গাজীপুরে মাল্টি ফ্যাবস লিমিটেড পোশাক কারখানায় বয়লার বিস্ফোরণে,নিহতের সংখ্যা ১০ | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বিশ্ব পর্যটন দিবস ও আমাদের সম্ভাবনা ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ

গাজীপুরে মাল্টি ফ্যাবস লিমিটেড পোশাক কারখানায় বয়লার বিস্ফোরণে,নিহতের সংখ্যা ১০

4 July 2017, 6:55:20

নিজেস্ব সংবাদদাতা :

সোমবার রাতে সংঘাটিত গাজীপুরে মাল্টি ফ্যাবস লিমিটেড পোশাক কারখানায় বয়লার বিস্ফোরণে নিহতদের মধ্যে ছয়জনের লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করেছে জেলা প্রশাসন। মঙ্গলবার সকালে  এক জনের (পুরুষ) মরদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। তবে তার নাম পরিচয় কিছুই পাওয়া যায়নি।

লাশ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন কালিয়াকৈর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার অপূর্ব বল।

এ নিয়ে কাশিমপুরের নয়াপাড়া এলাকার ওই বয়লার বিস্ফোরণের ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১০ জন। নিহতরা সবাই পুরুষ। এ ছাড়া আহত হয়েছেন অন্তত অর্ধশত।

সোমবার রাত সোয়া ৭টার দিকে নয়াপাড়া এলাকায় মাল্টি ফ্যাবস লিমিটেড পোশাক কারখানায় বয়লার বিস্ফোরণ হয়।

নিহতদের মধ্যে আটজনের লাশ রাতে গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আনা হয়। অপরজনের মৃত্যু হয় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। তার লাশ ঢামেক মর্গে রয়েছে।

শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আনা নিহতরা হলেন- মাগুরার শালিখা থানার গোবরা গ্রামের আইয়ুর আলী সর্দারের ছেলে কারখানার ফায়ারম্যান আল আমিন হোসেন, বাক্ষণবাড়িয়ার নাসিরনগর থানার কুন্ডা গ্রামের সাগর আলী মীরের ছেলে কারখানার সহকারি ইঞ্জিনিয়ার মুজিবুর রহমান, রাজবাড়ির গোয়ালন্দ থানার চরকাসনন্দ এলাকার মনিন্দ্র নাথের ছেলে বিপ্লব চন্দ্র শীল, বগুড়ার সোনাতলা থানার নামাজখালি গ্রামের শাহার আলীর ছেলে কারখানার বয়লার অপারেটর মাহবুবুর রহমান, চট্টগ্রামের মীরসরাই থানার ববনসুন্দর গ্রামের কারখানার বয়লার ইনচার্জ আব্দুস ছালাম, চাঁদপুরের সদরের মদনা গ্রামের বাচ্চু ছৈয়ালের ছেলে গিয়াস উদ্দিন ছৈয়াল।

গাজীপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মাহমুদ হাসান জানান, এ ছয়জনের লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ছাড়া আর দুইজনের নাম পাওয়া গেছে। এরা হলেন- এরশাদ ও মনসুর। তাদের বিস্তারিত পরিচয় পাওয়া যায়নি।

এদিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই বাচ্চু মিয়া জানান, ওই দুর্ঘটনায় সোমবার রাতে এ হাসপাতালে সোলাইমান (৩০) মারা যান। তিনি বগুড়ার গাবতলী থানার মরিয়া গ্রামের মৃত লিয়াকত আলীর ছেলে।

 

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: