পথশিশু মাসুদের ইচ্ছা সাইকেল নিয়ে কুমিল্লা জেলা ঘুরে বেড়ানো! | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বিশ্ব পর্যটন দিবস ও আমাদের সম্ভাবনা ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ
প্রচ্ছদ / রাজনীতি / বিস্তারিত

পথশিশু মাসুদের ইচ্ছা সাইকেল নিয়ে কুমিল্লা জেলা ঘুরে বেড়ানো!

24 October 2014, 2:10:58


আজিম উল্যাহ হানিফ:

গত মঙ্গলবার বেশ কয়েকজন সাংবাদিক ও লেখক নিয়ে ধর্মসাগর পাড় গিয়েছিলাম ঘুরতে। হঠাত প্লাস্টিকের সাদা বস্তা হাতে ৭ বছরের একটি ছেলেকে হাসি মুখে সালাম দিতে দেখলাম। পরনে বোতাম বিহীন প্যান্ট ছাড়া সারা শরীর খালি। আশ্চর্য ও দৈনিক বাংলার আলোড়ন পত্রিকার সাথে লেখালেখির সুবাধে সংবাদ কিংবা জীবনের একটি অংশ হিসেবে তাকে ডেকে তার সাথে কথা বলে জানতে পারলাম সে এখানকার একজন পথশিশু। সে খালি বোতল খুজেঁ বেড়ায়। সারাদিন যা বোতল পায়,তা বিক্রি করে দোকান থেকে কোন খাবার কিনে খায়,দামি কোন খাবার নয়,কোন রকম পেটপুরলেই হলো। এভাবেই তার দিন যায়,রাত কাটে। তার সাথে বিস্তারিত কথা বলে জানা গেছে, তার নাম মো: মাসুদ। বয়স-আনুমানিক ৭/৮ বছর। বাবার নাম রাজা মিয়া,মায়ের নাম মিনোয়ারা বেগম। বাবার গ্রাম রংপুর জেলা। মায়ের গ্রাম কুমিল্লা বরুড়া। বাবা রিক্সার মিস্ত্রি। মাসুদেরা ১ ভাই ১ বোন। বোনের নাম স্বপ্না। তার বয়সও আনুমানিক ১২/১৩ বছর। তারা কুমিল্লা আড়াইওরা ঈদগাহ সংলগ্ন রাস্তার পাশে একটি বাসায় থাকে। তবে তার প্রায় সময় কাটে স্টেশনের প্লাটফরমে কিংবা রাস্তা রাস্তা ঘুরে। সংবাদটি জানার সময় (গত মঙ্গলবার দুপুর ২ টা ৪০ মিনিটের সময়) মাসুদকে জিজ্ঞেস করা হলে সে জানায় তার সারাদিনে আয় হয়েছে বোতল বিক্রি করে ২০টাকা। এই ২০ টাকা দিয়ে কি করবে জানতে চাইলে সে বলে আমি খামু। বাবা,মা কিংবা বড় বোনকে দিতে হবে কিনা জানতে চাইলে সে আরো জানায় বড় হইলে দিমু,বড় হইলে সাইকেল কিনমু,কুমিল্লা জিলা ঘুরে বেড়ামু,বাবার দেশ রংপুর,মায়ের দেশ বরুড়া সাইকেল নিয়ে যামু। সে জানায় বাসায় রাতে গিয়ে গোসল করে ভাত খামু। বাসায় কি ধরনের খাবার খাও? খাবার থাকবে কি না? জানতে চাইলে সে বলে মা  না খেয়ে আমাকে খাবার দিবেই। সে খাবার খেয়ে রাতটুকু কোনরকম ঘুমিয়ে তারপর সকাল সকাল কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন রোড দিয়ে ধর্মসাগর পাড় হয়ে শহরে বোতলের খোজেঁ নেমে পড়বে। তবে মাসুদের আফসোস সে নিজের নাম লিখতে পারে না।

 

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: