চন্ডিকা হাথুরুসিংহের উপর বিস্তর অভিযোগ এনেছেন মাশরাফি মুর্তজা! | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বিশ্ব পর্যটন দিবস ও আমাদের সম্ভাবনা ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ
প্রচ্ছদ / খেলাধুলা / বিস্তারিত

চন্ডিকা হাথুরুসিংহের উপর বিস্তর অভিযোগ এনেছেন মাশরাফি মুর্তজা!

10 April 2017, 9:52:26

স্পোর্টস ডেস্ক : শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ চলাকালীন ক্রিকেটের এই ছোট ফরম্যাট থেকে অবসরের ঘোষণা দেন মাশরাফি মুর্তজা। সংবাদমাধ্যম কালেরকণ্ঠের মতে দলের প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহের উপর বিস্তর অভিযোগ এনেছেন মাশরাফি মুর্তজা।

কালের কণ্ঠের খবর হতে জানা যায় টি-টোয়েন্টি সিরিজের পূর্বে দলের কিছু সিনিয়র ক্রিকেটারদের সঙ্গে আলোচনায় বসেছিলেন বোর্ড প্রধান নাজমুল হাসান পাপন। এর পরেই টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা আসে মাশরাফির কাছ থেকে। তার আগের সভায় কোচের উপর অভিযোগ তুলেছিলেন মাশরাফি মুর্তজা।

প্রধান কোচের উপর অভিযোগ আনার পূর্বে মাশরাফি বলেন, “কোচ যদি সমুদ্রের এপারে হয় তো আমরা ক্রিকেটাররা ওই পারে।”  সেই সভায় অবস্থানরত দলের বাকি সিনিয়র ক্রিকেটার মুশফিক, সাকিবও প্রায় সহমত ছিলেন মাশরাফির ঐই বক্তব্যের সঙ্গে।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে নিজেদের শততম টেস্ট দলে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে রেখেও ম্যাচের আগে তাকে একাদশে খেলাতে নারাজ ছিলেন কোচ চন্ডিকা হাতুরুসিংহে। তবে শেষ পর্যন্ত জয়ী হয় কোচই। হাথুরুসিংহের চাওয়াতেই নিজেদের শততম টেস্টের একাদশে রাখা হয়নি রিয়াদকে। সেদিনের সভায় মুমিনুলের প্রসঙ্গেও কথা বলেন মাশরাফি।

“মমিনুলকে বলা হলো অফস্পিন খেলতে পারছে না। সেটা ঠিক না করে ওকে পাঠিয়ে দেওয়া হলো। অথচ আমাদের উচিত ছিল ওর সমস্যাগুলো শুধরে দেওয়া। তাতে মমিনুল হতো আমাদের চেতেশ্বর পূজারা।”

প্রধান কোচ হাথুরুসিংহের উপর মাশরাফি আরো অভিযোগ এনেছেন ওয়েলিংটনে নিউজিল্যান্ড-বাংলাদেশ মধ্যকার প্রথম টেস্ট নিয়ে। সেই টেস্টের প্রথম ইনিংসে দল ৫৯৫ রান করার পরও ইনিংস ঘোষণা করতে চাননি দলপতি মুশফিকুর রহিম। অনেকটা কোচের জোরাজোরিতেই ইনিংস ঘোষণা করতে বাধ্য হন মুশফিক।

প্রথম ইনিংসে ৫৯৫ রান করার পরেও মুশফিক ইনিংস ঘোষণা না দেওয়ার যুক্তি দেখিয়েছিলেন, দ্বিতীয় ইনিংসে দ্রুত অল-আউট হয়ে যাওয়ার শঙ্কায়। কিন্তু কোচ মুশফিককে বলেন, ‘তুমি না দিলে আমিই ইনিংস ঘোষণা করে দিচ্ছি’। শেষ পর্যন্ত মুশফিকের শঙ্কাই যেন সত্যি হয়ে উঠলো।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: