ওয়ালশের প্রথম ক্লাসে তাঁরা | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বিশ্ব পর্যটন দিবস ও আমাদের সম্ভাবনা ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ
প্রচ্ছদ / খেলাধুলা / বিস্তারিত

ওয়ালশের প্রথম ক্লাসে তাঁরা

6 September 2016, 8:39:17

উচ্চতা নিয়ে কোর্টনি ওয়ালশকে বোধ হয় কিছু একটা বললেন মুশফিকুর রহিম। শুনে বেশ মজাই পেলেন ক্যারিবীয় কিংবদন্তি। পরিচয়ের শুরুতেই জড়তা কেটে গেল দুজনের।
বাংলাদেশে কাল নিজের প্রথম ‘কর্মদিবসে’ শুধু পেসারদের সঙ্গে নয়, ওয়ালশ পরিচিত হলেন পুরো দলের সঙ্গেই। অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা তো বলেছেন, ‘তাঁর সঙ্গে ড্রেসিংরুম শেয়ার করতে পারলে শুধু বোলাররা নয়, অন্যরাও অনেক উপকার পাবে।’
যদিও বাংলাদেশ দলের অনেককেই ওয়ালশ আগে থেকেই চেনেন। ২০১৪ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে একটি অনুষ্ঠানে মুশফিক-তামিমদের সঙ্গে সরাসরি দেখাও হয়েছিল তাঁর। পরিচয়পর্ব শেষে মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের মাঝ উইকেটে পেসারদের নিয়ে কাজ শুরু করলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে ১৩২ টেস্ট খেলা এই ফাস্ট বোলার। প্রথম দিনে রানআপ, বোলিং অ্যাকশন, লাইন-লেংথ, গ্রিপ—পেসারদের মৌলিক বিষয় নিয়ে কাজ করেছেন ওয়ালশ। পরিচয়পর্বে থাকলেও তাঁর ক্লাসে ছিলেন না মাশরাফি। অধিনায়ক তখন ঘাম ঝরিয়েছেন জিমে। বোলিং অ্যাকশন পরীক্ষা দিতে অস্ট্রেলিয়ায় যাওয়া নিয়ে ব্যস্ত থাকায় ছিলেন না তাসকিন আহমেদও। আর মুস্তাফিজুর রহমান চোটের কারণে অনেক দিন মাঠের বাইরে।
ওয়ালশের প্রথম দিনে রুবেল হোসেন, আল আমিন, শফিউল ইসলাম, মোহাম্মদ শহীদ, আবু হায়দার, মুক্তার আলী ও কামরুল ইসলামের অভিজ্ঞতা হয়েছে দারুণ। টেস্টে একসময়ের সর্বোচ্চ উইকেটশিকারির খেলা কখনো দেখা হয়নি আল আমিনের। ২০১৪ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে গিয়ে প্রথম তাঁকে কাছ থেকে দেখা। তখন কিছু ছবি-টবিও তোলা হয়েছিল তাঁর সঙ্গে। কাল কোচ হিসেবে ওয়ালশকে দেখে কেমন লাগল আল আমিনের? ‘আমাদের সবকিছু দেখলেন। সবাই এক-দুই ওভার বোলিং করলাম। তাকে পেয়ে আমরা খুশি। নতুন কোচ এসেছেন, নিশ্চয়ই নতুন কিছু শিখব’—বলছিলেন বাংলাদেশ দলের এই পেসার।
আজ মিরপুরে তৃতীয় প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে আফগানিস্তান ও ইংল্যান্ড সিরিজের জন্য প্রাথমিক দলে থাকা খেলোয়াড়েরা। রুবেল জানালেন, সবাইকে এই ম্যাচে মনোযোগ দিতে বলেছেন ওয়ালশ, ‘স্পট বোলিং, ভালো লেংথে হিট করা, কার কেমন বোলিং অ্যাকশন, গ্রিপ—এসবই দেখছেন আজ (কাল)। কাল (আজ) যেহেতু আমাদের প্রস্তুতি ম্যাচ আছে, ওটা নিয়ে ভাবতে বলেছেন। তিনি বলেছেন, ম্যাচে তোমাদের স্বাভাবিক বোলিংটাই করবে।’
শৈশবে যাঁর খেলা শুধু টিভিতেই দেখেছেন, সেই ওয়ালশ এখন চোখের সামনে। তাঁর মতো কিংবদন্তির সামনে বোলিং করতে পারার রোমাঞ্চ ছুঁয়ে যাচ্ছে রুবেলকে, ‘রোমাঞ্চিত অবশ্যই। সামনে ওয়ালশ দাঁড়িয়ে, আমরা বোলিং করছি—অন্য রকম ব্যাপার। যদি আমার কথা বলি, চেষ্টা করব তাঁর কাছ থেকে কিছু শেখার। আমার যে শক্তিগুলো আছে, বাউন্সার-ইয়র্কার যেটাই করি, এসবে আরও উন্নতি করার চেষ্টা করব।’
আরেক পেসার কামরুল জানালেন, ওয়ালশ বোলারদের নাম ডাকছেন সংক্ষেপে। তাঁকে তিনি ডাকছেন ‘র্যাব’ বলে। বোঝাই যাচ্ছে, শুরুতেই জড়তা কাটিয়ে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার চেষ্টা করছেন ওয়ালশও। এ কারণেই কামরুলের ডাকনাম ‘রাব্বী’টাকে ছোট করে ফেলেছেন। বাকি নামগুলোও পেয়ে যাবেন নিশ্চয়ই! ওয়ালশে মুগ্ধ আরেক পেসার শফিউল ইসলাম, ‘তিনি বেশ বন্ধুসুলভ। তবে এক দিনেই তো সব জানা-শেখা হয় না। ধীরে ধীরে হবে।’

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: