খুলনায় ইভিএম পদ্ধতির মহিলা কেন্দ্রে রাতের প্রশিক্ষণ সংকট! | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বিশ্ব পর্যটন দিবস ও আমাদের সম্ভাবনা ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ

খুলনায় ইভিএম পদ্ধতির মহিলা কেন্দ্রে রাতের প্রশিক্ষণ সংকট!

10 May 2018, 10:49:53

খুলনা ব্যুরো:
ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) মহিলাদের জন্য নির্ধারিত কেন্দ্রে গত বুধবার রাতে ভোট প্রদান প্রশিক্ষণের আয়োজন করা হয়। রাতের এ প্রশিক্ষণের প্রথম দিন মহিলা ভোটার সংকট দেখা যায়। তবে সার্বিক কার্যক্রমেই ছিল বিশৃঙ্খল অবস্থা। ভোটের আকর্ষণ থাকলেও রাতে ইভিএম প্রশিক্ষণ হওয়ায় মহিলা ভোটার পাওয়া যায়নি।
নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের এনআইডি উইংয়ের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘প্রথম দিন কিছুটা সমস্যা হয়েছে। এভাবে পরীক্ষার মাধ্যমে পরবর্তীতে এগুলো ঠিক হবে। স্থানীয় নির্বাচন কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকের কারণে এ কার্যক্রম শুরু করতে দেরি হয়েছে।’
উল্লেখ্য, কেসিসি নির্বাচনে দুটি কেন্দ্রে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট গ্রহণ করা হবে। কেন্দ্র দুটি হচ্ছে মহানগরীর ২৪নং ওয়ার্ডের সোনাপোতা মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও ২৭নং ওয়ার্ডে প্রাইমারী টিচার্স ট্রেনিং সেন্টার স্কুল (পিটিআই) কেন্দ্র। সোনাপোতা স্কুল কেন্দ্রটিতে ১ হাজার ১৩০ জন মহিলা ভোটার এবং পিটিআই স্কুল কেন্দ্রে ১ হাজার ৯০৯ জন পুরুষ ভোটার ভোট দিবেন।
মহানগরীর ২৪নং ওয়ার্ডের সোনাপোতা স্কুল কেন্দ্রে রাত সাড়ে ৮টা থেকে প্রশিক্ষণের কার্যক্রম শুরু করা হয়। কেন্দ্রটিতে মহিলা ভোটারদের জন্য ইভিএম স্থাপন করা হচ্ছে। কিন্তু পরীক্ষামূলক প্রশিক্ষণ আয়োজন করা হয়েছে রাতে। প্রশিক্ষণের শুরুতেই জাফর আলী নামের একজনের আঙুলের ছাপ নিতে গিয়ে সমস্যা সৃষ্টি হয়। তার আঙুলের ছাপ মেশিন নেয়নি। পেরে তার স্ত্রী লিপি আক্তারের আগুলের ছাপ দেওয়া চেষ্টায় সফলতা আসে।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য:

x