‘চট্টগ্রাম টেস্ট জয়টা ২০১৩ সালের অ্যাশেজ জেতার সমান’ | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ ◈ অনুকূল পরিবেশ হলে এইচএসসি পরীক্ষা ◈ কুমিল্লায় বিপুল ইয়াবাসহ দম্পতি আটক!
প্রচ্ছদ / খেলাধুলা / বিস্তারিত

‘চট্টগ্রাম টেস্ট জয়টা ২০১৩ সালের অ্যাশেজ জেতার সমান’

27 October 2016, 7:04:31

স্পোর্টস ডেস্ক :বাংলাদেশ-ইংল্যান্ডের মধ্যে প্রথম টেস্টের প্রথম দিন থেকে পঞ্চম দিন পর্যন্ত টানা উত্তেজনা ছিলো। শেষ দিনে বাংলাদেশের জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিলো ৩৩ রান অন্যদিকে ইংল্যান্ডের প্রয়োজন ছিলো ২ উইকেট। তবে শেষ মুহুর্তের বাজিতে জিতেছে টেস্ট ক্রিকেটের অভিজ্ঞ দল ইংল্যান্ড। আর এই জয়কে অ্যাশেজের জয়ের সাথে তুলনা করেছেন ইংল্যান্ডের উইকেট রক্ষক ব্যাটসম্যান জনি বেয়ারস্টো।

ইংলিশ জনপ্রিয় দৈনিক ‘ডেইলি মেইল’ এর  এক কলামে বাংলাদেশ-ইংল্যান্ড চট্টগ্রাম টেস্ট নিয়ে কথা বলেন জনি বেয়ারস্টো। ২০১৩ সালে অ্যাশেজে ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া বিখ্যাত দ্বৈরথে শেষ পর্যন্ত ১৪ রানে জয় পায় ইংল্যান্ড। চট্টগ্রামে বাংলাদেশের বিপক্ষে ২২ রানের জয়কে অ্যাশেজের সেই জয়ের সাথে তুলনা করে জনি বলেন, চট্টগ্রামের এই জয়টা আমাদের কাছে অনেক বড় পাওয়া। আমার কাছে এই জয় ২০১৩ সালের অ্যাশেজের ট্রেন্ট ব্রিজ টেস্টের জয়ের সমান, যেখানে অস্ট্রেলিয়ার অ্যাস্টন অ্যাগার ১১ নম্বরে নেমে ৯৮ রানের ইনিংস খেলেছিল। যদিও শেষ পর্যন্ত ম্যাচটা আমরা জিতে নিয়েছিলাম ১৪ রানে।”

চট্টগ্রাম টেস্টের দুই ইনিংসেই ভালো সূচনা পায় নি ইংল্যান্ড। তবে জনি বেয়ারস্টো দুই ইনিংসে ব্যাট হাতে ভালো অবদান রেখেছিলেন। আর শুরুতে উইকেট পরে গিয়েও ফিরে আসাকে অনেক ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন এই উইকেট রক্ষক। তিনি বলেন, “বাংলাদেশের বিপক্ষে লড়াইটা ছিল অসাধারণ, যা এমনকি আমরা দুই ইনিংসের শুরুতে তিন উইকেট হারিয়ে ফেরার পরও। এই জয়ের মাধ্যমে প্রমাণ করেছি, আমরা যে কোনও পরিস্থিতিতে মোকাবিলা করার ক্ষমতা রাখি।”

অন্যদিকে বাংলাদেশ-ইংল্যান্ড এই সিরিজ নিয়ে নানা সংশয় দেখা দিলেও এখন পর্যন্ত নিরাপদেই হয়েছে সবকিছু। বাংলাদেশের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে জনি বলেন, “এখন পর্যন্ত সফরটা দারুণ। চট্টগ্রামে আমাদের হোটেলটা ছিল অসাধারণ, আর নিরাপত্তা ব্যবস্থা দুর্দান্ত। এই বিষয়গুলো আমাদের সব কিছু থেকে দূরে রাখতে সাহায্য করেছে এবং শুধু খেলার ওপর আমাদের সম্পূর্ন মনোযোগ রাখার পথে রাখছে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা।”

উল্লেখ্য, আগামীকাল (শুক্রবার) থেকে শুরু হবে বাংলাদেশ-ইংল্যান্ড দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: