কমেডি বনাম কমিটি | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বিশ্ব পর্যটন দিবস ও আমাদের সম্ভাবনা ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ
প্রচ্ছদ / খেলাধুলা / বিস্তারিত

কমেডি বনাম কমিটি

8 December 2016, 1:04:11

স্পোর্টস ডেস্ক :“হুনছোসনি, পোলাপাইন তো সব পাঙ্খা হইয়া যাইতাছে। ঢাকা ডায়নামাইটসের ডরে নাকি দেশ কাপতাছে”। বিপিএল ৪ এ ডায়নামাইটসের থিমসং এর শুরুটা ঠিক এমনই। টুর্নামেন্ট শুরুর আগেই নিজের শক্তি আর সামর্থের আভাস দিয়েছিল দলটা। মাঠের দারুন পারফরমেন্সে ফাইনালে রাজশাহী কিংসের প্রতিপক্ষ তারা।

ফল দেয়া গাছটায় নাকি মানুষ ঢিল মারে বেশি। কথাটি সত্য কারন নিম গাছে কেউ ঢিল মারে না। ডায়নামাইটসের অবস্থাটাও যেন তেমনই। ফাইনালে যাওয়ার আগ পর্যন্ত সব কিছু ঠিকমত চলছিল। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে ২য় বারের মত খুলনার কাছে হেরেও নিজের ১ম স্থান নিয়েই কোয়ালিফাইং রাউন্ডে যায় তারা। এরপরেই শুরু হয় ঢাকার বিরুদ্ধে নানান কথা। মূলত ঢাকা শেষ ম্যাচ হারায় কপালে আগুন লাগে রংপুর রাইডার্সের। কারন শেষ ম্যাচে ঢাকা জিতলে খুলনার বিদায়ে শেষ চারের টিকেট পেত রংপুর। রংপুরের সেই আশায় গুড়ে বালি পড়েছে। অথচ নিজেদের শেষ ম্যাচে যদি কুমিল্লার কাছে না হারত তাহলেও তাদের সুযোগ ছিল শেষ চারে যাওয়ার। ঘটনার এখানেই শেষ না। কোয়ালিফাইং ম্যাচে ১৪১ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে খুলনা প্রথমেই বিপর্যয় পরতে পারত। আবু যায়েদ রাহির করা প্রথম ওভারে ফ্লেচারের শিওর এলবিডব্লিউ তে সাড়া দেন নি পাকিস্তানী আম্পায়ার। সেটা নিয়ে রাহি আম্পায়ার সাকিবের বেশ বাগবিতন্ডা হয়ে গেছে। এরপরে আম্পায়ারের আবার ৫০-৫০ ডিসিশন যায় ঢাকার পক্ষে। ডায়নামাইটস হয়ে যায় কমিটির টিম। মূলত ঢাকার মাঠে ঢাকার খেলা বলেই হয়ত এই গুঞ্জন। আর এটা নিছক একটা মনগড়া ছেলেমানুষী টাইপ মন্তব্য ছাড়া কিছুই না। দল গঠনের পর থেকেই এবাবের বিপিএল এ সবাই মুখে মুখে ঢাকাকে চ্যাম্পিয়ন ধরেই রেখে ছিল। মাঠে সেটা মারুফ সাকিব আর চ্যাম্পিয়ন ব্রাভোরা করে দেখিয়েছেন। মাঠে সামর্থ্য দেখিয়ে প্রতিপক্ষের বোলারদের বেধরক মেরে আর ব্যাটসম্যানদের বোকা বানিয়ে ঢাকা ডায়নামাইটস জায়গা করে নিয়েছে ফাইনালে। তবুও কেন কমিটির টিম!!!

“আচ্ছা! হারলে তো প্রতিপক্ষ অনেক কথাই বলে” এমন মন্তব্য করেই ছেড়ে দেয়া হয়েছে সব। এবার কমিটির টিম থেকে কমেডির টিমে আসা যাক। রাজশাহী কিংস! ড্যারেন সামির নতুন নতুন উইকেট সেলিব্রেশন আর মিরাজদের বোলিং নৈপুন্য কিংসকে দিয়েছে অনন্য মাত্রা। টুর্নামেন্ট থেকে বাদ পড়ে যাওয়া দলের সমর্থকরা যেন প্রান ফিরে পাচ্ছে কিংসদের এমন উল্লাসে। খেলাটাকে যেন উপভোগ্য করে তোলার রাজকার্য হাতে নিয়েছে কিংসরা।

এলিমিনেটর ম্যাচ যারা দেখেছেন তারা হয়ত বিষয়টা স্পষ্টতই জানেন যে ড্যারেন সামি মাঠে কি করে দেখিয়েছেন। শেষ বল পর্যন্ত দর্শককে রেখেছেন গ্যালারীতে। সেলিব্রেশনের নতুন নাম দেয়া হয়ে গেছে ইতিমধ্যে “সেলফিব্রেশন”। ভাইকিংসের এক একটি উইকেট যেন কিংসদের নতুন নতুন সেলিব্রেশন। টি২০ অল্প সময়ের যে একটা বিনোদন সেটা শেষমেষ করে দেখাচ্ছে রাজশাহী কিংস। টুর্নামেন্টের শুরুটা খুব বেশি ভালো না হলেও সামির বিচক্ষন অধিনায়কত্ব এবং টিমমেটদের দারুন সহযোগীতা তাদের এনে দিয়েছে স্বপ্নের ফাইনালে। সামনে শুধু একটা বাধা ঢাকা ডায়নামাইটস। তবে এই বাধাকে কোন বাধাই মনে করার সুযোগ নেই রাজশাহীর। কারন গ্রুপ পর্বের দুইবারের দেখায় দুইবারই জিতেছে তারা। হয়ত মানুষিক ভালো এগিয়ে থাকবে কিংসরা। ৯ তারিখের অপেক্ষায় এখন সবাই। ড্যারেন সামির নতুন কোন “কমেডি” হবে নাকি ৩য় বারের মত বিপিএল ট্রফি জিতে নিবে সাকিব আল হাসান এর ঢাকা ডায়নামাইটস।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: