শিরোনাম
◈ ক্ষমতার পতন ও অপেক্ষার মিষ্টি ফল-মহসীন ভূঁইয়া ◈ নাঙ্গলকোটে দুই গ্রামের মানুষের চলাচলের প্রধান রাস্তাকে খাল বানিয়ে নিরুদ্দেশ ঠিকাদার! ◈ নাঙ্গলকোটের তিনটি প্রতিষ্ঠান পরিদর্শনে শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের টিম ◈ নাঙ্গলকোটে শত বছরের পানি চলাচলের ড্রেন বন্ধ ,বাড়িঘর ভেঙ্গে ২’শ গাছ নষ্টের আশংকা ◈ পদ্মা সেতুর রেল সংযোগে খরচ বাড়লো ৪ হাজার কোটি টাকা ◈ অরুণাচল সীমান্তে বিশাল স্বর্ণখনির সন্ধান! চীন-ভারত সংঘাতের আশঙ্কা ◈ কুমিল্লার বিশ্বরোডে হচ্ছে দৃষ্টিনন্দন ইউলুপ- লোটাস কামাল ◈ দুই মামলায়খালেদার জামিন আবেদনের শুনানি আজ ◈ মাদকবিরোধী অভিযানএক রাতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১১ ◈ নাঙ্গলকোটে চলবে ৩ দিন ব্যাপী মাটি পরীক্ষা

তেরখাদা উপজেলা সদরের ৩ বাজারের ফুটপাথ অবৈধ দখলে

১৩ মে ২০১৮, ১০:৫২:৫২

রাসেল আহমেদ, বিশেষ প্রতিবেদক ঃ
অবৈধ দখলে তেরখাদা উপজেলা সদরের কাটেংগা বাজার, জয়সেনা বাজার ও তেরখাদা বাজারের অধিকাংশ ফুটপাত, ভোগান্তি বেড়েছে সাধারন চলাচলকারী লোকজনের। সড়কে চলবে গাড়ি আর ফুটপাত দিয়ে চলবে পথচারি, এটাইতো হওয়ার কথা। এ কথাটা উল্টো হয়ে দেখা দিয়েছে তেরখাদা উপজেলা সদরে, যে যার ইচ্ছামত ব্যবহার ও দখল করে নিচ্ছে রাস্তার দুধারের ফুটপাত। সরেজমিনে দেখা যায়, উপজেলা সদরের কাটেংগা বাজার, জয়সেনা বাজার ও তেরখাদা বাজারের মূল সড়ক সহ বিভিন্ন ধরনের দোকানপাট, রাস্তার ফুটপাত দখল হয়ে গেছে। উপজেলা সদরের কাটেংগা বাজারের তেরখাদা টু খুলনা সড়কের দুপাশে প্রতিদিন বিভিন্ন প্রকার ভ্রাম্যমান দোকান বসছে। কাটেংগা থেকে গাজিরহাট সড়কের দু’পাশে ইজিবাইক ও ভ্যান রেখে ফুটপাত দখল করে রেখেছে। বাসস্ট্যান্ড এলাকার রাস্তায় ফুটপাত দখল করে রেখেছে টেম্পু, ইজিবাইক, লেগুনা ও ভ্যান। জয়সেনা বাজারের রাস্তার দুপাশে দখল করে রেখেছে ভ্যান ইজিবাইক, তেরখাদা বাজারের প্রধান সড়কের ফুটপাত দখল করেছে ব্যবসায়ী, ভ্যান, ইজিবাইক ও বিভিন্ন প্রকার দোকানদাররা। ফুটপাত দখল হওয়ার কারনে মূল সড়কদিয়ে চলে গাড়ি এবং মানুষ। এমন অবস্থায় রাস্তায় প্রতিনিয়ত ঘটছে দুর্ঘটনা। নাম প্রকাশ না করা শর্তে একজন পথচারি জানান, যৌথ বাহিনীর সময় এসব অবৈধ দখল ভেঙ্গে দেওয়া হয়েছিল। তখন মানুষ রাস্তাঘাটে নির্বিঘেœ চলাফেরা করতে পারত। এখন আবার পূর্বের মত হয়ে গেছে। সচেতন নাগরিকদের দাবি ফুটপাত মুক্ত করে তেরখাদা উপজেলা সদরের রাস্তা মানুষের চলাচলের উপযোগী করা হোক। এ প্রসঙ্গে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ লিটন আলী বলেন, আগামী মাসের আইন শৃঙ্খলা মিটিংএ বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে জানান।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: