খুলনা রূপসা থানার সহকারী দারোগার বিরুদ্ধে অর্থ বাণিজ্যের অভিযোগ : তদন্ত সম্পন্ন | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বিশ্ব পর্যটন দিবস ও আমাদের সম্ভাবনা ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ
প্রচ্ছদ / সারাদেশ / বিস্তারিত

খুলনা রূপসা থানার সহকারী দারোগার বিরুদ্ধে অর্থ বাণিজ্যের অভিযোগ : তদন্ত সম্পন্ন

5 October 2016, 6:13:35

খুলনা সংবাদদাতা,মুহম্মদ নাঈমুজ্জামান শরীফঃ
খুলনা রূপসা থানার সহকারী দারোগা সুজনের বিরুদ্ধে ইয়াবাসহ বিক্রেতা আটকের পর মোটা অংকের অর্থের বিনিময় ছেড়ে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ অভিযোগে গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে পুলিশ সুপারের নির্দেশে সার্কেল এসপি জামান সরেজমিন তদন্তে এসে ঘটনার সত্যতা পেয়েছেন।
জানা যায়, গত ২ অক্টোবর রাত আনুমানিক ৮টায় এএসআই সুজন সঙ্গীয় কনষ্টেবল নিয়ে সাদা পোষাকে উপজেলার রহমতনগর জামে মসজিদের সামনে থেকে ইয়াবার বড় একটি চালানসহ নৈহাটী গ্রামের আবুল কালাম আজাদের পুত্র মাসুদ (২২) ও সোহরাব হোসেনের পুত্র হৃদয় (২২) সহ তিন জনকে আটক করে। পরে ব্যাপক দেন-দরবারের পর দারোগা সুজন লক্ষাধীক টাকা বাণিজ্য করে তাদের ছেড়ে দেয়। এ সংক্রান্ত অভিযোগের প্রেক্ষিতে পুলিশ সুপারের নির্দেশে গতকাল তদন্ত হয়েছে। তদন্তকালে স্থানীয় লোকজন ও ভুক্তভোগীরা ওই তিন জনকে আটকের পর অর্থের বিনিময় ছেড়ে দেয়ার কথা তাকে অবহিত করেন। এ ব্যাপারে পুলিশ সুপার নিয়ামুল হক মোল্লা বলেন, এসপি সার্কেলকে তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। অভিযোগ প্রমানিত হলে তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে। রূপসা থানা অফিসার ইনচার্জ মো. রফিকুল ইসলাম জানান, বিষয়টি আমার জানা নাই। আমার অগোচরে এ জাতীয় কোন ঘটনা ঘটলে সেটা প্রমানিত হলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। এ এসআই সুজনের কাছে জানতে চাইলে তিনি উত্তেজিত হয়ে বলেন, আপনার যা ইচ্ছা তাই করতে পারেন তাতে আমার কিছুই যায় আসেনা।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: