রতারক নুরুল আবছার আনসারী শূণ্য থেকে কোটিপতি | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বিশ্ব পর্যটন দিবস ও আমাদের সম্ভাবনা ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ

রতারক নুরুল আবছার আনসারী শূণ্য থেকে কোটিপতি

20 June 2017, 9:15:37

স্টাফ রিপোর্টার:-

চট্টগ্রামের আলোচিত প্রতারক ও মামলাবাজ নুরুল আবছার আনসারী শূণ্য থেকে আজ কোটিপতি হলেন কিকরে। জানা গেছে, নুরুল আবছার আনসারী ৯১ সালে জীবন-জীবিকার তাগিদে বাঁশখালী থেকে স্ত্রী-সন্তানসহ চট্টগ্রাম শহরে আসেন। চট্টগ্রামের চান্দগাঁও থানাধীন কাপ্তাই রাস্তার মাথা পল্টনিয়ে মসজিদের পিছনে মাসিক ১শ’ টাকায় জনৈক ব্যক্তির বাড়িতে ভাড়া থাকেন। জীবিকার তাগিদে পুরানো তেঁতুল আর আটার সাথে পিপারমিন মিশিয়ে সমস্ত রোগের দাওয়াই (ঔষধ) বানিয়ে প্রতারণা কাজের সূচনা করেন। পুরাতন জানআলী হাট রেল ষ্টেশনে কলাপাতা বিছিয়ে জঙ্গল থেকে অপরিচিত লতা-পাতা তুলে এনে বিক্রি করে ডাক্তার ও কবিরাজ খেতাব অর্জন করেন। এরপর থেকেই শুরু হয় তার নানামূখী প্রতারণা। এরই সূত্র ধরে তিনি দক্ষিণ চট্টগ্রাম এবং কক্সবাজার জেলার অসহায় যুবতী মেয়েদের চাকুরী দেওয়ার নাম করে শহরে নিয়ে এসে বিভিন্ন অসামাজিক কার্যকলাপে লিপ্ত করে বলে জানা গেছে। বর্তমানে তার হাতে রয়েছে কয়েক ডজন নারী। আর এ সব নারীদের বাদী করে বিভিন্ন বিত্তশালী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মানহানীকর বা নারী নির্যাতন মামলা করে। পরে বাদী-বিবাদী গণের সাথে আপোষ-মিমাংসার নামে মোটা অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নেয়। এছাড়াও চাকুরী দেওয়ার নাম করেও তিনি অনেকের কাছ থেকে হাতিয়ে নিয়েছেন মোটা অঙ্কের টাকা। আর এ ব্যবসা তার ভাগ্যের দ্বার উন্মোচন করে দেয়। যার ফলে সে এখন কোটিপতি। সূত্রটি জানায়, নুরুল আবছার আনসারী নির্দিষ্ট কোন চাকুরী বা ব্যবসা না থাকলেও বিশাল অট্টালিকা, কয়েকটি মাইক্রোবাস, মটরসাইকেল এবং অনেকগুলো ট্যাক্সির মালিকও বনে গেছেন। আর তার মাইক্রোবাসগুলো চট্টগ্রামের বহদ্দর হাট এবং বাঁশখালী-কক্সবাজার রুটে চলাচল করে। একাধিক পরিচয়ের অন্তরালে প্রশাসনের নাকের ডগায় নুরুল আবছার আনসারী এ গাড়িতে অবৈধ মালামাল পাচার করে চলছে বলে অভিযোগ রয়েছে। আর এসব তথ্য উপাত্ত সহ তার বিরুদ্ধে পূর্বেও বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় একাধিক সংবাদও প্রকাশিত হয়েছে।তার বিরুদ্ধে ভিবিন্ন থানায় একাদিক মামলা রয়েছে। ভিবিন্ন এলাকায় তাকে দরিয়ে দেওয়ার জন্য পুরুস্কার গোসনা করে লিপলেট ও পোষ্টার বিতরণ করেন

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: