূরের শরীরে কাকের পাখা প্রতিস্থাপন করে চলেছেন ???

সব দিবসকেই ভালবাসা দিবসে রুপান্তর করতে আমাদের জুড়ি নেই !!! হোক সেটা ২১শে ফেব্রুয়ারি, স্বাধীনতা দিবস বা বিজয় দিবস। ২১শে ফেব্রুয়ারি হলে সাদা কালো, স্বাধীনতা বা বিজয় দিবস হলে লাল সবুজ পরে দিনটিকে ভালবাসা দিবসে রুপান্তর করে নেয়া কি খুব জরুরী ??? রাষ্ট্রীয় এই দিবস গুলোতে আমরা কি একটু শালীন হয়ে চলতে পারিনা ??? ২১ শে ফেব্রুয়ারিতে শহিদ মিনারে ফুল দিয়ে একটি আত্ম প্রতিবিম্ব ধারন করে কেনো বলতে হবে “ওয়াও আই টেক মাই বেস্ট সেল্পি”!!!

শুধুমাত্র ছবি তোলার জন্যে বা আড্ডা দেয়ার জন্যে এই দিনগুলো উদযাপন করবেন না। মন থেকে শ্রদ্ধা করে, দেশটাকে ভালবেসে শহীদের ত্যাগের মহিমা চিন্তা করেই তাদের সম্মান জানাতে আসুন। দিবস গুলোর চেতনা যত্ন করে লালন করুন, দেখবেন নিজের কাছেই অনেক ভালো লাগবে। স্মরণ করুন তাদের যাদের রক্ত ও ঘামের বিনিময়ে আপনি আজকে স্বাধীনতা ও মায়ের ভাষা পেয়েছেন।

আসুন ২১শের চেতনা সমুন্নত রেখে মাথা উঁচু করে বাঁচি। মনে রাখবেন “বাংলা ভাষা মায়ের ভাষা, খোদার সেরা দান”।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য:

x