মুক্তি পেয়ে স্ট্যাটাসে যা বললেন মাশরাফি ভক্ত | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বিশ্ব পর্যটন দিবস ও আমাদের সম্ভাবনা ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ
প্রচ্ছদ / খেলাধুলা / বিস্তারিত

মুক্তি পেয়ে স্ট্যাটাসে যা বললেন মাশরাফি ভক্ত

3 October 2016, 11:47:57

নিরাপত্তা বেষ্টনি পেরিয়ে মাঠে প্রবেশ করে মাশরাফির বুকে ঠাঁই পাওয়া সেই ভক্ত ও তার বন্ধুরা মুক্তি পেয়েছেন। অসৎ কোনো উদ্দেশ্যের প্রমাণ না পাওয়ায় রোববার রাত ৯টার দিকে তাদের ছেড়ে দেয়া হয় বলে মিরপুর থানা সূত্রে জানা গেছে।

থানা হাজত থেকে বেরিয়ে মাশরাফি ভক্ত ও তার বন্ধুরা নিরাপদে বাড়িতে পৌঁছেছেন। বাড়িতে পৌঁছেই মুক্তির আনন্দ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দিয়েছেন মাশরাফি ভক্ত মেহেদি হাসান।

প্রধানমন্ত্রী, টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি ও সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে রাত ১১টার দিকে নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে স্ট্যাটাস দেন মেহেদি।

ফেসবুক বার্তায় তিনি বলেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ। সুস্থ এবং নিরাপদে বাসায় ফিরে আসতে পারছি। আমাকে বাসায় ফিরে আসতে আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, মাশরাফি ভাই, আরাফাত সানি ভাই, বিসিবি, মিরপুর মডেল থানা, সাভার মডেল থানা, ডিএসইউ গ্রুপ সহ আরও অনেক গ্রুপ, আমার ঘনিষ্ঠ বন্ধু, ফেসবুক ফ্রেন্ডস, আরও যারা ফেসবুক ইউজার আছেন, যারা বিভিন্নভাবে আমাকে সাহায্য করেছেন তাদের কাছে আমি চির কৃতজ্ঞ। ধন্যবাদ জানানোর ভাষা খুঁজে পাচ্ছি না আমি।’

রাত বারোটার দিকে নিজের সঙ্গে থানা হাজতে আটক থাকা বন্ধুদের কাছে দুঃখ প্রকাশ করে দেয়া অপর এক ফেসবুক পোস্টে মেহেদি বলেন, ‘স্যরি ব্রাদার্স, আমার জন্য তোরা আমার সঙ্গে থানায় আটক ছিলি। তোদের না বলেই আমি মাঠে চলে গিয়াছিলাম। আমার জন্য অনেক কষ্ট করলি তোরা। আমাকে মাফ করে দে প্লিজ।’

পরে রাত ১টার দিকে দেয়া ফেসবুক স্ট্যাটাসে তিনি নিজের কৃতকর্মের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন। ভবিষ্যতে এমন ঘটনার জন্ম না দেয়ার জন্য টাইগার ভক্তদের প্রতি আহ্বানও জানান তিনি।

স্ট্যাটাসে তিনি বলেন, ‘আমি জানি আমার গ্যালারী থেকে মাঠে নেমে গিয়ে আমার বস মাশরাফি ভাইকে এমনভাবে জড়িয়ে ধরায় মাঠের আইন ভঙ্গ হয়েছে। আর এই ঘটনাটি আমার অতিরিক্ত আবেগ বশত ঘটেছে। আমার এই কাজটা করার পর যে বিসিবি আর পুলিশ ভাইদের এমন চরম ভোগান্তি হবে, তা আমার জানা ছিল না। আমি বিসিবি আর পুলিশ ভাইদের আছে অনেক দুঃখিত। আমার জন্য আপনাদের অনেক কষ্ট হয়েছে। আমি শুনেছি যে, আমার এই ঘটনার জন্য মাঠের মধ্যে থাকা কয়েকজন পুলিশ বরখাস্ত হয়েছেন। আমার গ্যালারির সামনের পুলিশ ভাইরা সারাক্ষণ খুবই সতর্ক ছিলেন। আমি সারাক্ষণই তাদের ফলো করতেছিলাম।

 

আর একজন পুলিশ ভাই যখন অন্য দিয়ে তাকায়, ঠিক তখনই আমি গ্যালারি থেকে লাফ দিয়ে এক দৌড়ে মাঠে চলে যাই। আমার এই অবেগবশত ভুলের জন্য বরখাস্ত হওয়া পুলিশ ভাইদের আবার চাকুরি ফিরিয়ে দেয়ার জন্য অনুরোধ করছি। মিরপুর মডেল থানার সকল পুলিশ ভাইরা খুবই হেল্পফুল ছিলেন। তারা আমাকে আর আমার সাথে আটক হওয়া আমার তিন বন্ধুদের কোনোভাবেই আঘাত করেননি। আমি তাদের কাছে খুবই কৃতজ্ঞ। তাছাড়া মিডিয়ার ভাইরা আমাকে আর আমার তিন বন্ধুকে থানা থেকে বের হতে পারার জন্য সাহায্য করেছেন। মিডিয়ার ভাইদেরকে আমার অনেক ধন্যবাদ। আমার মতো এমন ভুল আর কেউ করবেন না প্লিজ। একটু আবেগী হওয়ার কারণেই আমার দ্বারা এই ভুলটি হয়েছে।’

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: