কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচন আগামী ২০ ডিসেম্বর | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বিশ্ব পর্যটন দিবস ও আমাদের সম্ভাবনা ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ

কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচন আগামী ২০ ডিসেম্বর

11 October 2016, 8:48:46

কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচন আগামী ২০ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। নভেম্বর মাসের মধ্যভাগে তফসিল ঘোষনা করবে নির্বাচন কমিশন(সিইসি)। গতকাল সোমবার প্রধান নির্বাচন  কমিশনার কাজী রকিবউদ্দিনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় এ সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জ ও কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন আয়োজনে প্রাথমিক প্রস্তুতি শুরু করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিবালয়। এরই অংশ হিসেবে চলছে নির্বাচন পরিচালন ও আচরণ বিধিমালা সংশোধনের কাজ।

আগামী ২০ডিসেম্বর এ দুই সিটিতে ভোটগ্রহণের চিন্তাভাবনা করছেন কমিশন সচিবালয়ের কর্মকর্তারা। যার কারণেই দুই সিটি কর্পোরেশনের সার্বিক তথ্য কমিশনের কাছে উপস্থাপন করতে পুরোদমে কাজ শুরু করেছেন ইসির সংশ্লিষ্টরা। প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ নেতৃত্বাধীন ৫ সদস্যের বর্তমান ইসির অধীনে এটাই হবে শেষ বড় নির্বাচন। আগামী ফেব্র“য়ারিতে বর্তমান কমিশনের মেয়াদ শেষ হবে।

ইসি সূত্রে উল্লিখিত সব তথ্য জানা গেছে। এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশন সচিব মো. সিরাজুল ইসলাম যুগান্তরকে বলেন, না’গঞ্জ ও কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের প্রস্তুতিমূলক কাজ শুরু করেছি। বিধিমালা সংশোধনের কাজ চলছে। বিধান অনুযায়ী, কর্পোরেশনের মেয়াদ শেষ হওয়ার আগের ১৮০ দিনের মধ্যে ভোটগ্রহণ করতে হবে। তবে কবে নাগাদ ভোটগ্রহণ হবে তা কমিশন নির্ধারণ করবে।
২০১১ সালের ৩০ অক্টোবর নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ভোটগ্রহণ হয়েছিল। এ সিটি কর্পোরেশনের প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয় ওই বছরের ২৭ ডিসেম্বর। আর ২০১২ সালের ৫ জানুয়ারি কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের ভোট হয়েছিল। ওই বছরের ৯  ফেব্র“য়ারি কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের জনপ্রতিনিধিদের প্রথম সভা হয়। এ হিসাবে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের বর্তমান জনপ্রতিনিধিদের মেয়াদ আগামী ২৬ ডিসেম্বর ও কুমিল্লার আগামী বছর ৮ ফেব্র“য়ারি শেষ হচ্ছে। মেয়াদ শেষ হওয়ার ১৮০ দিন আগে নির্বাচনের বিধান রয়েছে। ফলে এ বছরের ২৯ জুন থেকে ২৬ ডিসেম্বরের মধ্যে নারায়ণগঞ্জে এবং ১২ আগস্ট থেকে ৮  ফেব্র“য়ারির মধ্যে কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের ভোট শেষ করতে হবে ইসিকে।

সূত্র জানায়, ডিসেম্বরের মধ্যে নারায়ণগঞ্জ ও কুমিল্লা সিটির নির্বাচন একইদিনে করতে চায় ইসি। সর্বশেষ ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ এবং চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ভোট একদিনে নিয়েছিল ইসি। দুই সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের সময়সূচি ঘোষণার ক্ষেত্রে বছর শেষে পঞ্চম শ্রেণীর সমাপনী ও অষ্টম শ্রেণীর জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট পরীক্ষার বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। অক্টোবরের শেষ বা নভেম্বরের শুরুতে তফসিল ঘোষণা করা হতে পারে। এর আগে নির্বাচন ও আচরণ বিধিমালায় দুটিতে দলীয় প্রতীকে নির্বাচনের বিষয়গুলো অন্তর্র্ভুক্তি করা হবে।

তারা আরও বলেন, কমিশন সচিবালয় থেকে নির্বাচনের প্রস্তুতি শেষ করার পর কমিশনে উপস্থাপন করা হবে। কমিশন নির্বাচনী দিন নির্ধারণ করে দিবে। জানা গেছে, সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের আচরণ বিধিমালা ও পরিচালন বিধিমালার সংশোধনীর খসড়া তৈরি করেছে কমিশন সচিবালয়। পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের মতো একই ধরনের বিধান যুক্ত হচ্ছে সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের বিধিমালায়। প্রথমবারের মতো সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে দলীয় পরিচয় ও প্রতীকে অনুষ্ঠেয় এ নির্বাচনে সরকারি সুবিধাভোগী মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও এমপিদের নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নেয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা থাকবে। তবে প্রার্থী হলে মেয়রদের প্রচারণার সুযোগ দেয়া হতে পারে। পৌর ও ইউপি নির্বাচনে মেয়ররা প্রচারণায় অংশ নিতে পারেন না।

ইসির তথ্য অনুযায়ী, নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনে সাধারণ ওয়ার্ড ২৭ ও সংরক্ষিত ওয়ার্ড ৯টি। মোট ভোটার রয়েছে ৪০ লাখ ৩ হাজার ৭০৬। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ২ লাখ ৩ হাজার ৯৬ জন ও নারী ২ লাখ ৬১০ জন। অপরদিকে কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনে সাধারণ ওয়ার্ড ২৭ ও সংরক্ষিত ওয়ার্ড ৯টি। ভোটার ১ লাখ ৬৯ হাজার ২৭৩ জন। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ৮৩ হাজার ১৯৯ জন ও নারী ৮৬ হাজার ৭৪ জন।

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন সামনে রেখে ইতিমধ্যে নারায়ণগঞ্জের সম্ভাব্য প্রার্থীদের মধ্যে দৌড়ঝাঁপ শুরু হয়েছে। সম্ভাব্য কাউন্সিলররা দলীয় সমর্থন পেতে সিনিয়র নেতাদের কাছে ধরনা দিচ্ছেন তারা। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের অনেক নেতা বিভিন্ন দিবস উপলক্ষে পোস্টার ও ব্যানারে শুভেচ্ছা জানিয়ে তাদের প্রার্থিতার আগাম বার্তা দিচ্ছেন। মেয়র পদে প্রার্থী কারা হবেন- তা নিয়েও নগরীতে গুঞ্জন চলছে। মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী আবারও নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন বলে জানা গেছে।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: