ঈদের অগ্রিম টিকেটের জন্য চট্রগ্রামে শেষদিনে মানুষের ঢল! | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বিশ্ব পর্যটন দিবস ও আমাদের সম্ভাবনা ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ

ঈদের অগ্রিম টিকেটের জন্য চট্রগ্রামে শেষদিনে মানুষের ঢল!

13 August 2018, 5:07:38
নাঈম উদ্দিন(প্রিন্স নয়ন),নিজস্ব প্রতিনিধিঃ
পবিত্র ঈদুল আযহা কে সামনে রেখে ঈদের অগ্রিম টিকেটের জন্য চট্রগ্রামে শেষ দিনে মানুষের ঢল।
ঈদ মানে আনন্দ, ঈদ মনে খুশি, টিকেট নিয়ে চলছে টানাটানি, ঈদ আসাতে যেতে হবে গ্রামের বাড়ি,চারদিকে সবুজ আর সবুজ তাইতো ভালো লাগে গ্রামের বাড়ি। পরিবারের সাথে কোরবানি করা টা আলাদা মজা, সাদা রুটি আর মাংস,  তাছাড়া নাড়ির টান।
চট্রগ্রাম থেকে যারা গ্রামে যাবেন ঈদ করতে তাদের কাছে সবচেয়ে বিষয় হলো, টিকেট নিশ্চিত করা। প্রস্তুতি আগে ভাগেই। টিকেট নিশ্চিত হওয়া মানেই নিরাপদে বাড়ি ফেরাও নিশ্চিত।
অগ্রিম টিকেট দেওয়ার শেষ দিনে উপচেপড়া ভিড় হয়েছে চট্রগ্রাম রেলওয়ে স্টেশনে,পছন্দ মতো টিকেট কেনার জন্য যাত্রীরা ঘন্টার পর ঘন্টা লাইনে দাড়িয়ে থাকেন। কাউন্টার খোলার কয়েক ঘণ্টা আগে থেকেই টিকিট পেতে রেলস্টেশনে জড়ো হতে থাকে মানুষ। প্রতিটি কাউন্টারের সামনেই দেখা গেছে দীর্ঘ লাইন।
দীর্ঘসময় অপেক্ষার পরও সাধারণ শ্রেণির টিকেট পাওয়া গেলেও প্রত্যাশিত শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত কামরার টিকেট না পেয়ে হতাশার কথা জানিয়েছেন যাত্রীরা।
 তবে যারা টিকেট পেয়েছেন তারা অনেক খুশি। বেশির ভাগেই শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত সিট গুলোর টিকেট তেমন একটা পাননি যাত্রীরা। যাত্রীরা বলেন কেন এই শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত সিট গুলোর টিকেট আমরা পাচ্ছি না, টিকেট বিক্রেতারা জানান, বেশির ভাগ টিকেট যাত্রীরা অনলাইনে টিকেট সংগ্রহ করে ফেলেন তাই যাত্রীদের চাহিদা অনুযায়ী আমরা শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত সিট তেমন দিতে পারছিনা।
এই বছর যাত্রীর সংখ্যা অনেক বেশি। তাই চট্রগ্রাম রেলওয়ে স্টেশনে,যাত্রীদের নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য রয়েছে পুলিশ বাহিনী এবং পুরো রেলওয়ে স্টেশন সি সি ক্যামেরা দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। যাত্রীদের নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য রয়েছে আনসার বাহিনী।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য:

x