বাগেরহাটের কচুয়ায় সন্ত্রাসীদের কাছে কয়েকটি পরিবার জিম্মি : প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বিশ্ব পর্যটন দিবস ও আমাদের সম্ভাবনা ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ
প্রচ্ছদ / সারাদেশ / বিস্তারিত

বাগেরহাটের কচুয়ায় সন্ত্রাসীদের কাছে কয়েকটি পরিবার জিম্মি : প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা

25 April 2018, 5:31:22

বাগেরহাট প্রতিনিধি
বাগেরহাটের কচুয়ার পিংগুড়িয়া এলাকায় একটি সন্ত্রাসীদের কাছে জিম্মি হয়ে কয়েকটি পরিবার অবরুদ্ব হয়ে পড়েছে। প্রাপ্ত অভিযোগে জানাগেছে,বাগেরহাটের কচুয়া উপজেলার পিংগুড়িয়া গ্রামের ছলেমান শেখের দুই পুত্র রুবেল ও রুমান শেখ ঢাকায় রং এর ব্যাবসা করেন। মাঝে মধ্যে বাড়ীতে আসলে এলাকার সন্ত্রাসী,চাদাবাজ জাকির,বাদশা,ওবায়দুল,সাইফুল ও তাদের সহযোগী শাহাজান,আ: রহমান ও অশোকদেব রুবেলের কাছে চাদাদাবী করে। গত ২২শে এপ্রিল রুবেলরা দুই ভাই বাড়ীতে এসেছে এমন খবর পেয়ে জাকিররা তার পান্ডা বাহিনী নিয়ে তাদের কাছে এলাকায় মা বোন নিয়ে বসবাস করতে হলে দুই লক্ষ টাকা চাদা দিতে হবে বলে সাফ জানিয়ে দেয়। জাকিরদের চাদা দিতে অস্বিকার করায় সন্ত্রাসীরা তাদেরকে বেদম মারপিট করে।ভােিদর মারতে দেখে রুবেলের মা,শিরিনা বেগম,বোন ডালিয়া ও ১০ম শ্রেনীর ছাত্রী সিমা ঠেকাতে এলে পান্ডার দল তাদেরকে এলাপাতারী কিল ঘুষি মেরে আহত করে বীরদর্পে ছলে যায়। এঘটনার পর আহত রুবেলের স্ত্রী তানিয়া বেগম কচুয়া থানায় একটি অভিযোগ দাখিল করে।কচুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার নির্দেশে পুলিশ ওই দিন বিকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।পুলিশ ছলে আশার পর সন্ত্রাসীরা আবারো রুবেলের বাড়ীতে গিয়ে বলে যতদিননা টাকা দিবি ততদিন বাড়ী থেকে কেউ বাইরে বের হতে পারবি না।এঘটনার পর পালিয়ে রুবেলরা দুভাই ঢাকাতে গেলে ও তাদের পরিবারের মা,বাবা,এমনকি তার বোন সিমা সন্ত্রাসীদের ভয়ে স্কুলে যেতে পারছেননা বলে পরিবারের পক্ষ থেকে এপ্রতিনিধিকে। রুবেল বলেন,ইতিপুর্বে শাহাজান মুরগীর ফার্ম করার কথা বলে তার কাছ থেকে ধার সরুপ আড়াই লক্ষ টাকা নিয়ে অদ্যবদি পরিশোধ করেন নাই। সন্ত্রাসী কর্মকান্ড এই জাকিরগংদের পেশা । তাদের ভয়ে এলাকার কেউ মুখ খুলতে সাহস পায়না। এদের হুমকীর কারনে তার বোন সিমা স্কুলে যেতে পারছেনা। কচুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বলেন,রুবেলের একটি অভিযোগের পরিপেক্ষিতে একজন অফিসার ঘটনাস্থলে গিয়েছেন।বর্তমানে পরিবেশ শান্ত।তবে কেউ আইনের উর্ধে নয় অপরাধ করলে তার বিরুদ্বে ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে। এব্যপারে রুবেল তার পরিবারের জিম্মিদশা থেকে মুক্তি ও সন্ত্রাসীদের বিরুদ্বে আইনানুগ ব্যাবস্থা গ্রহনের জন্য প্রশাসনের প্রতি জোর দাবী জানিয়েছে।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য:

x