এমন ইনিংসকেও সেরা বলছেন না ডি কক! | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বিশ্ব পর্যটন দিবস ও আমাদের সম্ভাবনা ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ
প্রচ্ছদ / খেলাধুলা / বিস্তারিত

এমন ইনিংসকেও সেরা বলছেন না ডি কক!

1 October 2016, 3:20:57

মোহাম্মদ ইব্রাহিম খলিল : আরেকটু হলেই রেকর্ডটা ভেঙে যেত। সেই ২০ বছর আগে আরব আমিরাতের বিপক্ষে অপরাজিত ১৮৮ রানের ইনিংস খেলেছিলেন গ্যারি কারস্টেন। এখনো সেটি ওয়ানডেতে দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত ইনিংস হয়ে আছে। কুইন্টন ডি কক কাল আরেকটু হলেই সেটি ভেঙে দিয়েছিলেন। মাত্র ১০ রানের জন্য সেই রেকর্ড ভাঙতে পারলেন না। তবে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ১৭৮ রান করে আউট হওয়ার আগেই অবশ্য নিশ্চিত করে গেছেন দলের জয়।

রেকর্ড না হোক, নিজের সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত ইনিংস অনেক আগেই হয়ে গেছে। অস্ট্রেলিয়ান বোলারদের ওপর কাল যেটা গেছে, ঝড় বললেও কম বলা হয়। মাত্র ৭৪ বলেই সেঞ্চুরি পূর্ণ করেছেন ডি কক, ১৭৮ রান করার জন্য খেলতে হয়েছে মাত্র ১১৩ বল। ওয়ানডেতে এর আগে ১০টি সেঞ্চুরি ছিল, তবে ১৫০–এর বেশি কখনো করা হয়নি। অথচ এমন একটা ইনিংসের পরও সেটিকে কুণ্ঠাহীনভাবে সেরা বলছেন না ডি কক, ‘এ রকম হাত খুলে আমি কখনো খেলিনি। তবে এর চেয়েও বেশি উপভোগ করেছি এমন ইনিংসও আছে। সেখানে রান তুলতে আমাকে অনেক বেশি পরিশ্রম করতে হয়েছে। ওই ইনিংসগুলো খেলে বেশি তৃপ্তি পেয়েছি।’

সুপার স্পোর্ট পার্কের উইকেট বোলারদের জন্য বধ্যভূমিই ছিল। আর ছোট মাঠের সুবিধা তো নিয়েছেনই। ডি কক তাই মনে করিয়ে দিলেন, ‘এদিন আমাকে একটু খাটতে হয়েছে বটে, কিন্তু দিনটা আসলে আমারই ছিল। উইকেট ব্যাট করার জন্য খুব ভালো ছিল। নিজের স্বাভাবিক খেলাটাই খেলতে পেরেছি। আশা করি, সিরিজে এ রকম উইকেট আরও পাব।’

নিজের ১১তম সেঞ্চুরির জন্য মাত্র ৬৫টি ইনিংস খেলতে হয়েছে ডি কককে। ওয়ানডে ১১টি সেঞ্চুরির জন্য এর চেয়ে কম ইনিংস খেলতে হয়েছিল শুধু হাশিম আমলাকেই (৬৪টি)। ডি ককের বয়স মাত্র ২৩, নিশ্চয় আরও অনেক দূর যেতে চাইবেন!

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: