ঝিনাইদহে “অপারেশন দক্ষিনের থাবা” সম্পন্ন! | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ ◈ অনুকূল পরিবেশ হলে এইচএসসি পরীক্ষা ◈ কুমিল্লায় বিপুল ইয়াবাসহ দম্পতি আটক!

ঝিনাইদহে “অপারেশন দক্ষিনের থাবা” সম্পন্ন!

23 April 2017, 9:20:58

সাবিবর হোসেন,ঝিনাইদহ  অফিস:
ঝিনাইদহ সদর উপজেলার পোড়াহাটী গ্রামের জঙ্গী আস্তানায় অপারেশ দক্ষিনের থাবা (সাউথ প) সম্পন্ন হয়েছে। তবে এখানে কোন জঙ্গী পাওয়া যায় নি। উদ্ধার হয়েছে বিপুল পরিমান বিস্ফোরক ও রাসায়নিক দ্রব্য। শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে শনিবার বিকাল পর্যন্ত সতর্কতার সাথে আইনশৃংখলা রক্ষা বাহিনীর সদস্যরা ওই বাড়িতে অপারেশন পরিচালনা করেন। মুল অপারেশ শুরু করে শনিবার সাকাল ৯টার দিকে। চলে দুপুর ২টা পর্যন্ত। অপারেশন শেষে খুলনা রেঞ্জের ডিআইজি মোঃ দিদার আহম্মেদ এক সাংবাদিক সম্মেলনে জানান, বিভাগীয় পর্যায়ের ৩/৪ জন জঙ্গী এই বাড়িতে আসা যাওয়া করতো। বাড়িটি জঙ্গীদের বোমা তৈরীর কারখানা হিসেবে ব্যবহৃত হতো। প্রেস বিফ্রিংকালে তিনি বলেন জঙ্গি আব্দুল্লাহ’র বাড়িটি নিউ জেএমবি’র সদস্যরা বোমা তৈরীর কারখানা হিসাবে ব্যবহার করতো। এ আস্তানায় দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে উচ্চ পর্যায়ের জঙ্গিরা আসা যাওয়া করতো। কারা এ বাড়িতে আসতো তাদের নাম ঠিকানা জানা গেলেও তদন্তের স্বার্থে বলা যাবে না বলে ডিআইজি জানান। এই জঙ্গী আস্তানা থেকে ২০টি রাসায়নিক কনটেইনার, সুইসাইডাল বেল্ট ৯টি, একটি প্রেসার কুকার বোম, ৩টি সুইসাইডাল ভেষ্ট, ৮/১০টি মাইন সাদৃশ্য বস্তু, প্রচুর পরিমানে ইলেক্ট্রিক সার্কিট, একশ প্যাকেট লোহার ছোট বল, ১৫টি জেহাদী বই, ৭ রাউন্ড গুলিসহ একটি পিস্তল ও একটি চাপাতি উদ্ধার করা হয়। বোমা নিস্ক্রিয় করার সময় বোমার আঘাতে জঙ্গি আস্তানাটির ঘরের চালা উড়ে যায় ও দেয়াল ভেঙ্গে পড়ে। অভিযানে ঢাকা থেকে আসা কাউন্টার টেরিরিজম ইউনিটের ৭জন বোমা নিস্ক্রিয়কারী সহ ৩০জন সদস্য, খুলনা রেঞ্জ পুলিশ, ঝিনাইদহ পুলিশ, এলআইসি টিম ও পিবিআই টিম সহ ৪’শ সদস্য এ অভিযানে অংশ নেন। অভিযানকালে খুলনা রেঞ্জের ডিআইজি দিদার আহমেদের নেতৃত্বে পরিচালিত এ অভিযানে টেরিরিজম ইউনিটের এডিসি নাজমুল, বোমা ডিসপোজালের এডিসি রহমত, ঝিনাইদহ পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান, ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসক মাহবুব আলম তালুকদার খুলনা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি হাবিবুর রহমান। উল্লেখ্য, ঝিনাইদহ সদরের পোড়াহাটি গ্রামে নওমুসলিম আব্দুল্লাহ’র বাড়িটি জঙ্গি আস্তানা হিসাবে শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে কাউন্টার টেরিরিজম ইউনিট সদস্যরা ঘিরে ফেলে। রাত ১০টার দিকে ডিআইজি দিদার আহমেদ অভিযানের বিরতি দেন। শনিবার সকাল সোয়া ৯টা থেকে আবার অভিযান চালানো হয়। অভিযানকালে জঙ্গি আস্তানাটির ৫শ গজের মধ্যে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়। বর্তমানে ওই জঙ্গি আস্তানাটিতে পুলিশ অবস্থান করছে।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: