ঢাকাস্থ তেরখাদার দু’টি সংগঠনের মনোস্তাতিক দ্বন্দ্বের প্রভাব এলাকায় | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বিশ্ব পর্যটন দিবস ও আমাদের সম্ভাবনা ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ
প্রচ্ছদ / সারাদেশ / বিস্তারিত

ঢাকাস্থ তেরখাদার দু’টি সংগঠনের মনোস্তাতিক দ্বন্দ্বের প্রভাব এলাকায়

19 February 2019, 6:26:30

রাসেল আহমেদ, বিশেষ প্রতিবেদক:

ঢাকাস্থ তেরখাদা উপজেলার দু’টি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের মনোস্তাতিক দ্বন্দ্বের নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে এলাকায়ও। ঢাকাস্থ তেরখাদা থানা এসোসিয়েশনের পর সম্প্রতি ঢাকাস্থ তেরখাদা কল্যাণ সমিতি নামে একটি সংগঠন প্রতিষ্ঠা করা হয়। এরপরেই ঢাকার ওই দু’টি সংগঠনের শীর্ষ নেতারা ও তাদের অনুসারীরা ঢাকায় বসবাসরত তেরখাদা উপজেলার জনপ্রতিনিধি, রাজনীতিক, প্রবাসী, ব্যবসায়ী ও মান্যগণ্য ব্যক্তিদের নিজেদের সংগঠনে ভেড়াতে তৎপর। মাঝে-মধ্যে একে অন্যের বিরুদ্ধে অপপ্রচারকে কেন্দ্র করে বাঁধছে বিতান্ডা। এতে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সেবামুলক কর্মকান্ড এবং উন্নয়ন বঞ্চিত এলাকার চিত্র জাতীয়পর্যায়ে তুলে ধরা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে তেরখাদাবাসী। অবিলম্বে ঢাকাস্থ দু’টি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের ঐক্য প্রত্যাশা করছে এলাকাবাসী।
তাদের মতে, উন্নয়ন বঞ্চিত এলাকার চিত্র জাতীয় প্রেসকাবের সামনে মানববন্ধন, সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে তুলে ধরবে ঢাকাস্থ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ; এমনটিই আশা করেছিলেন তারা। এলাকার মানুষের বিপদ-আপদে তারা এগিয়ে আসবে। এলাকার নাগরিক সমস্যা-সংকট সমাধান ও জনদুর্ভোগ লাঘবে কার্যকর ভূমিকা রাখতে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন দু’টি মন্তব্য করলেন এলাকা সচেতনমহল। বাস্তবে হচ্ছে বিপরীত। পরস্পর অনৈক্য, একে অন্যের সাথে প্রতিযোগিতা, দলে ভেড়ানোর উদ্দেশ্যে বাকযুদ্ধ চলছে অবিরত। যেকোন সময়ে দু’গ্রুপের মধ্যে বাঁধতে পারে সংঘর্ষও। এ প্রসঙ্গে ঢাকাস্থ তেরখাদা থানা এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি এস এম শওকাত আলী বলেন, তেরখাদা থানা এসোসিয়েশন ঢাকা রেজিঃ নং ০৮৬০১ এর গোড়াপত্তন হয় ১৯৯০ সালে যার মুলে ছিলেন মরহুম আলহাজ্জ্ব জয়নাল আবেদীন সহ তেরখাদার অনেক গুনি মানুষ, এই স্বল্পপরিসরে সকলের নাম আলোচনায় আনা সম্ভব হলো না বলে আমি মা চেয়ে নিলাম। সংগঠন টি সেই থেকে ঢাকাস্থ তেরখাদার মানুষের জন্য অনেক অবদান রেখেছে শিায়, চিকিৎসায়, পুনর্বাসনে,এবং যে কোনো বিপদে আপদে ঝাঁপিয়ে পড়েছে ঢাকাস্থ তেরখাদার মানুষের জন্য। বর্তমানে সংগঠনটি আগের চেয়ে অনেক শক্তিশালী ঢাকায় বসবাসকারী দের জন্য এটি একটি মহৎ কল্যানকর সংগঠন হিসাবে প্রতিয়মান হয়েছে। আমরা পিছিয়ে পড়া তেরখাদা জনপদের জন্য যেকোন রকমের উন্নয়ন মুলক কাজে যে কেউ আমাদের কাছে এসেছে তাকে সহযোগিতা করার চেষ্টা করেছি এবং অব্যাহত রাখবো। সরকারি নর্থ খুলনা কলেজ, সরকারি ইখড়ি কাটেংগা হাইস্কুল সরকারি করনে আমরা সর্বোচ্চ সহযোগিতা করেছি। আগামী দিনে তেরখাদার যে কোন উন্নয়নমুলক কাজে আমরা অগ্রনী ভুমিকা রাখবো এটা আমাদের অংঙ্গীকার। ঢাকায় আমরা যারা বসবাস করি সবাই কে আহবান করবো তেরখাদার উন্নতির জন্য সব কিছুর উর্দ্ধে থেকে আমাদের কাজ করতে হবে তাহলেই হবে আমাদের পুর্বসুরিদের প্রতিষ্ঠিত এই ঐতিহ্যবাহী তেরখাদা থানা এসোসিয়েশন ঢাকার প্রকৃত সার্থক জন্ম। আসুন সবাই মিলে মানুষের ও দেশের কাজ করি কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে। তেরখাদা থানা কল্যাণ সমিতির বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বিষয়টি এড়িয়ে যান। এ প্রসঙ্গে তেরখাদা কল্যাণ সমিতির সভাপতি মোল্লা লিয়াকত আলীর ব্যবহৃত মোবাইলে যোগাযোগের চেষ্টা করে তাকে পাওয়া যায়নি। তাই তার বক্তব্য দেওয়া সম্ভব হলো না।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য:

x