মিয়ানমারের মুসলমানদের কি কোন আশ্রয় দাতা নেই | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ ◈ অনুকূল পরিবেশ হলে এইচএসসি পরীক্ষা ◈ কুমিল্লায় বিপুল ইয়াবাসহ দম্পতি আটক!

মিয়ানমারের মুসলমানদের কি কোন আশ্রয় দাতা নেই

20 November 2016, 10:51:54

বাংলাদেশের পাশবর্তী দেশ মিয়ানমার, টেকনাফের পাশেই মিয়ানমার অবস্থিত, টানা কয়েকদিন মিয়ানমারের মুসলমানদের উপর নির্বিচারে অত্যাচার করছে ঐ দেশের বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের লোকেরা, নির্বিচারে মুসলমানদের হত্যা করছে তারা, ধর্ষণ করছে মিয়ানমারের মুসলিম মা বোনদের, বৌদ্ধরাই বলে জীব হত্যা মহাপাপ, তা হলে আজ কেমন করে তারা সৃষ্টির সেরাজীব মানুষকে পশুর মত হত্যা করছে…?

 

আর এখন এই অমানুবিক হত্যা যজ্ঞের সাথে যুক্ত হয়েছে ঐ দেশের সেনাবাহিনী, তারাও নির্মম নির্যাতন ও অত্যাচার করছে মিয়ানমারের মুসলমানদের, বিশেষ করে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের রোহিঙ্গা মুসলমানদের উপর এই পাশবিক নির্যাতন চালানো হচ্ছে অধিক হারে।

 

রাতের আধারে মুসলমানদের বাড়ি ঘরে আগুন জালিয়ে ঘুমন্ত অবস্থায় তাদের পুড়িয়ে মারা হচ্ছে। পশুর মত জবাই করা হচ্ছে মিয়ানমারের মুসলমানদের, এ জবাইয়ের হাত থেকে রক্ষা পাচ্ছে না কোমল মতি নিষ্পাপ শিশুরাও, আর সেই জবাইকৃত লাশ নিয়ে আনন্দ উল্লাস করছে মিয়ানমারের বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের লোকেরা, রাখাইন রাজ্যের মুসলমানদের মেরে সবার সামনে উলঙ্গ অবস্থায় রশি দিয়ে টেনে তাদের লাশ ফেলে দেওয়া হচ্ছে নদীতে। রোহিঙ্গা মুসলমানদের সামনে তাদের মা বোনদের নির্যাতন করছে মিয়ানমারের সেনা সদস্যরা, নিরুপায় অবস্থায় জীবন যাপন করছে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের হাজারো মুসলমান, অনেকেই প্রাণ ভয়ে পালিয়ে গেছে বিভিন্ন দিকে, জাতিসংঘের শরণার্থী থেকে চিঠি পাঠানো হয়েছে রোহিঙ্গা মুসলমানদের আশ্রয় দেওয়ার জন্য, কয়টি দেশি বা তাদের আশ্রয় দিচ্ছে…?

নাপনদী পেরিয়ে অনেক রোহিঙ্গা মুসলিম টেকনাফে এসে পৌছালে ও তাদের বাংলাদেশে প্রবেশ করতে দিচ্ছে না বাংলাদেশের সীমান্ত রক্ষী বাহিনী, বাংলাদেশের সীমান্ত রক্ষী’রা তাদের পুনরায় মিয়ানমারে ফিরে যেতে নির্দেশ দিচ্ছেন, এতিম অবস্থায় সাগরের বুকে ছোট ছোট শিশু বাচ্ছাদের নিয়ে ভাসচ্ছেন মিয়ানমারের মুসলিম রোহিঙ্গারা, তাদের কি কোন আশ্রয় দাতা নেই….? হাদীসে আছে এক মুসলমান অপর মুসলমানের ভাই, তা হলে মুসলমানদের কর্তব্য হলো যে এক মুসলমান ভাই বিপদে পড়লে তাকে নিরাপদ আশ্রয়ে নিয়ে যাওয়া, তাই বিশ্বের সকল মুসলমানের এখন উচিৎ মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলমানদের পাশে গিয়ে তাদের নিরাপদ আশ্রয়ে নিয়ে যাওয়া, বন্ধ করা হোক এ অমানুবিক হত্যাকান্ড, এবং এর প্রতিবাদ হোক সারা বিশ্ব জুড়ো, মহান আল্লাহ যেন বিশ্বের সকল মুসলমানকে নিরাপদ আশ্রয়ে রাখেন…. আমিন…।

 

লেখক:- রবিউল হোসাইন রাজু

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: