কুমিল্লা নগরবাসীর দুর্ভোগের শেষ নেই! | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ ◈ অনুকূল পরিবেশ হলে এইচএসসি পরীক্ষা ◈ কুমিল্লায় বিপুল ইয়াবাসহ দম্পতি আটক!
প্রচ্ছদ / রাজনীতি / বিস্তারিত

কুমিল্লা নগরবাসীর দুর্ভোগের শেষ নেই!

23 June 2014, 2:17:44

71418_498204500264333_1499841947_n

 

 

 

 

 

 

নিজস্ব প্রতিবেদক: বৃহস্পতিবার মধ্যরাত থেকে রোববার দুপুর পর্যন্ত টানা বর্ষণে কুমিল্লা মহানগরীর অধিকাংশ এলাকা পানিতে তলিয়ে গেছে। নগরীর প্রধান সড়কগুলোতে পানির নিচে ডুবে আছে। এতে চরম দুর্ভোগের মধ্যে পড়েছেন হাজার হাজার কর্মজীবী, স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীসহ নগরবাসী।

বর্ষণ এবং সড়কে জলাবদ্ধতার কারণে নগরীতে যানবাহন চলাচলও অনেকটা বন্ধ রয়েছে। এছাড়া বৃষ্টি পানিতে ভাঙ্গা চুড়া রাস্তায় পানি জমে আরও মারাত্মক দুর্ভোগের শিকার হতে হচ্ছে।

নগরীর ৯০% সড়কই ইট-সুরকি উঠে যাওয়ায় সামান্য বৃষ্টিতে ছোট-বড় গর্তে পানি জমে দীর্ঘদিন ধরে খানাখন্দের সৃষ্টি হয়ে আছে। এতে স্বাভাবিক হাঁটাচলাও দুষ্কর হয়ে পড়েছে। ফলে নগরবাসীর দুর্ভোগের শেষ নেই।

সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, নগরীর ইপিজেড এলাকা, দক্ষিণ চর্থা বড় পুকুর পাড় -ইপিজেড রোড, ছাতিপট্টি, হাউজিং এষ্ট্রেট, হযরতপাড়া, কাটাবিল, রেইসকোর্স, বাদুরতলা, ঝাউতলা, ষ্টেডিয়াম মার্কেট, ছোটরা মাজারের সামনে, কালিয়াজুরী, বিসিক শিল্পনগরী, রাণীর বাজার, সংরাইশ, জগন্নাথপুর, পাথুরিপাড়া, শুভপুর, নবগ্রাম, সুজানগর, ধর্মপুর, টমছমব্রীজ, শাকতলা, জজকোর্ট সড়ক, দক্ষিণ চর্থা মহিলা কলেজ রোড, নিমতলী, দক্ষিণ চর্থা ঢাকা বেকারী সড়ক, হোচ্ছামিয়া লুৎফুন্নেছা বালিকা বিদ্যালয় সড়ক, থিরাপুকুরপাড়, ঠাকুরপাড়া, মুরাদপুর, বাগিচাগাঁওসহ বিভিন্ন নিচু এলাকা ও সড়ক প্রায় হাটু সমান পানিতে তলিয়ে আছে। যানবাহন চলাচলসহ স্বাভাবিক চলাফেরা করতে মারাত্মকভাবে বিঘ্নিত হচ্ছে।

আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, মৌসুমী বায়ুর প্রভাবে প্রবল বর্ষণ অব্যাহত আছে। শুক্রবার-শনিবার অফিস-আদালত ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও রোববার অফিস আদালত খোলার দিন জলাবদ্ধতার কারণে দুর্ভোগে পড়েছেন কর্মজীবি মানুষগুলো। এছাড়াও স্কুলগুলোতে চলছে পরীক্ষা, শিক্ষার্থীরা স্কুলে যেতে মারাত্মক সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে।

রাস্তায় হাটু পানি হওয়ার কারণে রিক্সাও যাচ্ছে না। যেখানে ২০ টাকা ভাড়া সেখানে ৫০ টাকা দিয়েও পাওয়া যাচ্ছে না ফলে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়।

জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হওয়ায় নগরীর ষ্টেডিয়াম এলাকার পুরো সড়কটি ও মার্কেটের সামনে পানিতে তলিয়ে গেছে। ফলে শত শত দোকানের ভিতরেও পানি প্রবেশ করায় ইলেক্ট্রনিক মালামাল মারাত্মক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হচ্ছে। ষ্টেডিয়াম এলাকার একাধিক ব্যবসায়ী জানান- সামান্য বৃষ্টিতে আমাদের হাটু পানিতে তলিয়ে যায়। ফলে দোকানের ভিতরে প্রায় কয়েক লাখ টাকার ইলেক্ট্রনিক মালামালের পানি ঢুকার কারণে জিনিসপত্র নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। দোকানগুলোতে টিভি, ফ্রিজ, এয়ার কন্ডিশন, ফ্যানসহ বিভিন্ন মূল্যবান জিনিসপত্র রয়েছে।

নগরীর বিভিন্ন এলাকায় খবর নিয়ে জানা গেছে, নগরীর চিড়িয়াখানা সড়ক, বাদশা মিয়া বাজার, রেইসকোর্স, ডিসি রোডসহ নগরীর অধিকাংশ এলাকা মূল সড়ক ও উপ-সড়ক পানিতে তলিয়ে গেছে।  এ বিষয়ে স্থানীরা ক্ষোভের সাথে জানান- কুমিল্লা সিটি মেয়র মনিরুল হক সাক্কু জার্মানিতে চলে যাওয়ায় নগরবাসী দুর্ভোগে পড়লে কাউকে দেখা যায় না। ভোট নেওয়ার সময় কত আশা ভরসা, উন্নয়নের কত কিছুই বলেন। বাস্তবে কিছুই করেন না বলে তারা।

এছাড়া কাটাবিল সড়ক, হাউজিং এষ্ট্রেট সড়ক, হযরতপাড়া সড়ক, ঠাকুরপাড়া, আশ্রাফপুর, বাদশামিয়া বাজার, রেইসকোর্সসহ বিভিন্ন এলাকা ভাঙ্গাচুরা সড়কগুলোতে পানি জমে কাদাযুক্ত হয়ে মারাত্মক দুর্ভোগে পড়তে হচ্ছে নগরবাসীকে। এসব সড়ক দিয়ে দিনে বেলায় যানবাহন চলাচলে মারাত্মক দুর্ভোগে পড়তে হয়। এ রকম অহরহ সড়ক কুমিল্লা মহানগরীতে রয়েছে। এসব সড়কে ইট-সুরকি উঠে যাওয়ায় সামান্য বৃষ্টিতে ছোট-বড় গর্তে পানি জমে দীর্ঘদিন ধরে খানাখন্দের সৃষ্টি হয়ে আছে। এতে স্বাভাবিক হাঁটাচলাও দুষ্কর হয়ে পড়েছে। অনেক সময় গর্তের মধ্যে ট্রাক, অটোরিকশা-সিএনজিসহ বিভিন্ন যানবাহন আটকা পড়ে তীব্র যানজটের সৃষ্টি করে।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: