নাছরিনের বাল্যবিয়ে অতঃপর পরিণতি! | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বিশ্ব পর্যটন দিবস ও আমাদের সম্ভাবনা ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ

নাছরিনের বাল্যবিয়ে অতঃপর পরিণতি!

28 November 2016, 10:41:32

হাসান জামিল-
কাল বেলা মায়ের গলার আওয়াজ শুনে নাছরিন এর ঘুম ভেঙ্গে যায়। রুম থেকে মাকে জিজ্ঞেস করে কি হয়েছে মা? এই কথা শুনে মা আগুনে-বেগুনে জ্বলে উঠলো, এতো বেলা হয়ে গেলো এখনো মেয়ের ঘুম ভাঙ্গলো না। আজ বা কাল স্বামীর বাড়িতে গিয়ে যদি এতো বেলা করে ঘুম থেকে উঠে তাহলে তাদের কাছে আমি কি জবাব দিবো?

 

নাছরিন সহজ-সরল গ্রামের আঁকা বাঁকা মেটো পথে হাটা একটি মেয়ে,এখনো ভালো-মন্দ বুঝে উঠতে পারেনি? বয়স মাত্র আগামী মাসে এগারো থেকে বারোতে পড়বে।গ্রামের সালমা,আমেনার মত সেও প্রতিদিন হাতে বই নিয়ে স্কুলে যায়,স্কুলের সবাই তাকে খুব ভালো যানে,ক্লাস ফাইভ থেকে সিক্স পর্যন্ত রুল নাম্বার এক, তাই প্রতিটি শিক্ষক তাকে অন্য চোখে দেখে।

 

নাছরিন কে নিয়ে জাফর স্যার এর অনেক বড় স্বপ্ন তাকে ডাক্তার বানাবে কারণ গ্রামে কোন ডাক্তার নেই, কারো অসুখ-বিশুখ হলে বিশ- বাইশ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে ডাক্তার দেখাতে হয়।আর নাছরিন এর ও খুব ইচ্ছা ডাক্তার হওয়া। নাছরিন এর বাবা গ্রামের মাতব্বর এবং সুদের কারবারের সাথেও জড়িত! তাই গ্রামে ভালো প্রভাব,এজন্য সব সময় বাড়িতে মানুষের আনাগোনা লেগে থাকে,বিকালবেলা নাছরিন আর তার বান্ধবী বাড়ির আঙ্গিনায় খেলা করার সময় পাশের গ্রামের মাসুদ ঘটকের নজরে পড়ে যায়,তার পরের দিন মাতব্বর এর কাছে নাছরিন এর বিবাহর জন্য প্রস্তাব আসে।ছেলে শহরের বাড়ি-গাড়ির মালিক! বয়স চল্লিশ এর কাছাকাছি, নিশাগ্রস্ত হওয়ার কারণে প্রথম স্ত্রী চলে যায়। নাছরিন এর বাবা ছেলের অর্থের দিকে তাকিয়ে বয়স আর নিশা করার বিষয় মাথায় নেয়নি? বিয়ের দিন তারিখ ঠিক করা হলো আগামী শুক্র ও শনিবার।

 

আর কিছুদিন পর তার বিয়ে এখনো সে বিয়ে সম্বদ্বে কিছুই জানে না? প্রতিদিন এর মত নাছরিন স্কুলে যাওয়ার জন্য ঘর থেকে বাহির হতে চাইলো, এই সময় তার বাবা হাত থেকে বই গুলো নিয়ে টেবিলে রেখে বলছে মা তোমাকে আর স্কুলে যেতে হবে না আগামী শুক্রবার তোমার বিয়ে,নাছরিন তার বাবাকে বলছে বিয়ের বয়স তো আমার এখনো হয়নি? আর আমি পড়াশুনা করে ডাক্তার হতে চাই,মেয়ের উত্তরে বাবা বলছে মেয়েরা বেশি পড়াশুনা করতে নেই আর মেয়েদের যত তাড়াতাড়ি বিয়ে হয় তত ভালো!

 

মাতব্বরের একটি মাত্র মেয়ে তাই জাঁকজমক ভাবে মেয়ের বিয়ে দিচ্ছে,যে হাতে থাকার কথা ছিল বই, আজ সে হাতে আঁকা হচ্ছে বাহারি রং এর মেহেদী।নাছরিন তার বান্ধবীদের উদ্দেশ্যে করে বলছে বিয়ে হলে কি হয়?পাশে থাকা অন্য জন বলছে স্বামীর বাড়িত গিয়ে কাজ করা আর কি!! বিয়ের রাতে নাছরিন দেখে তার বাবার বয়সী একজন তার দেহ থেকে জামাকাপড় খোলার জন্য চেষ্টা করছে নাছরিন চিৎকার দিয়ে মানুষ জড় করে পেললো, সবাই যখন জিজ্ঞেস করছে বউমা কি হয়ছে? নাছরিন তখন বলছে উনি আমার শরীরে হাত দিচ্ছে আর আমার সাথে খারাপ কিছু করার চেষ্টা করছে। তখন সবাই মাথা নিচু করে যার যার ঘরে চলে গেলেন।নাছরিন জানতেন না যে বিবাহর একটা অংশ দেহ ভোগ করা।বারো বছরের মেয়ের মাথার উপর পরিবারের সকল দায়িত্ব,কিছুদিন পর নাছরিন এর গর্ভে চলে আসে সন্তান।পরিবারের দায়িত্ব,নিজে ডাক্তার না হওয়া,স্বামীর শারীরিক ও মানুষিক নির্যাতন এবং বুঝে উঠার আগেই গর্ভে সন্তান ধারণ এতো কিছু সামলাতে না পারে নিজের গায়ের কাপড় দিয়ে গভীর রাতে ফ্যানের সাথে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।মাতব্বর মেয়ের মৃত্যুর জন্য তার স্বামী ও শ্বশুর কে দায়ী করে থানা মামলা করে,পুলিশ তাদের উভয় কে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে যায়। এদিকে নাছরিনের মৃত্যুর শোক সহিতে না পেরে সাতদিনের মাথায় তার মা ও মৃত্যুর মুখে হেলে পড়ে।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: