সর্বশেষ সংবাদ
◈ মারছে মানুষে মানুষ!- মোঃ: জহিরুল ইসলাম ◈ নাঙ্গলকোট উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদকের নামে ভূয়া আইডি খুলে প্রতারনার ফাঁদ ◈ “কাজী জোড়পুকুরিয়া সমাজকল্যাণ পরিষদ” কমিটি গঠন ◈ ছাত্রদলের সভাপতি পদে জনপ্রিয়তার শীর্ষে বাগেরহাটের ছেলে হাফিজুর রহমান ◈ চৌদ্দগ্রাম থানার ওসির নির্দেশে কবরে রেখে যাওয়া বৃদ্ধ মহিলাকে হাসপাতালে ভর্তি করলো পুলিশ ◈ নাঙ্গলকোটে ইভটিজিংয়ে প্রতিবাদ করায় সন্ত্রাসী হামলা প্রতিবাদে মানববন্ধন ◈ আজ টাইগারদের দায়িত্ব বুঝে নেবেন ডোমিঙ্গো ◈ জাতীয় দিবসগুলো শিক্ষকদের ছুটি হিসেবে গণ্য করা হচ্ছে কেন? ◈ কুমিল্লা মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় বাড়ছে লাশের সারি; নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৮ জনে; পরিচয় মিলেছে সবার ! ◈ কুমিল্লার লালমাই উপজেলায় বাসের সঙ্গে সিএনজিচালিত অটোরিকশার সংঘর্ষে ৭ যাত্রী নিহত

নাঙ্গলকোট পৌরসভায় বিএনপি প্রার্থীর ভোট বর্জন

২০ মার্চ ২০১৬, ৮:১৬:৪৭

মো. আলাউদ্দিন মজুমদার:

কুমিল্লার নাঙ্গলকোট পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম মজুমদার নির্বাচন বর্জন করেছেন। রোববার সকাল সাড়ে ১১ টায় উপজেলা বিএনপি কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বিরোধী দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে ভোট কেন্দ্র দখল, কেন্দ্রে প্রবেশে প্রতিবদ্ধকতা, জাল ভোট, বহিরাগত ক্যাডার দ্বারা জাল ভোট দেয়ার অভিযোগ এনে নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দেন। সে সময় তিনি পুনরায় তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচনের দাবি জানান। Kumilla-2
সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম বলেন- ১১টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ৯টি কেন্দ্রে আমাদের কোন এজেন্টকে ঢুকতে দেয়া হয়নি। বাকি দুটি কেন্দ্রেও এজেন্টদেরকে হুমকি-ধমকি ও ভয়-ভীতি প্রদর্শন করে কেন্দ্র থেকে বের করে দেয়া হয়। বিভিন্ন কেন্দ্রে রাতের আঁধারে এবং সকাল বেলায় প্রকাশ্যে নৌকা মার্কায় সিল মেরে ব্যালট বাক্স ভরে রেখেছে। এছাড়া বহিরাগত লোকদেরকে লাইনে দাঁড় করিয়ে রেখে ভিতরে দলীয় ক্যাডাররা প্রিজাইডিং ও পোলিং এজেন্টদের থেকে ব্যালট পেপার ছিনিয়ে নিয়ে নৌকা প্রতিকে নিজেরাই সিল মেরেছে। বিভিন্ন কেন্দ্রে আমাদের বিএনপি দলীয় কাউন্সিলর প্রার্থী ও নেতাকর্মীদেরকেও মারধর করা হয়েছে। এসব ঘটনায় সহকারি রিটানিং কর্মকর্তার নিকট একাধিকবার অভিযোগ করলেও তারা কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। তিনি আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন। সংবাাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক নুরুল আফসার (নয়ন), পৌর বিএনপির সভাপতি নুরুল আমিন জসিম, কাউন্সিলর প্রার্থী এনায়েত উল্লাহ কামাল, কাউন্সিলর প্রার্থী নুরুল ইসলাম প্রমূখ।
এদিকে সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির করা এসব অভিযোগের বিষয়ে আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থী আব্দুল মালেক বলেন- বিএনপি মিথ্যা বানোয়াট কথা বলে ভোটারদের হয়রানির করার চেষ্টা করছে। পৌর নির্বাচনে শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোট গ্রহন হয়েছে। কোথাও কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।
সহকারি রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মাদ সাইদুল আরীফ বলেন- জাল ভোটের অভিযোগ পেলেও ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখি সুষ্ঠ ভাবে ভোটগ্রহন চলছে। তিনি দাবি করেন সুষ্ঠ ও সুন্দর পরিবেশে নির্বাচন হয়েছে।
উল্লেখ্য যে, নাঙ্গলকোট পৌরসভায় মোট ভোটার সংখ্যা ১৭ হাজার ২১৮ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৮ হাজার ৫৯৪ জন ও মহিলা ভোটার ৮ হাজার ৬২৪ জন। মোট ৯টি ওয়ার্ডে (১১ টি কেন্দ্রের মধ্যে) সাধারন কাউন্সিলর হিসেবে ২২ জন, সংরক্ষিত ৩টি মহিলা আসনের মধ্যে ২টিতে বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় কাউন্সিলর নির্বাচিত হওয়ায় বাকী ১টি আসনে ২ জন প্রতিদ্বন্দি নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন। মেয়র পদে জাতীয় পার্টির কাজী জামাল উদ্দিন (লাঙ্গল), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের ইসমাইল হোসেন (হাত পাখা) সহ ৫ জন প্রার্থী এই নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: