শেষ তিন সেকেন্ডে স্বপ্নভঙ্গ বাংলাদেশের | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ ◈ অনুকূল পরিবেশ হলে এইচএসসি পরীক্ষা ◈ কুমিল্লায় বিপুল ইয়াবাসহ দম্পতি আটক!
প্রচ্ছদ / খেলাধুলা / বিস্তারিত

শেষ তিন সেকেন্ডে স্বপ্নভঙ্গ বাংলাদেশের

1 October 2016, 9:09:48

মোহাম্মদ ইব্রাহিম খলিল : আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে তখন টাইব্রেকার। নির্ধারিত সময়ে (৭০ মিনিট) ড্র থাকলে ম্যাচটি সরাসরি শুট আউটে যাবে নাকি অতিরিক্ত সময়ে মাঠে খেলা গড়াবে।

তখনো খেলা শেষ হওয়ার মাত্র ৪৫ সেকেন্ড বাকি। ম্যাচে ৪-৪ এ সমতা। মাঠের দক্ষিণ দিকে (ভারতের সীমানায়) মাহবুব ইনজুরি থাকায় খেলা থামান আম্পায়ার। সেখান থেকে খেলা শুরু হওয়ার পরই ম্যান মার্কিং ব্রেক করে ভারতের অভিষেকের রিভার্স হিটে বাংলাদেশের স্বপ্নভঙ্গ।

অনূর্ধ্ব ১৮ বয়েজ এশিয়া কাপের জমজমাট ফাইনালের শেষ মুহূর্তে আয়োজক বাংলাদেশকে ৫-৪ গোলে হারিয়ে বেক্সিমকো অনূর্ধ্ব-১৮ এশিয়া কাপ হকির শিরোপা জিতল ভারত।

টুর্নামেন্টের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের পরও স্বপ্নভঙ্গ হয় শেষ মুহূর্তে। এই ভারতকেই গ্রুপ পর্বে ৫-৪ গোলে হারায় রোমান বাহিনী। শুক্রবার এক অর্থে সে বদলাও নিয়ে নিলো ভারত। বাংলাদেশ তাদের জয় উপহার দিয়ে এলো বললেও অতুক্তি হবে না।
হারের তিক্ত স্বাদ নিয়ে ফাইনালে পাঁচ ফরোয়ার্ডকে মাঠে নামায় ভারত দল। তাদের কোচ আগেই সতর্ক বার্তা দিয়েছিল বিন্দুমাত্র ছাড় নয়। বাংলাদেশ আগের চেয়ে বর্তমানে অনেক পরিপূর্ণ। ফাঁকফোকর থাকার অর্থ তাদের ধরা কঠিন।

ফাইনালে শত চেষ্টা করেও তারা আটকাতে পারেনি বাংলাদেশকে। লিডও নিলো বাংলাদেশ। কখনো ডিফেন্স শক্তিশালী করে, কখনো মধ্যমাঠ, কখনো ফরোয়ার্ড শক্তিশালী করে আক্রমণে যায় রোমান, মাহবুবরা।

ভারতও চেষ্টা করে আক্রমণে থাকার। সমানে সমানে লড়াই চালিয়ে গেলেও শেষ পর্যন্ত হার মানতে হয় বাংলাদেশকে।
দুই দলেরই শুরুটা ছিল বাড়তি সতর্কতার। বাংলাদেশ ম্যান মার্কিংয়ের কৌশল নেয় কারণ ভারত তাদের আক্রমণ ভাগে শক্তি বাড়ানোয়। ২০ মিনিটে প্রথম পেনাল্টি কর্নার (পিসি) পায় বাংলাদেশ। এগিয়ে আসেন টুর্নামেন্টে পিসি থেকে ১০ গোল করা আশরাফুল।

কিন্তু ভারতীয় দলকে বোকা বানিয়ে কানেক্ট থেকে গোল করেন অধিনায়ক রোমান সরকার (১-০)। যদিও দুই মিনিটের বেশি স্থায়ী হয়নি বাংলাদেশের আনন্দ উৎসব। চমৎকার এক ফ্লিকে গোল করে ভারতকে সমতায় ফেরান মিডফিল্ডার শিভম আনন্দ (১-১)।

গোল পেয়ে কিছুক্ষণ বাংলাদেশের ওপর চড়াও হয় ভারত। এই সময় পুরোপুরি রক্ষণাত্মক হয়ে চাপ সামলে ওঠে জাহিদ হোসেন রাজুর শিষ্যরা। প্রথমার্ধের শেষ মিনিটে সবুজের হিটে মহসিনের কানেক্টে আবার লিড নেয় বাংলাদেশ (২-১)।
দ্বিতীয়ার্ধে সমতা আনার জন্য মরিয়া হয়ে ওঠা ভারত সফল হয় ৪২ মিনিটে, পেনাল্টি কর্নারে ফুল ড্রাগে সমতাসূচক গোলটি করেন হারদিক সিং (২-২)। ৫১ মিনিটে ডিফেন্স ও গোলরক্ষকের ভুলে তৃতীয় গোল হজম করে বাংলাদেশ। দিলপ্রিত সিংয়ের পাসে রিভার্স পুস করেন কনজেংবাম সিং। বলে গতি ছিল না কিন্তু গোলরক্ষক ইয়াসিন আরাফাত তা ঠিকমতো ক্লিয়ার করতে পারেননি, বল গড়িয়ে গড়িয়ে গোল লাইন অতিক্রম করে (২-৩)।

বাংলাদেশ অপেক্ষায় ছিল পিসির। কাঙ্খিত সেই পিসি ধরা দেয় ৫৮ মিনিটে। এবার আশরাফুলকে আটকাতে পারেনি ভারতীয় ডিফেন্ডারেরা (৩-৩)। ৬৪ মিনিটে কজেংবাম সিং জটলা থেকে গোল করে ভারতকে ৪-৩-এ এগিয়ে দেন। এ ক্ষেত্রেও দায়ী গোলরক্ষক। দুই মিনিট পরই আশরাফুলের প্রচণ্ড গতির হিট কিপার পঙ্কজ রজকের প্যাডে লেগে ফেরত এলে রিভার্স হিট সমতা আনেন ফরোয়ার্ড মাহবুব হোসেন (৪-৪)। আনন্দে মেতে ওঠে বাংলাদেশ।

সবার ধারণা ফলাফল গড়াবে শুটআউটে। নির্ধারিত ৭০ মিনিটে হওয়ার মাত্র ৩ সেকেন্ড আগে অভিষেকের ফিল্ড গোলে বাংলাদেশের স্বপ্ন ধূলিস্যাৎ হয়ে শিরোপা জিতে নেয় ভারত।
বয়েজ এশিয়া কাপে চ্যাম্পিয়ন ভারত, রানার্স আপ বাংলাদেশ। পাকিস্তান ১৮-০ গোলে চায়নিজ তাইপেকে হারিয়ে তৃতীয়। চীন ২-১ গোলে ওমানকে হারিয়ে পঞ্চম এবং হংকং চায়না সপ্তম। সর্বমোট ১১ গোল দিয়ে সর্বোচ্চ গোলদাতা বাংলাদেশের আশরাফুল। রোমান সরকার হয়েছেন টুর্নামেন্ট সেরা। সেরা গোলকিপারের পুরস্কারটি লুফে নেন ভারতের পঙ্কজ রজক।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: