ঢাকা-চট্টগ্রাম উড়াল সড়ক হবে: লোটাস কামাল | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ ◈ অনুকূল পরিবেশ হলে এইচএসসি পরীক্ষা

ঢাকা-চট্টগ্রাম উড়াল সড়ক হবে: লোটাস কামাল

15 June 2014, 5:06:59

Lotas kamal.6

 

 

 

 

 

এ দুটি প্রকল্পের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ে সমীক্ষা চালানোর বিষয়ে প্রাথমিক আলোচনা হয়েছে বলে জানান তিনি।

রোববার শেরেবাংলা নগরে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের (এনইসি) সম্মেলন কক্ষে পরিকল্পনা কমিশন আয়োজিত ‘মিট দ্য প্রেস’ অনুষ্ঠানে এ তথ্য জানান মন্ত্রী।

নতুন দুটি প্রকল্প প্রণয়নে ক্রয় সংকান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভায় আলোচনার বিষয়টি তুলে ধরেন লোটাস কামাল।

তিনি বলেন, “একটা সুখবর রয়েছে। দেশের অর্থনীতিতে ও আমাদের জাতীয় জীবনে ওতপ্রোতভাবে জড়িত দুটি প্রকল্প সম্পর্কে প্রকিউরমেন্ট কমিটিতে ধারণা দেয়া হয়েছে। এ প্রকল্প দুটি প্রাকসম্ভাব্যতা যাচাইয়ের [ফিজিবিলিটি স্টাডি] পর্যায়ে রয়েছে।”

দুটি প্রকল্প নিয়ে প্রাথমিক ধারণা দিলেও পরবর্তীতে প্রধানমন্ত্রী এ নিয়ে বিস্তারিত জানাবেন বলে উল্লেখ করেন তিনি।

সভার বিষয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, “সভায় আমরা দুটি সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সিদ্ধান্ত নিয়েছি মানে আমাদের কমিটি, অ্যাপ্রোবাল কমিটির সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত না। বলতে পারেন- ধারণা নেয়া হয়েছে দুটি প্রকল্প নিয়ে।

“একটি হচ্ছে, চলমান ঢাকা-চট্টগ্রাম ফোর লেনকে কার্যত আরো শক্তিশালী ব্যবহারের জন্য একটা ফিজিবিলিটি স্টাডিজের জন্য দিয়েছি, কী ধরনের প্রকল্প আমরা সেখানে নেব সেটা এখানে বলব না। কিন্তু সেখানে একই রাস্তার উপরে আরেকটি রাস্তা হবে।

এ প্রকল্পটি সরকারি বেসরকারি অংশীদারিত্বের [পিপিপি] মাধ্যমে হবে বলে জানান লোটাস কামাল।

তিনি বলেন, ঢাকা মহানগরে সাবওয়ে বা পাতাল রেল করার বিষয়ে সভায় আলোচনা হয়েছে।

“উই আর থিংকিং ভেরি সিরিয়াসলি, স্টাডি করার জন্যে আজ আমরা বলেছি।”

এটা করা গেলে জনদুর্ভোগ লাঘব হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, সমীক্ষা যাচাইয়ের পরে অর্থায়নের বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে আলোচনা করা হবে।

“ইতোমধ্যে এডিবি, জাইকা আগ্রহ প্রকাশ করেছে; জাপান ও চীনের বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ও সরকার বলেছে-ভালো প্রকল্প পেলে তারা অর্থায়ন করবে। যারা দেখা করে গেছেন তারা আগ্রহ দেখিয়েছেন।”

 

 

মন্ত্রী জানান, বর্তমানে নতুন কিছু প্রকল্পসহ এক হাজার ৫০০ প্রকল্প বাস্তবায়নাধীন রয়েছে।

 

২০১৩-২০১৪ অর্থবছরে একনেক ২০৩টি প্রকল্প অনুমোদন করেছে। এতে এক লাখ ১৯ হাজার ৫২৯ কোটি টাকা প্রাক্কলিত ব্যয় ধরা হয়েছে। সংশোধিত বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচিতে [এডিপি] ব্যয় বরাদ্দ হয়েছে ৬০ হাজার কোটি টাকা। এরমধ্যে ৬৭ শতাংশ ব্যয় হয়েছে।

“আমরা অত্যন্ত আশাবাদী জুন নাগাদ প্রাক্কলিত ব্যয় বরাদ্দের সিংহভাগই ব্যবহার করতে পারব,” বলেন তিনি।

পূর্বমুখী নীতি

এক প্রশ্নের জবাবে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, সরকারের লুক ইস্ট পলিসি আরো আগেই শুরু করা উচিত ছিল।

“আমি বিশ্বাস করি, লুক ইস্ট পলিসি অনেক আগেই শুরু করা দরকার ছিল। তবে এ বিষয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও প্রধানমন্ত্রী কী ভাবছেন তা আমার জানা নেই।”

সম্প্রতি চীন ও জাপান সফর করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সফরে বাংলাদেশের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে আগামী চার/পাঁচ বছরে আরো প্রায় ছয়শ’ কোটি ডলার দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে জাপান। অন্যদিকে চীন সফরে কর্ণফুলী নদীতে টানেল নির্মাণসহ কয়েকটি বিষয়ে চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হয়।

এশিয়ার এ দেশ দুটির সঙ্গে সম্পর্ক আরো উন্নত হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

বছরে ১৯ লাখ কর্মসংস্থান

আগামী অর্থবছরে প্রায় ১৯ লাখ মানুষের কর্মসংস্থান হবে বলে পরিকল্পনা কমিশনের সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের (জিইডি) সদস্য শামসুল আলম জানিয়েছেন।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ১ শতাংশ জিডিপি বৃদ্ধি মানে আড়াই লাখ লোকের কর্মসংস্থান নিশ্চিত হওয়া।

“সে হিসাবে ৭ শতাংশ জিডিপি ও বছরে আরো আড়াই লাখ লোককে বিদেশে পাঠানোসহ প্রায় ১৯ লাখ লোকের কর্মসংস্থান হবে নতুন অর্থবছরে।”

ইতোমধ্যে ৫ বছরে প্রায় কোটি মানুষের কর্মসংস্থান হয়েছে বলে জানান তিনি

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: