খুলনার বটিয়াঘাটা উপজেলার সুরখালী হাটের পাশেই সরকারী জায়গায় পাকা ঘর নির্মান হচ্ছে প্রশাসন নিরব।  | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বিশ্ব পর্যটন দিবস ও আমাদের সম্ভাবনা ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ
প্রচ্ছদ / সারাদেশ / বিস্তারিত

খুলনার বটিয়াঘাটা উপজেলার সুরখালী হাটের পাশেই সরকারী জায়গায় পাকা ঘর নির্মান হচ্ছে প্রশাসন নিরব। 

14 January 2017, 4:37:32

বিশেষ প্রতিনিধি  : উপজেলার সুরখালী ইউনিয়ন
পরিষদের সামনে খোদ পানি উন্নয়ন বোর্ডের জায়গায় গত ৮/৯ দিন আগে থেকে বিরামহীন ভাবে পাকা ইমারত নির্মান করে চলেছে সিঙ্গাপুর প্রবাসী তরিকুল ইসলাম। খোজ নিয়ে জানাগেছে, বারোআড়িয়ার মেইন সড়কের খুব কাছে সুরখালী নামক স্হানে ৪ রুম বিশিষ্ট পাকা ঘর তৈরি হচ্ছে। বিরতিহীন ভাবে সরকারী জায়গায় কাজ করার ধরন দেখে মনে হয় অত্র এলাকায় আইনের কোন শাসন নাই। আবার বিষয়টি একাধিক বার পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাদের অবহিত করেও তাদের ঘুম ভাঙানো যায়নি। অত্র এলাকার আ’লীগের একজন প্রভাবশালী নেতা জানান,পানি উন্নয়ন বোর্ডের জায়গায় পাকা ঘর তৈরি হচ্ছে এ বিষয় মাননীয় এম পি মহোদয়কে অবহিত করেছি। একজন ওয়ার্ড মেম্বর জানান, অত্র দপ্তরের যাকেই বলনা কেন কেউ কথা শুনবেনা। তাদের পকেট গরম হয়ে গেছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধীক ব্যক্তি জানান, এস ও সাইদুর সাহেবের ইশারায় তিতুখালি ও ভারবুনিয়াসহ অনেক সরকারী জায়গায় পাকা ইমারত হয়েছে। তার কাছে কেউ নালিশ করতে গেলে তাকে ভুগোল বুঝিয়ে বাড়ীতে পাঠিয়ে দেন।  মোট কথা তার ব্যবহার দেখে মনে হয়না সরকার তাকে যে দায়িত্ব দিয়েছে তা বিন্দু পরিমান তিনি পালন করেন। এ বিষয় স্হানীয় তহশিলদারকে অবহিত করলে তিনি বলেন এ বিষয় দেখার দায়িত্ব আমাদের না। পানি উন্নয়ন বোর্ডের জায়গায় পাকা ইমারত নির্মান করছে এ বিষয় এস,ও সাইদুর রহমানের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, পানি উন্নয়ন বোর্ডের জায়গায় ঘর হচ্ছে তিতুখালিসহ অনেক জায়গায় তো ঘর হয়েছে তার পরেও আমি বিষয়টি দেখব। তার বক্তব্য বেশ রহস্য রয়েছে বলে মনে হয়। সার্বিক বিষয় প্রধান প্রকৌশলী পিযুষ কান্তি মজুমদার বলেন,এ বিষয আমাকে অনেকে বলেছে নানা ব্যস্ততার কারনে আমি খোজ খবর নিতে পারিনি তবে ২/১ দিনের মধ্যে আমি এ বিষয় ব্যবস্থা নেব যদি ঘটনা সত্য হয়। এ বিষয় খুলনা ১ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য পন্ঞানন বিশ্বাসের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন,এ খবর আমাকে টেলিফোনে অনেকেই জানিয়েছে। পানি উন্নয়র বোর্ড কর্মকর্তাদের জানাবো অবৈধ ভাবে কাউকে কোন কাজ করতে দেওয়া হবে না। এলাকার অনেকে জানান ৮/৯ দিন আগে থেকে কাজ শুরু হয়েছে অথচ পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রায় সকল কর্মকর্তাদের কাছে একাধিক বার ফোন করেও কোন ফল হয়নি। আসলে কি এ দপ্তরের কোন দায়িত্ব কি নাই। এলাকার সচেতন মহল মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর দৃষ্টি আকার্ষন করেছন।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: