কুমিল্লার সাথে জিতে শেষ চারের আশা বাঁচিয়ে রাখল চট্টগ্রাম | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বিশ্ব পর্যটন দিবস ও আমাদের সম্ভাবনা ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ
প্রচ্ছদ / খেলাধুলা / বিস্তারিত

কুমিল্লার সাথে জিতে শেষ চারের আশা বাঁচিয়ে রাখল চট্টগ্রাম

22 November 2016, 9:13:25

নিজেদের ৭ম ম্যাচে এসে ৬ষ্ঠ হারের মুখ  দেখল ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লা ভিক্টরিয়ান্স। চট্টগ্রামে চিটাগাং ভাইকিংস এর কাছে এবার তাদের হার ৬ উইকেট। ১৮৪ রানের টার্গেট ৪ বল বাকি থাকতেই পার হয়ে যায় স্বাগতিকরা।

টস জিতে ব্যাটিং এর সিদ্ধান্ত নিয়ে সবাইকে চমকে দেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। কিন্তু সেই চমক কে বেশিক্ষণ চমক থাকতে দেন নি কুমিল্লার টপ ওয়ার্ডার। বরাবরের মত ব্যর্থ কুমিল্লার ওপেনিং জুটিতে এবার আসে  ২৯ রান। তাসকিনের বলে বোল্ড হয়ে শান্ত ফিরে যান ড্রেসিংরুমে।

ইমরুল কায়েসের সাথে জুটি গড়েন ওপেনার খালিদ। ৫৩ বলে ৫ ছয় আর ছয় চারে ৭৫ রান করে রান আউট হন খালিদ। এর আগে ৯৭ রানে ভুল বুঝাবুঝির শিকার হয়ে ২৬ বলে ৩৬ রান করে আউট হন ইমরুল কায়েস। শেষদিকে শেহজাদের ২৫ বলে ৪০ রানের ইনিংসে ১৮০ এর বেশি রান করতে সক্ষম হয় কুমিল্লা।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে উড়ন্ত সূচনা করেন চট্টগ্রামের ব্যাটসম্যানরা। ২ ওভার ৪ বলে তুলে ফেলে ২৮ রান। এরপর ম্যাশের বলে আউট হয়ে যান ১২ বলে ২১ রান করা স্মিথ। এনামুলের সাথে ৬১ রানের জুটি গড়েন তামিম ইকবাল।

এরপর দুই ওভারের ব্যবধানে তামিম ও এনামুল ফিরে গেলে জয়ের আশা জাগে কুমিল্লার। ২৭ বলে ৩০ রান করেন তামিম। আর ৩০ বলে ৪০ রান করেন অধিনায়ককে সঙ্গ দেয়া এনামুল।

মালিকের সাথে নবীর পার্টনারশীপেই ম্যাচ হাত থেকে  বেরিয়ে যায় কুমিল্লার। ২৪ বলে ২ ছয় আর চার চারে ৪৬ রান করে অপরাজিত থাকেন নবী। ২৫ বলে ৩৮ রান করেন শয়েব মালিক। শেষদিকে মালিককে আউট করলেও বড্ড দেরি হয়ে গেছে তখন। চার বল বাকি থাকতেই ম্যাচ জিতে নেয় চট্টগ্রাম ।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: