নাঙ্গলকোটে ৬ মাস পর কবর থেকে লাশ উত্তোলন | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বিশ্ব পর্যটন দিবস ও আমাদের সম্ভাবনা ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ
প্রচ্ছদ / নাঙ্গলকোট / বিস্তারিত

নাঙ্গলকোটে ৬ মাস পর কবর থেকে লাশ উত্তোলন

7 October 2016, 7:56:00

নিজস্ব প্রতিবেদক ●

নাঙ্গলকোট উপজেলার আদ্রা ইউনিয়নের কাকৈরতলা গ্রামে ৬ মাস পর কবর থেকে রুহুল আমিন নামে এক ব্যক্তির লাশ উত্তোলন করা হয়েছে। গত ৩১ মার্চ দিবাগত রাতে বিষপানে ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় ২৬ এপ্রিল ২০১৬ইং মৃত রুহুল আমিনের মেয়ে হাসিনা বেগম বাদী হয়ে কুমিল্লা অতিরিক্ত জেলা কোর্টে একটি মামলা দায়ের করেন।

আসামীরা হলেন, একই বাড়ীর আইয়ুব আলীর ছেলে বেলায়েত হোসেন, তার স্ত্রী হাজেরা বেগম, ছেলে জসিম উদ্দিন ও মৃত গোলাম মোস্তফার ছেলে আনোয়ার হোসেন।

আদালতের নির্দেশে বৃহস্পতিবার দুপুরে রুহুল আমিনের লাশ উত্তোলনের করেন জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সিনিয়র সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্টেট মোহা. আব্দুর রউফ তালুকদার। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মামলা তদন্ত কর্মকর্তা ইসমাইল হোসেনসহ স্থানীয় ব্যক্তিবর্গ। লাশ উত্তোলন শেষে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ মর্গে প্রেরণ করা হয়।

মামলার সূত্রে জানা যায়, গত ৩১ মার্চ সকাল ১০টার দিকে রুহুল আমিন বাড়ী সংলগ্ন নিজ জমিতে ধান কাটতে গেলে বিবাদীগণ বাধা প্রদান ও গালমন্দ করে। এ অপমানে ওইদিন দিবাগত রাতে সবাই ঘুমিয়ে গেলে বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন রুহুল আমিন। পরে তিনি হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন।

এ ঘটনায় মৃত রুহুল আমিনের ভাতিজা আসামী বেলায়েত হোসেন জানায়, চাচার সাথে আমাদের সু-সম্পর্ক ছিল। চাচার মৃত্যুতে আমরা কোনভাবেই দায়ী নয়। কিন্তু কু-চক্রিমহলের প্ররোচনায় চাচাতো বোন হাসিনা বেগম মামলা দিয়ে আমাদের ফাঁসানোর ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছেন। এ ঘটনায় ন্যায় বিচার চান বিবাদীগণ। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে নাকি বিষপানে মৃত্যু হয় রুহুল আমিনের, এ নিয়ে রয়েছে রহস্য।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, প্রথম দিকে স্বজনদের ভাষ্য ছিল হৃদক্রিয়া বন্ধ হয়ে মৃত্যু হয় রুহুল আমিনের। কিছুদিন না যেতেই এ মৃত্যুকে ঘিরে সৃষ্টি হয় প্রসহন! ঘটনাটি স্থানীয়ভাবে সমাধানের চেষ্টা করা হয়। কিন্তু উপজেলার দাউদপুর গ্রামের সাদেক আলী নামে এক ব্যক্তির কু-প্ররোচনার ফলে সেই চেষ্টা বারবার বাধাগ্রস্থ হয়ে আসছে। ওই গ্রামের সালিশদার জানান, স্থানীয়ভাবে আমরা ঘটনাটি সমাধানের চেষ্টা করেছিলাম কিন্তু মৃত রুহুল আমিনের মেয়েরা অপরাপর লোকজনের কু-পরামর্শে নেওয়ায় তা সম্ভব হয়নি।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: