নাঙ্গলকোটে অবৈধ দখল উচ্ছেদ,আহত-১ | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ ◈ অনুকূল পরিবেশ হলে এইচএসসি পরীক্ষা

নাঙ্গলকোটে অবৈধ দখল উচ্ছেদ,আহত-১

16 June 2017, 5:19:11

মো.আব্দুর রহিম বাবলু,কুমিল্লা প্রতিনিধি:-

জেলার নাঙ্গলকোট বাজারের সোনালী ব্যাংকের পেছন দিকে সরকারী খাস ভূমি দখল করে অবৈধভাবে দোকান নির্মান করার সময় সেটি উচ্ছেদ করেছে উপজেলা প্রশাসন। এসময় দখলদারের হামলায় স্থানীয় হরিপুর গ্রামের আবুল কালাম নামের এক শ্রমিক আহত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে নাঙ্গলকোট বাজারে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্ততি নিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও দায়িত্বপ্রাপ্ত সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ সাঈদুল আরীফ।
নাঙ্গলকোট সদর তহসিল অফিস ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে নাঙ্গলকোট বাজারের সোনালী ব্যাংকের পেছনে সরকারী খাস জমিতে একটি টিনের ঘর তৈরী করে এর ভিতরে অবৈধভাবে পাকা দোকান ঘর নির্মাণ করছিলেন পৌর এলাকার গোত্রশাল গ্রামের আবদুর রহীমের ছেলে মো. শাহজালাল। এসময় খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ সাঈদুল আরীফের নির্দেশনা অনুযায়ী সদর তহসিল অফিসের ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা মো. মোজাম্মেল হোসেন ও অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ কয়েকজন শ্রমিক নিয়ে সেটি দ্রুত উচ্ছেদ করতে যায়। ওই অবৈধ দখল উচ্ছেদকালে দখলদার মো. শাহজালাল ও তার ছেলে সোহেল মিলে উচ্ছেদকারী শ্রমিক আবুল কালামের উপর আকস্মিক হামলা চালিয়ে তাঁকে রক্তাক্ত আহত করে পালিয়ে যায়। পরে তাঁকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়ীতে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে।
এ বিষয়ে নাঙ্গলকোট সদর তহসিল অফিসের ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা মো. মোজাম্মেল হোসেন বলেন, সরকারী খাস জমিতে অবৈধভাবে দোকান ঘর নির্মাণের খবর পেয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ সাঈদুল আরীফ মহোদয়ের নির্দেশে দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে নির্মানাধীন ওই ঘর উচ্ছেদ ও অন্যান্য মালামাল অপসারন করা হয়েছে।

জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও দায়িত্বপ্রাপ্ত সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ সাঈদুল আরীফ বলেন, অবৈধভাবে সরকারী জায়গা দখলের খবর পেয়ে সেটি দ্রুত উচ্ছেদ করা হয়েছে। এ ঘটনায় অবৈধ দখল ও শ্রমিকের উপর হামলার জন্য মামলা দায়ের করা হবে।
এ ব্যাপারে নাঙ্গলকোট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আইয়ূব বলেন, সরকারী সম্পত্তি অবৈধ দখলের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। তবে অবৈধ দখলদার বা হামলাকরীরা পালিয়ে যাওয়ার কারনে কাউকে গ্রেফতার বা আটক করা সম্ভব হয়নি।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: