আল আমিন কেন বাদ | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ ◈ অনুকূল পরিবেশ হলে এইচএসসি পরীক্ষা ◈ কুমিল্লায় বিপুল ইয়াবাসহ দম্পতি আটক!
প্রচ্ছদ / খেলাধুলা / বিস্তারিত

আল আমিন কেন বাদ

22 September 2016, 6:49:51

স্পোর্টস ডেস্ক : সংবাদ সম্মেলনে একের পর এক প্রশ্ন ধেয়ে গেল প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীনের দিকে। বেশির ভাগ প্রশ্নের মূল সুর একটাই—আফগানিস্তান সিরিজের প্রথম দুই ওয়ানডে থেকে আল আমিন কেন বাদ?

শফিউল অথবা আল আমিন—নির্বাচকদের সামনে সুযোগ ছিল যেকোনো একজনকে বেছে নেওয়ার। তাঁরা বেছে নিয়েছেন শফিউলকেই। ৮ টেস্ট, ৫২ ওয়ানডে ও ১১ টি-টোয়েন্টি খেলা এই পেসার সর্বশেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন ২০১৪ সালের নভেম্বরে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে। আল আমিনকে রেখে শফিউলকে বেছে নেওয়ার মিনহাজুলের যুক্তি, ‘আমরা ফিটনেস ও অন্যান্য বিষয়ে ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে আলোচনা করে শফিউলকেই নিয়েছি। আল আমিনের বিষয়ে কিছু নেতিবাচক কথা এসেছে। তার ফিটনেস নিয়ে কথা উঠেছে। যদি আল আমিন ও শফিউলের ফিল্ডিং দেখেন, তাহলেও পার্থক্যটা চোখে পড়বে। আর বোলিংয়ে শফিউল অনেক অভিজ্ঞ। আল আমিনের ফিটনেস-ফিল্ডিং বিবেচনা করে তার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’
মিনহাজুল আল আমিনের যে ‘ফিটনেস’ সমস্যার কথা বললেন, সেটি কিন্তু ভুল প্রমাণ করবে কন্ডিশনিং ক্যাম্পে তাঁর পারফরম্যান্স। ২০ জুলাই থেকে শুরু হওয়া জাতীয় দলের ফিটনেস অনুশীলনে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ফল করেছেন বাংলাদেশ দলের পেসার। প্রথম দিন ব্লিপ টেস্টে তিনি করেছিলেন ১২.২, সর্বশেষটিতে ১২.৬। গড় ১২.৪। ফিটনেসে এবার সাব্বির রহমানের পরেই আল আমিনের অবস্থান।
পেসাররা চোটে পড়বেন, অস্বাভাবিক কিছু নয়। এমনিতে বাংলাদেশের পেসারদের চোটে পড়ার মিছিলটা একটু বড়। সেখানে ব্যতিক্রম আল আমিন। ২০১৩ সালের অক্টোবরে আন্তর্জাতিক অভিষেকের পর কখনোই চোটের কারণে দলের বাইরে থাকতে হয়নি তাঁকে।
নির্বাচকেরা অবশ্য প্রশ্ন তুলেছেন তাঁর ফিল্ডিং নিয়ে। কিন্তু আল আমিনের বাজে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ ম্যাচ হেরেছে, এমন উদাহরণ খুঁজে পাওয়া কঠিন। যদিও বলা হচ্ছে গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ১৭তম ওভারে অস্ট্রেলিয়ার জন হ্যাস্টিংসের ক্যাচ ছাড়ার ঘটনাটি। হ্যাস্টিংস আউট হয়েছিলেন এর দুই বল পরেই। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে একজন পেসার তিন বছর নিয়মিত খেলার পর তাঁকে বাদ দেওয়া হয়েছে ফিল্ডিংয়ের কারণে, এমন দৃষ্টান্ত খুব একটা নেই।
এভাবে বাদ পড়ে স্বাভাবিকভাবেই হতাশ আল আমিন, ‘দলে নেওয়া-না নেওয়া টিম ম্যানেজমেন্টের বিষয়। যদি আমার ফিটনেস সমস্যা থাকে, চেষ্টা করব আরও বাড়ানোর। চেষ্টা করব ফিল্ডিংয়ে আরও উন্নতি করতে, যাতে আবারও দলে সুযোগ পাই।’
মিনহাজুল অবশ্য বলেন, ‘আল আমিনের দুয়ার বন্ধ হয়ে যাচ্ছে না এখনই, সামনে আমাদের আরও খেলা আছে, তাকে (আল আমিন) ফেরানোও হতে পারে। এমন না যে একদম সে বাইরে চলে গেছে। সামনে ইংল্যান্ডের সঙ্গে খেলা আছে। আল আমিন আমাদের পুলের মধ্যেই আছে।’

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: