নাঙ্গলকোট রেলষ্টেশন সংলগ্নস্থানে ময়লা-আবর্জনা স্তুপ! | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ ◈ অনুকূল পরিবেশ হলে এইচএসসি পরীক্ষা ◈ কুমিল্লায় বিপুল ইয়াবাসহ দম্পতি আটক!

নাঙ্গলকোট রেলষ্টেশন সংলগ্নস্থানে ময়লা-আবর্জনা স্তুপ!

19 October 2014, 2:38:56

nkot BR

 

 

 

 

 

 

 

আজিম উল্যাহ হানিফ:
 কুমিল্লা জেলা তথা বৃহত্তর কুমিল্লার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ একটি উপজেলা কিংবা স্পটের নাম হলো নাঙ্গলকোট উপজেলা। আর নাঙ্গলকোট উপজেলার উপর দিয়ে ঢাকা-চট্রগ্রাম রেলসড়কটি যাওয়ার ফলে এর পরিচিতিটি ও আরও এক ধাপ উপরে। এতে করে এই উপজেলার উপর দিয়ে কিংবা নাঙ্গলকোট রেলষ্টেশনে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ যাতায়াত করে আসছে। কিন্তু দু:খের সহিত বলতে হয় নাঙ্গলকোট রেলষ্টেশন সংলগ্ন উত্তর পার্শ্বে সি এন জি স্টেন লাগোড়া ও কয়েকটি রেলের জায়গার উপর লিজ কিংবা অনুমোদন নিয়ে র্নিমিত দোকানের সাথে দীঘদিন ময়লা আবর্জনা ফেলে আসছে। বেশ কয়েকদিন সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে,ময়লা গুলো নাঙ্গলকোট বাজারেরই বিভিন্ন দোকান পাটের। এতে করে রেলষ্টেশনে নাঙ্গলকোট রেলগেইট থেকে হেটেঁ কিংবা যানবাহনে টং দোকান গুলোর পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় ময়লা আবর্জনা চোখে পড়বেই। এতে করে পরিবেশ যেমন দূষিত হচ্ছে, তেমনি রুমাল ছাড়া কিংবা চোখ নাক বন্ধ করা ছাড়া যাতায়াত করা যায় না। এ ব্যাপারে নাঙ্গলকোট বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি নুরুল আফছার নয়ন এর সাথে আলাপ করলে তিনি  আমাদের প্রতিবেদক আজিম উল্যাহ হানিফকে বলেন-‘এগুলো পৌরসভা নিয়ন্ত্রন করে থাকে। দুইদিন পর পর ময়লা গুলো জমে করে তারপর মডেল মহিলা কলেজ সংলগ্ন স্থানে নিয়ে একটি জায়গায় তা পুতেঁ ফেলা হয়।’ এ ব্যাপারে সাবেক সেক্রেটারি নোমানের সাথে আলাপ করলে তিনি ও বলেন এ ব্যাপারে আমাদের সাবেক পৌর মেয়র সামছুদ্দিন কালু উদ্যোগ নিয়েছিলেন,বর্তমান পৌরমেয়র মনিরুজ্জামান খাঁনও ভালো উদ্যোগ নিবে বলে মনে করি। কেননা এটি আমাদের এলাকা,এটি আমাদের দেখাশুনা করতে হবে। দায়িত্ব নিয়ে পরিবেশ ও সৌন্দর্য বজায় রাখতে হবে।

 

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: