কালীগঞ্জে মিঠু হত্যা মামলার আসামীদের ষড়যন্ত্র ফাঁস! | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ ◈ অনুকূল পরিবেশ হলে এইচএসসি পরীক্ষা

কালীগঞ্জে মিঠু হত্যা মামলার আসামীদের ষড়যন্ত্র ফাঁস!

24 October 2016, 10:13:20

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃ
ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার সুবর্ণসরা গ্রামের যুবদল নেতা মনিরুজ্জামান মিঠু হত্যা মামলার আসামীদের বাড়িতে বোমাবাজীর ঘটনা ঘটেছে। সোমবার ভোররাতে এই হামলার ঘটনা ঘটে। গ্রামবাসি জানায়, একটি সাদা মাইক্রোবাসযোগে দুর্বৃত্তরা যশোরের লেবুতলা ইউনিয়নের আন্দোলপোতা গ্রামে মিঠু হত্যা মামলার আসামী সাক্কার আলী বিশ্বাস, বাক্কার আলী ও আকবর আলীর বাড়িতে কে বা করা হামলা চালায়। হামলার সময় ভয়ে ভীত ভয়ে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ওই বাড়ির প্রবিন সদস্য মনা মৃত্যু বরণ করেন। এ ঘটনায় পুলিশ সোমবার সকালে ঘটনাস্থল থেকে বোমার স্প্রিন্টারসহ বিভিন্ন আলামত উদ্ধার করেছে। মিঠু হত্যা মামলা ধামাচাপা ও ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে আসামীরা নিজেরাই এমন ঘটনা ঘটিয়েছে কিনা তা পুলিশ তদন্ত করে দেখছে। পুলিশ বলছে মিঠু হত্যা মামলা দায়েরের পর আসামীদের ভয়ে ওই পরিবারের ৮ পুরুষ সদস্য দীর্ঘদিন ধরে বাড়ি ছাড়া। আসামীদের ভয়ে তারা এলাকায় আসতে পারেন না। এ ব্যাপারে যশোর কতোয়ালি থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছিলো বলে কতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইলিয়াস হোসেন জানান। এদিকে যুবদল নেতা মনিরুজ্জামান মিঠু হত্যা মামলার বাদী আক্কাচ আলী অভিযোগ করেন, আসামী সাক্কার ও বাক্কার এলাকায় সন্ত্রাসী হিসেবে পরিচিত। তাদের এক ভাই আকবর বিশ্বাস হত্যা মালায় জেলে রয়েছে। কালীগঞ্জের সুবর্ণসরা গ্রামটি যশোর সমীন্ত থেকে দেড় কিলোমিটার দুরে। মিঠু হত্যা মামলার কয়েকজন আসামীর বাড়ি যশোরের আন্দোলপোতা গ্রামে। তিনি অভিযোগ করেন, বাদীর পরিবারকে ফাঁসাতেই এই নাটক সাজিয়েছে আসামীরা। এ বিষয়ে সুবর্ণসরা পুলিশ ক্যাম্পের বর্তমান তদন্ত কর্মকর্তা মহসিন আলী জানান, আন্দোলপোতা গ্রামটি ঝিনাইদহ যশোরের সীমান্তবর্তী। সেখানে কি ঘটনা ঘটেছে তা আমার জানা নেই। উল্লেখ্য ২০১৫ সালের ১৯ ডিসেম্বর লুচিয়া গ্রামের মাঠে দিনে দুপুরে মনিরুজ্জামান মিঠু (৩৫) কে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনায় নিহতর ভাই আক্কাচ আলী বাদী হয়ে ১৮ জনকে আসামী করে কালীগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। কালীগঞ্জ থানা পুলিশের এসআই এসএম আশরাফুল আলম তদন্ত শেষে ২০১৬ সালের ৬ জুলাই আসামীদের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জসিট দাখিল করেন। আদালত থেকে আসামীদের নামে ওয়ারেন্ট ইস্যু করা হলেও ৩ জন ব্যতিত বাকী আসামীদের পুলিশ গ্রফতার করতে পারিনি। মামলা করায় আসামীদের হুমকীতে বাদী আক্কাচ আলী, টিপু, রাজ্জা বিশ্বাস, ইদু, চকম আলী, জিয়ারুল, নবো ও মামুন প্রায় ৭ মাস ঘরবাড়ি ছেড়ে পথে পথে ঘুরছেন। তারা বাড়ি ফিরতে পারছেন না। বাড়ি ফিরলে মামলা তুলে নিতে চাপ দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: