বটিয়াঘাটায় অনিত রায় নামের এক শিশুকে বেদম নির্যাতন করেছে খুলনা বিশ্ববিদ্যায়ের এক মাষ্টার রোল কর্মচারী | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বিশ্ব পর্যটন দিবস ও আমাদের সম্ভাবনা ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ
প্রচ্ছদ / সারাদেশ / বিস্তারিত

বটিয়াঘাটায় অনিত রায় নামের এক শিশুকে বেদম নির্যাতন করেছে খুলনা বিশ্ববিদ্যায়ের এক মাষ্টার রোল কর্মচারী

16 February 2017, 12:28:14

মহিদুল ইসলাম শাহীন বটিয়াঘাটা খুলনা থেকে,  বটিয়াঘাটা উপজেলার জলমা গ্রামের পলাশ রায়ের পুত্র ৭ম শ্রেনীর ছাত্র অনিত রায় (১৩) কে জিয়ালীর কচা দিয়ে বেদম মারপিট করার অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে এলাকায় ব্যাপক চান্ঞল্যের সৃষ্টি হয়েছে। এবং নির্যাতিত শিশুটিকে বটিয়াঘাটা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এলাকা বাসি সুত্রে জানাগেছে, গত ৯ ফেফ্রূয়ারি বিকাল ৩ টার সময় অনিত অন্যান্য বন্দুদের সাথে নিয়ে প্রফেসর অনির্বাণ বাবুর ক্রয়কৃত ভিটা থেকে জিয়েলের কচা কেটে ক্রিকেট খেলার উইকেট তৈরি করছিল কিন্তু ঐ ভিটার দায়িত্বে থাকা খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের মাষ্টার রোল কর্মচারী দাউনিয়া ফাদ গ্রামের পুলিন গাইনের পুত্র প্রসেন গাইন এসে ঐ বাচ্চাটিকে প্রথমে দু পায়ে কচার লাঠি দিয়ে পিটাতে থাকে এক পর্যায় বাচ্চাটি মাটিতে পড়ে গেলে তার হাত দুটি দুপা দিয়ে চেপে ধরে অনিতের দুপায়ের তালুতে লাঠি দিয়ে পিটাতে থাকে এসময় অনিত বেহুস হয়ে পড়লে এলাকা বাসীরা মুমুর্স অবস্থায় তাকে বটিয়াঘাটা হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ব্যাপারে অনিতের পিতা শিশু নির্যাতনের অভিযোগ এনে মামলার প্রস্তুতি চলছে। এ বিষয় প্রসেন গাইনের কাছে জানতে চাইলে তিনি মুখ খুলতে রাজী হননি। নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধীক ব্যক্তি জানান, বাংলাদেশে অনেক গুলো শিশু নির্যাতনের ঘটনা ইতি মধ্যে ঘটেছে এবং সব ঘটনায় বিচার হয়েছে কিন্ত অনিত নির্যাতনের ঘটনা ঐ সকল নির্যাতনের থেকে কম না কি ভাবে বাচ্চাটিকে দু পায়ে এবং পার তলে যে ভাবে মেরেছে না দেখলে অনুভব করা যায় না এ ঘটনার বিচার হওয়া উচিত।  সচেতন মহল এ ঘটনায় দ্রুত বিচার আইনে বিচারের দাবী জানান।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: