প্রচন্ড গরমে তালশাঁস বেশ সুস্বাদু ফল | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ ◈ অনুকূল পরিবেশ হলে এইচএসসি পরীক্ষা
প্রচ্ছদ / সারাদেশ / বিস্তারিত

প্রচন্ড গরমে তালশাঁস বেশ সুস্বাদু ফল

15 May 2017, 4:03:52

মুহম্মদ নাঈমুজ্জামান শরীফ,খুলনা সংবাদদাতা :

প্রচন্ড ভ্যাপসা গরম। কোথায় গেলে একটু প্রশান্তি পাওয়া যাবে। কি খেলে আত্মায় শান্তি পাওয়া যাবে। সে ক্ষেত্রে তালশাঁস বেশ সুস্বাদু ফল সবার প্রিয় তাল’শাঁস। তাল শাঁস পছন্দ করেনা এমন মানুষ খুব কম। তবে তালশাঁস সবচেয়ে বেশি পছন্দ করেন শিশু এবং বৃদ্ধরা। খুলনা শহরের ফুটপাত সহ বিভিন্ন রাস্তায় কাঁচা তালের কাঁদি বিক্রী করতে দেখা যায় বিক্রেতাদের। শুধু তাই নয়, প্রত্যন্ত এলাকা থেকে শুরু করে হাঁট-বাজার পর্যন্ত তালশাঁসের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। জ্যৈষ্ঠ মাসের শুরু থেকে তাল শাঁস বিক্রেতারা ধাঁরালো দা ও কাঁচা তাল নিয়ে ফুটপাতে বসে একটার পর একটা অনবরত কেটে ক্রেতাদের হাতে তালশাঁস পরিবেশন করতে থাকেন। এলাকা ভেদে একটি তালের পাইকারী দাম ৫ থেকে ৭ টাকা বলে জানা গেছে। যা খুচরা পর্যায়ে ৫ থেকে ১০ টাকা পর্যন্ত বিক্রী হচ্ছে। রূপসা উজেলার পূর্ব রূপসা বাজারে মামুন নামে এক তালশাঁস বিক্রেতা জানান, একটি গাছের তাল ৫’শ থেকে ৬’শ টাকায় কিনতে হয়। শহরে এনে তা ৭শ’ থেকে ৯’শ টাকায় বিক্রি করতে হয়। প্রচলিত ভাষায় এটাকে ‘তালকুর’ও বলা হয়ে থাকে। শক্ত তালের কাঁচা আবরণের মধ্যে নরম তুলতুলে শাঁস আর মিষ্টি রসের ফলটি বাঙ্গালীদের রসনা বিলাসের পুরাতন ঐতিহ্য। তাল শাঁস সিজেনাল ফল এটা কম বেশি সবাই খায়। দিনে ২‘শ থেকে ২‘শ ৫০ পিছ তাল শাঁস বিক্রয় হয়। তবে গরম বাড়লে বিক্রীটাও বেড়ে যায়। পাইকারী ও খুচরা বিক্রেতা জানান, কেউ একটু তরল, আবার কেউ একটু শক্ত শাঁস পছন্দ করেন। প্রতিদিন ৪০ থেকে ৫০ কাঁদি তাল বিক্রি করেন। এক থেকে দেড় মাস পর্যন্ত তালশাঁস বিক্রি করা যায়। তালশাঁসে শর্করা, স্নেহ ও আমিষ জাতীয় গুণ ছাড়াও অন্যান্য পুষ্টিগুণ রয়েছে। আর পাঁকা তালে ভিটমিন ‘এ’ সহ অন্যান্য উপাদান রয়েছে। বাজার জাতকৃত বিভিন্ন পানীয় ফাস্ট ফুড জাতীয় খাবার না খেয়ে “তালশাঁস” খাওয়া অনেক স্বাস্থ্যসম্মত ও উপকারী।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: