লোকমান হোসেন মিয়াজী’র কবিতা “প্রবাসী যুদ্ধার আর্থনা” | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বিশ্ব পর্যটন দিবস ও আমাদের সম্ভাবনা ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ

লোকমান হোসেন মিয়াজী’র কবিতা “প্রবাসী যুদ্ধার আর্থনা”

24 December 2019, 10:59:51
আমি যদি যাইগো মরে প্রবাসের মাটিতে,
লাশ টা আমার পৌঁছে দি ও?
দুঃখিনী মায়ের কোলে ।
এক মাস নয় এক বছর নয়? ,
ষোলটি বছর কাটিয়ে দিলাম প্রবাসের মাটিতে,
কত না স্বপ্ন ছিল কোমলমতি এই হৃদয়ে।
 কতনা আশা ছিল ফিরবো একদিন বাড়িতে,
 বন্ধুবান্ধব আত্মীয়স্বজন  আসবে আমাকে দেখিতে।
 ছোট্ট বোনটি বলবে আমায় ভাইয়া আংটিটা দে আমাকে,
 ভাইটি আমার বলবে ভাইয়া মোবাইলটা দে না চালাইতে।
 মা দুঃখিনী কাঁদবে আমার জড়িয়ে ধরে বুকেতে,
গিন্নি আমার বলবে ওগো নেকলেস টা দাও পরিতে।
 কত লোক আসবে আবার অনেক কিছু চাইতে, লাশটা যখন পৌঁছে যাবে আসবে সবাই কাঁদিতে।
 কেউ আসবে আমার বক্স খুলে টাকার বান্ডিল দেখিতে,
 মা দুখিনী বলবে শুধু দেনা খুলে মুখটা একবার দেখিতে।
 বুঝবে না কেউ প্রবাসীর যন্ত্রনা এই নিষ্ঠুর পৃথিবীতে,
মরন কালে পারলাম না মায়ের মুখ টা একবার দেখতে।
মাথার ঘাম পায়ে ফেলে করলাম কামাই নিরলে,
যাবার বেলায় শুয়ে গেলাম  প্রবাসের মাটিতে।
আমার লাশটা পৌঁছে দিও দুঃখিনী মায়ের কোলে!

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য:

x