দ্বি-স্তর ক্রিকেট নিয়ে পিছু হটল আইসিসি | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বিশ্ব পর্যটন দিবস ও আমাদের সম্ভাবনা ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ
প্রচ্ছদ / খেলাধুলা / বিস্তারিত

দ্বি-স্তর ক্রিকেট নিয়ে পিছু হটল আইসিসি

7 September 2016, 6:59:08

স্পোর্টস ডেস্ক : বিষয়টি নিয়ে অনেক তর্ক-বিতর্ক হয়েছে। দ্বি-স্তরবিশিষ্ট টেস্ট কাঠামোর পক্ষে বিপক্ষে অনেক যুক্তিও দিয়েছেন অনেকে। অধিকাংশ টেস্ট ক্রিকেটারই ছিলেন নতুন এই পদ্ধতির পক্ষে। অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকাসহ ছয়টি দেশও রাজি ছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত পিছু হটল আইসিসি। টেস্টে দুই স্তর সৃষ্টির সিদ্ধান্তটি ভবিষ্যতের জন্যই তুলে রাখল। দুবাইয়ে শীর্ষ কর্মকর্তাদের বৈঠকে দ্বি-স্তরের প্রস্তাবটি আলোচনাতেই তোলা হয়নি।
শীর্ষ সাত দল নিয়ে প্রথম স্তর এবং আয়ারল্যান্ড ও আফগানিস্তানকে নিয়ে পাঁচ দলের দ্বিতীয় স্তর সৃষ্টির কথা ভাবছিল আইসিসি। প্রথম থেকেই এ সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ছিল বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড। জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট বোর্ডও জানিয়েছিল তাদের আপত্তির কথা। আইসিসির ছয় পূর্ণ সদস্যই এ প্রস্তাবের পক্ষে থাকায়, টেস্ট ক্রিকেটের ভবিষ্যৎ বলেই ভাবা হচ্ছিল দ্বি-স্তর প্রস্তাবকে।
কিন্তু ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডও এ প্রস্তাবের বিরোধিতা করার পরই দান পাল্টে যায়। আইসিসির বৈঠকে এ প্রস্তাবটি তোলার কথা থাকলেও চার বোর্ডের অনিচ্ছাতে সেটি আর হয়নি। ফলে এই প্রস্তাব এই বৈঠকে যেহেতু পাস হওয়ার সম্ভাবনা নেই, দুই স্তরের ক্রিকেটও তাই আপাতত দেখা যাচ্ছে না।

২০১৯ সালের আগে আর টেস্ট ক্রিকেটে দ্বি-স্তর কাঠামো চালু হওয়ার কোনো সুযোগও থাকল না। এরপর আইসিসি প্রস্তাবটি তুললে এ নিয়ে আলোচনা হতে পারে।
এ ব্যাপারে বিসিসির প্রতিক্রিয়াটাও অনুমিত। প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, ‘আমরা খুশি। অন্য সদস্যদের বোঝাতে পেরেছি এটি বাংলাদেশের জন্য কতটা নেতিবাচক প্রভাব ফেলত। আমাদের অবস্থা বোঝার জন্য তাদের ধন্যবাদ।’ ক্রিকইনফো।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: