খুলনা রূপসার নৈহাটী দক্ষিন পাড়া আক্কাসের মোড় থেকে ইলাইপুর ফকিরবাড়ী মোড় পর্যন্ত পিচের রাস্তাটির বেহালদশা | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ ◈ অনুকূল পরিবেশ হলে এইচএসসি পরীক্ষা
প্রচ্ছদ / সারাদেশ / বিস্তারিত

খুলনা রূপসার নৈহাটী দক্ষিন পাড়া আক্কাসের মোড় থেকে ইলাইপুর ফকিরবাড়ী মোড় পর্যন্ত পিচের রাস্তাটির বেহালদশা

11 October 2016, 8:42:15

 

খুলনা প্রতিনিধি :খুলনা রূপসা উপজেলার নৈহাটী ইউনিয়নের নৈহাটী দক্ষিন পাড়া আক্কাসের মোড় থেকে মাছুয়াডাঙ্গা জামে মসজিদ হয়ে ইলাইপুর দক্ষিণপাড়া ফকিরবাড়ী মোড় পর্যন্ত পিচের রাস্তাটি চলাচলের অনেকটা অনুপোযুগী হয়ে পড়েছে। রাস্তার বিভিন্ন স্থানে পাথরের খোয়া উঠে ছোট-বড় অসংখ্য গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। যার কারণে রাস্তায় চলাচলরত সাধারণ মানুষসহ বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষার্থীরা মারাত্মক ভোগান্তির স্বীকার হচ্ছে। এখানে কয়েকটি গ্রামের শত শত শিক্ষার্থীরা নৈহাটী মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও নৈহাটী বালিকা বিদ্যালয়ে যাতায়াত করে থাকে। তাছাড়া রাস্তার পাশেই মাছুয়াডাঙ্গা নিউ হলি চাইল্ড কিন্ডার গার্টেন স্কুল রয়েছে। যেখানে প্রায় দুই শতাধিক কোমলমতি শিক্ষার্থী রয়েছে। যাদেরকে প্রতিনিয়ত এই রাস্তা দিয়েই স্কুলে যাতায়াত করতে হয়। কিন্তু রাস্তাটি অনেকটা চলাচলের অনুপোযুগী হয়ে পড়ায় এ সকল শিক্ষার্থীদের যাতায়াতে মারাত্মক সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে। ফলে যে কোন মুহুর্তে ছোট-বড় দূর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। বিগত ৮/১০ বছর আগে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ গুরুত্ব বিবেচনা করে ইটের সলিং থেকে রাস্তাটিকে পিচের রাস্তায় উন্নিত করা হয়। কিন্তু দীর্ঘ দিনেও রাস্তাটির কোন সংস্কার না হওয়ার এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। তাছাড়া প্রধান মন্ত্রির দপ্তর থেকে পরিচালিত এটুআই প্রকল্পের মাধ্যমে বাংলাদেশের একটি মাত্র গ্রাম মাছুয়াডাঙ্গাকে ইতিমধ্যে বেকারমুক্ত গ্রাম হিসাবে ঘোষনা দেয়া হয়েছে। এ ব্যপারে উপজেলা প্রকৌশলী মো. মহিউদ্দিন মিয়া বলেন, রাস্তাটির গুরুত্ব বিবেচনা করে আগামী অর্থ বছরের বাজেট থেকে সংস্কারের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: