দুর্নীতিগ্রস্ত বাংলাদেশে সবই সম্ভব! প্রবাসীদের কান্না! | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ ◈ অনুকূল পরিবেশ হলে এইচএসসি পরীক্ষা ◈ কুমিল্লায় বিপুল ইয়াবাসহ দম্পতি আটক!

দুর্নীতিগ্রস্ত বাংলাদেশে সবই সম্ভব! প্রবাসীদের কান্না!

30 May 2017, 9:34:06

 

Sumon Santo ভাইয়ের স্ট্যাটাস ।

দুর্নীতিগ্রস্ত এই বাংলাদেশে সবই সম্ভব!! মাত্র ৩ হাজার টাকার একটি হোম থিয়েটার এর কাস্টম চার্জ নাকি বাংলা ৮ হাজার টাকা!! তাও আবার সরকারের নাম বিক্রি করে দিয়ে!! আমি একজন আওয়ামী লীগের ক্ষুদ্র কর্মী হিসেবে সরকারের কাছে সহযোগীতা চাই!! এবং দুর্নীতিবাজ, অশিক্ষিত, অযোগ্য চোর পুলিশের বিচার চাই!! আমার মত হয়রানির শিকার যাতে আর কোন প্রবাসী ভাই না হয় সেজন্য সরকারের সুদৃষ্টি আকর্ষণ করছি। আওয়ামী লীগের একজন কর্মী হিসেবে আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি শ্রদ্ধা, ভালবাসা এবং বিশ্বাস রেখে বলছি মাননীয় নেত্রী আপনি একা কি করবেন? সব জায়গায় আপনার নাম, আওয়ামী লীগের নাম, সরকারের নাম বিক্রি করে চলছে দুর্নীতি। দীর্ঘদিন প্রবাসে থাকার পর গতকাল স্বল্প সময়ের ছটি নিয়ে প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশে আসি। বাংলাদেশে আসার আগে ছোট ভাইকে জিজ্ঞেস করলাম ভাই তোকে কোনদিন কিছু দিতে পারিনি, আমি দেশে আসব তোর জন্য কি নিয়ে আসতাম? জবাবে ছোট ভাই বলে, “না আমার কিছুই লাগবে না। তারপর আমি ছোট ভাইকে ফের জিজ্ঞেস করি, লাগবে না মানে? কি লাগবে সেটা বল। তোর জন্য মোবাইল কিনবো নাকি ঘড়ি কিনবো? জবাবে ছোট ভাই বলেন, আমার একটা গান শোনার স্পিকার লাগবে। বাংলাদেশের গুলো চায়না কোম্পানি, আপনি আসার সময় ওখান থেকে ভালো দেখে একটা কিনে আনবেন। ছোট ভাইয়ের জন্য বাহরাইনের ১৫ দিনার ৯টাকা দিয়ে একটা হোম থিয়েটার কিনলাম। যার মূল্য বাংলাদেশি টাকার সমান ৩ হাজার ২০০ টাকা!!! যাহোক, সখ করে ছোট ভাইয়ের জন্য বিদেশ থেকে ৩হাজার টাকা দামের একটি জিনিস কিনে বাংলাদেশ আনলাম। আর এই ৩ হাজার টাকা দামের জিনিসের কাস্টম চার্জ নাকি বাংলাদেশের দুর্নীতিগ্রস্ত এয়ারপোর্টের চোরদের কাছে বাংলা ৮ হাজার টাকা! :'( ৮হাজার টাকা কাস্টম না দিলে ওটা রেখে দিবে। আমি বললাম স্যার, দীর্ঘদিন পর বিদেশ থেকে দেশে আসলাম। আমার ছোট ভাই সখ করেছিলো তাই তার জন্য এটা কিনে আনলাম। এখন আমি কি ৩ হাজার টাকার জিনিসের জন্য ৮ হাজার টাকা কাস্টম দিব? এটার ওজন মাত্র ৭কেজি। আমার দরকার নেই, আমি ৮ হাজার টাকা কাস্টম দিয়ে ৩হাজার টাকার পণ্য নিব না। তারপর সুর নরম করে বলে, আচ্ছা টাকা তো আর আমরা নিই না, টাকা নেয় সরকার!!! ব্যাংকিং এর মাধ্যমে। অনেকক্ষণ তর্কবিতর্ক করার পর, ৮ হাজার টাকা থেকে ৪ হাজার টাকায় নেমে গেল। এখন প্রশ্ন হলো, ৮ হাজার টাকা থেকে ৪ হাজার টাকা কিভাবে হল? আমি বলেছি এটা অন্যায় করা হয়েছে, আপনারা ৩হাজার টাকার একটি পণ্যের কাস্টম চাইলেন আমার কাছে ৮হাজার টাকা। একা কেন? তখন সবগুলা দালাল এসে আমাকে বললো, আমি বেশি কথা বলি। এটা সরকার খায়, সরকার তাঁদের দায়িত্ব দিয়েছে তাই, তারা মানুষকে হয়রানি করে। বিশ্বের কোথাও এমন দুর্নীতিবাজ পুলিশ কি আর আছে??? পুলিশ জনগণের বন্ধু! একজন মহিলা কাস্টম অফিসারের হাতের লেখা দেখে মনে হলো তিনি মাত্র ক্লাস ফাইভ পাস করেছেন। তার হাতের লেখার চেয়ে আমার ৯বছর বয়সী ভাগিনার হাতের লেখা অনেক সুন্দর এবং গুছানো। আমাকে একটা রিসিড দিয়েছে যে, আগামী (২১) দিনের মধ্যে যদি, আমি আমার জিনিসপত্র ৮হাজার টাকা কর পরিশোধ করে না নিয়ে আসি, তবে তারা সেটা বিক্রি করে দিবেন অথবা বাসায় নিয়ে যাবেন। তাদের কথাবার্তার মাধ্যমে এটাই পরিষ্কার হল। আমি বলেছিলাম যে, ব্যাপারটা আমি পত্রপত্রিকায় জানান দিব। কিন্তু তারা আমার কথার কোন মূল্য দিলো না, উল্টো সাংবাদিক ভাইয়ের থ্রেড দিয়ে বলেছে তাদের কিছুই হবে না। পত্রপত্রিকায় লিখেও লাভ হবে না, কারন টাকা নেয় সরকার! আসলেই কি শেখ হাসিনার সরকার প্রবাসীদের সাথে এমনটি করতে পারেন? একজন আওয়ামী লীগ কর্মী হিসাবে অন্ততপক্ষে আমি কখনোই বিশ্বাস করি না। আমি আমার সখের জিনিস তাদেরকে দিয়ে চলে এসেছি। বলেছি এটা আপনারা রেখে দিন, আমার লাগবে না। রিসিড ছিড়ে ফেলে দিয়েছি। ২১ দিন পর নয়, ২১ বছরেও আমি আর আসব না। যাহোক, মনে অনেক দুঃখ, কষ্ট নিয়ে বাড়িতে এসে অশ্রুজলে ভাসছে আমার ছোট ভাইয়ের মন!

 

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: