চট্টগ্রাম-কক্সবাজারে ফুটপাত সড়ক দখল করছে আ.লীগ- পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বিশ্ব পর্যটন দিবস ও আমাদের সম্ভাবনা ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ

চট্টগ্রাম-কক্সবাজারে ফুটপাত সড়ক দখল করছে আ.লীগ- পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল

10 August 2014, 4:41:56

Lotas kamal.5

 

 

 

 

 

চট্টগ্রাম ব্যুরো
চট্টগ্রামের সব খালি জায়গা-ফুটপাত এবং কক্সবাজারের রাস্তাঘাট দখল হয়ে গেছে। এসব দখলের সঙ্গে আওয়ামী লীগের নেতারা জড়িত। চট্টগ্রাম বাংলাদেশের উন্নয়নের ভিত্তি। বিদেশি অর্থ বিনিয়োগে এখানে উন্নয়ন হচ্ছে। তাই এসব জায়গা দখলমুক্ত রাখতে হবে। পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল গতকাল চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে ১৪ দলের নেতাদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় এ কথা বলেন। মন্ত্রী বলেন, ক্ষমতায় আসলে সবাই আওয়ামী লীগ হয়ে যায়। বিএনপি-আওয়ামী লীগের মধ্যে এসব দখলদারিত্ব নিয়ে অংশিদারিত্ব রয়েছে।
বাংলাদেশের উন্নয়ন ভাবনা-চট্টগ্রাম শীর্ষক মতবিনিময় সভায় আ হ ম মোস্তফা কামাল বলেন, চট্টগ্রামে আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে অন্তত ৮০ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন কার্যক্রম শুরু হবে। চট্টগ্রামের উপকূল থেকে টেকনাফ উপকূল পর্যন্ত এমন একটি বিস্তীর্ণ জায়গা, যেখানে শিল্পাঞ্চল গড়ে তোলার জন্য যা যা দরকার, তার সব বৈশিষ্ট্য রয়েছে। তাই চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারকে সত্যিকারভাবে শিল্প ও বাণিজ্যনগরী হিসেবে গড়ে তোলা হবে। চট্টগ্রাম শহরের জলাবদ্ধতা নিরসনে ইতোমধ্যে সিটি করপোরেশনকে এক হাজার কোটি টাকার বেশি দেওয়া হয়েছে।
তিনি আরও বলেন, আমার একটি অনুরোধ, আপনারা শহরগুলোকে সব ধরনের দখলমুক্ত রাখবেন। কারণ বিদেশিরা একবার ফিরে গেলে আর বিনিয়োগ করতে আসবে না।
সভার প্রধান অতিথি গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বলেন, প্রধানমন্ত্রী চট্টগ্রামের উন্নয়নে ব্যাপক পদক্ষেপ নিয়েছেন। শহরের যানজট কমাতে জাইকার অর্থায়নে আউটার রিং রোডের কাজ শুরু হয়েছে। জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষের অধীনে প্রতিটি উপজেলায় পৃথক পৃথক আবাসিক এলাকা গড়ে তোলা হবে বলেও জানান তিনি।
চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে আয়োজিত সভায় আরও বক্তব্য রাখেন জাসদের কার্যকরী সভাপতি মঈন উদ্দিন খান বাদল, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিন, দক্ষিণ জেলা সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমদ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি বেনু কুমার দে, জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক আবদুর রশিদ।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: