রূপসায় নদীতে সন্তান ও স্ত্রীকে ফেলে দিয়ে হত্যা, ঘাতক স্বামী গ্রেফতার | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ ◈ অনুকূল পরিবেশ হলে এইচএসসি পরীক্ষা ◈ কুমিল্লায় বিপুল ইয়াবাসহ দম্পতি আটক!
প্রচ্ছদ / সারাদেশ / বিস্তারিত

রূপসায় নদীতে সন্তান ও স্ত্রীকে ফেলে দিয়ে হত্যা, ঘাতক স্বামী গ্রেফতার

28 June 2017, 8:16:50

খুলনা সংবাদদাতা :

রূপসা উপজেলার খান জাহানআলী সেতুর (রূপসা সেতুর) উপর থেকে নদীতে ফেলে দিয়ে সন্তান ও স্ত্রীকে হত্যার দায়ে ঘাতক স্বামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ ব্যাপারে নিহত স্ত্রীর মাতা বাদী হয়ে রূপসা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানাগেছে গত ২৭ জুন সকালে খুলনার খালিশপুর এলাকার আবুল হোসেনের পুত্র রমজান হোসেন (৩৫) তার স্ত্রী তৈয়েবা খাতুন (২২) ও ১৪ মাসের পুত্র সন্তান আ: রহিমকে নিয়ে বাড়ী থেকে বের হয় বরিশালে আত্মীয়র বাড়ীতে যাওয়ার কথা বলে। বিকালে রূপসা সেতু এলাকায় ঘুরতে আসে তারা। এক পর্যায়ে পূর্ব ঘটনার সূত্র ধরে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে ব্যাপক বাক বিতন্ডা হয়। নিষ্ঠুর পিতা রমজান হোসেন মায়ের কোল থেকে জোর পূর্বক বাচ্চাটিতে কেড়ে নিয়ে রূপসা নদীতে নিক্ষেপ করে। এ সময় স্ত্রী তৈয়েবা খাতুন কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন এবং চিৎকার করে সন্তানকে উদ্ধারের জন্য স্বামীর নিকট আকুতি মিনতি করতে থাকে। এক পর্যায়ে রমজান আরো ক্ষিপ্ত হয়ে স্ত্রীকে জোর পূর্বক হাত পা চেপে ধরে নদীতে ফেলে দেয়। ব্রীজ এলাকায় ঈদ উপলক্ষ্যে আগত জনসাধারন বিষয়টি প্রত্যক্ষ করে এবং মুহুর্তের মধ্যে তারা বিক্ষোভে ফেটে পড়ে। জনতা তখন ঘাতক রমজান হোসেনকে ধরে গন পিটুনি দেয়। এক পর্যায়ে পুলিশ ঘাতক স্বামীকে গ্রেফতার করে। নিহত তৈয়েবার মাতা রশিদা বেগম বলেন প্রায় তিন বছর পূর্বে তার কন্যার সাথে রমজান হোসেনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই তাদের মধ্যে দাম্পত্য কলোহ লেগেছিল। রমজান প্রায়ই তার স্ত্রীকে চারিত্রিক দোষ ত্রুটি তুলে ধরে মারধর করতো এবং অন্যত্র অবস্থান করতো। অবশেষে গত ২৭ জুন বরিশালের একটি আত্মীয় বাড়ীতে যাওয়ার কথা বলে সে তার স্ত্রী, সন্তানকে নিয়ে বাড়ী থেকে বের হয়। রূপসা থানার অফিসার ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম জানান ঘটনার পর জনতার সহায়তায় পুলিশ ঘাতক স্বামীকে গ্রেফতার করেছে। নিহত তৈয়েবা খাতুন ও তার সন্তানের মৃত দেহ উদ্ধারের জন্য পুলিশ চেষ্টা করছে। ঘটনাটি ব্রীজ এলাকায় আগত দর্শনার্থীদের মধ্যে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: