সিএমসি কামাল বিক্রি করে দিচ্ছেন লোটাস কামাল! | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বিশ্ব পর্যটন দিবস ও আমাদের সম্ভাবনা ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ

সিএমসি কামাল বিক্রি করে দিচ্ছেন লোটাস কামাল!

8 June 2014, 7:52:22

Lotas kamal.5

 

 

 

 

বাপ্পি মজুমদার ইউনুস:(আমাদের নাঙ্গলকোট ডটকম)

পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল (লোটাস কামাল) ও তার পরিবারে মালিকানাধীন পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি সিএমসি কামাল টেক্সটাইল মিল বিক্রি করে দিচ্ছে।

সোমবার হাতে থাকা সব শেয়ার বিক্রির ঘোষণা দিয়েছেন আ হ ম মোস্তফা কামাল। সব প্রক্রিয়া শেষ করে ইতোমধ্যে তারা ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) মাধ্যমে শেয়ার বিক্রি শুরু করেছেন।দেশের অন্যতম শীর্ষ ব্যবসায়ী গোষ্ঠী আলিফ গ্রুপ সিমএমসি কামাল টেক্সটাইল কিনছে। ইতোমধ্যে তারা বিপুল পরিমাণ শেয়ার কিনেছে। আজ যেসব শেয়ার বিক্রির ঘোষণা দিয়েছে লোটাস কামাল ও পরিবার তার পুরোটাই কিনছে আলিফ গ্রুপ।

সোমবার লোটাস কামাল ও তার দুই মেয়ের পক্ষ থেকে শেয়ার বিক্রির ঘোষণা দেয়া হয়। এর মধ্যে লোটাস কামাল তার হাতে থাকা ১২ লাখ ১০ হাজার শেয়ারের পুরোটাই বিক্রির ঘোষণা দিয়েছেন। কাশফি কামাল তার হাতে থাকা ১০ লাখ ৪৪ হাজার শেয়ারের মধ্যে ৮ লাখ ৮১ হাজার ৪০০ শেয়ার বিক্রি করবেন। আর নাফিসা কামাল বিক্রি করছেন ৯ লাখ ৪৭ হাজার ২৩৭ শেয়ার। তার হাতে আছে ১০ লাখ ৫২ হাজার ৯০২ শেয়ার। তিন জনেরই শেয়ারই কিনে নিচ্ছে আলিফ টেক্সটাইলস লিমিটেড।

আগামী ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে শেয়ার কেনা-বেচার এ ঘোষণা কার্যকর হবে। ডিএসইর মাধ্যমে ফ্লোরের বাইরে ব্লক মার্কেটে এ লেনদেন হবে।
এর আগে রোববার লোটাস কামালের স্ত্রী কাশ্মিরী কামাল তার হাতে থাকা ৩৬ লাখ শেয়ারের পুরোটা বিক্রির ঘোষণা দেন। সোমবার ব্লক মার্কেটে এ শেয়ার বিক্রি হয়।

সিএমসি কামাল টেক্সটাইল দেশের পুঁজিবাজারের সবচেয়ে বিতর্কিত কোম্পানিগুলোর একটি। ২০১০ সালে বাজারের অস্বাভাবিক উর্ধ্বগতির সময় এর শেয়ার নিয়ে খোদ উদ্যোক্তারা কারসাজিতে নামেন বলে অভিযোগ রয়েছে। দুই বছরের ব্যবধানে এ কোম্পানির শেয়ারের দাম ৪০ টাকা থেকে বেড়ে ২ হাজার ৪০০ টাকা হয়। কোম্পানির কর্ণধার এবং অর্থমন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির তৎকালীন সভাপতি লোটাস কামাল এ কারসাজির এর নেপথ্যে ছিলেন বলে অভিযোগ উঠে।

 

ঢাকা: পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল (লোটাস কামাল) ও তার পরিবারে মালিকানাধীন পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি সিএমসি কামাল টেক্সটাইল মিল বিক্রি করে দিচ্ছে।

সোমবার হাতে থাকা সব শেয়ার বিক্রির ঘোষণা দিয়েছেন আ হ ম মোস্তফা কামাল। সব প্রক্রিয়া শেষ করে ইতোমধ্যে তারা ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) মাধ্যমে শেয়ার বিক্রি শুরু করেছেন।দেশের অন্যতম শীর্ষ ব্যবসায়ী গোষ্ঠী আলিফ গ্রুপ সিমএমসি কামাল টেক্সটাইল কিনছে। ইতোমধ্যে তারা বিপুল পরিমাণ শেয়ার কিনেছে। আজ যেসব শেয়ার বিক্রির ঘোষণা দিয়েছে লোটাস কামাল ও পরিবার তার পুরোটাই কিনছে আলিফ গ্রুপ।

সোমবার লোটাস কামাল ও তার দুই মেয়ের পক্ষ থেকে শেয়ার বিক্রির ঘোষণা দেয়া হয়। এর মধ্যে লোটাস কামাল তার হাতে থাকা ১২ লাখ ১০ হাজার শেয়ারের পুরোটাই বিক্রির ঘোষণা দিয়েছেন। কাশফি কামাল তার হাতে থাকা ১০ লাখ ৪৪ হাজার শেয়ারের মধ্যে ৮ লাখ ৮১ হাজার ৪০০ শেয়ার বিক্রি করবেন। আর নাফিসা কামাল বিক্রি করছেন ৯ লাখ ৪৭ হাজার ২৩৭ শেয়ার। তার হাতে আছে ১০ লাখ ৫২ হাজার ৯০২ শেয়ার। তিন জনেরই শেয়ারই কিনে নিচ্ছে আলিফ টেক্সটাইলস লিমিটেড।

আগামী ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে শেয়ার কেনা-বেচার এ ঘোষণা কার্যকর হবে। ডিএসইর মাধ্যমে ফ্লোরের বাইরে ব্লক মার্কেটে এ লেনদেন হবে।
এর আগে রোববার লোটাস কামালের স্ত্রী কাশ্মিরী কামাল তার হাতে থাকা ৩৬ লাখ শেয়ারের পুরোটা বিক্রির ঘোষণা দেন। সোমবার ব্লক মার্কেটে এ শেয়ার বিক্রি হয়।

সিএমসি কামাল টেক্সটাইল দেশের পুঁজিবাজারের সবচেয়ে বিতর্কিত কোম্পানিগুলোর একটি। ২০১০ সালে বাজারের অস্বাভাবিক উর্ধ্বগতির সময় এর শেয়ার নিয়ে খোদ উদ্যোক্তারা কারসাজিতে নামেন বলে অভিযোগ রয়েছে। দুই বছরের ব্যবধানে এ কোম্পানির শেয়ারের দাম ৪০ টাকা থেকে বেড়ে ২ হাজার ৪০০ টাকা হয়। কোম্পানির কর্ণধার এবং অর্থমন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির তৎকালীন সভাপতি লোটাস কামাল এ কারসাজির এর নেপথ্যে ছিলেন বলে অভিযোগ উঠে।

– See more at: http://primenews.com.bd/bangla/2014/05/26/%E0%A6%B8%E0%A6%BF%E0%A6%8F%E0%A6%AE%E0%A6%B8%E0%A6%BF-%E0%A6%95%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%B2-%E0%A6%AC%E0%A6%BF%E0%A6%95%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%BF-%E0%A6%95%E0%A6%B0%E0%A7%87-%E0%A6%A6/#.U5QUxXaJrcc

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: