স্কুলের বেতন দিতে না পারায় তিনবার বের করে দিয়েছিলো’ : লোটাস কামাল | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বিশ্ব পর্যটন দিবস ও আমাদের সম্ভাবনা ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ

স্কুলের বেতন দিতে না পারায় তিনবার বের করে দিয়েছিলো’ : লোটাস কামাল

16 May 2014, 8:39:25

Lotas kamal.3

বাপ্পি মজুমদার ইউনুস : পরিকল্পনা মন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল (লোটাস কামাল) বলেছেন, গরিবের ঘরে জন্ম নেয়া অপরাধ নয়, তবে গরিব হয়ে থাকা এবং গরিবী হটানোর চেষ্টা না করা অপরাধ। শিক্ষার আলো জ্বেলে গরিবী হটাতে হবে।

তিনি বলেন, আমিও দরিদ্র পরিবারের সন্তান। মা-বাবা আমাকে কষ্ট করে লেখা-পড়া শিখিয়েছেন, না হলে আমি লোটাস কামাল আজ হয়তো বস্তিতে থাকতাম। রিকশা চালক বা দিন মজুর হতাম। লজিং থেকে লেখা-পড়া করেছি। স্কুলের বেতন দিতে না পারায় তিনবার বের করে দিয়েছিলো।

পরিকল্পনা মন্ত্রী শুক্রবার বিকেলে কুমিল্লা মহানগরীর সুজানগর সুইপার কলোনীতে বস্তি শুমারি ও ভাসমান লোক গণনা কার্যক্রমের পরিদর্শন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন।

তিনি বলেন বলেন, আপনাদের সন্তানরা হচ্ছেন হিরা, মনি-মুক্তা। কষ্ট করে হলেও আপনাদের সন্তানদের লেখা পড়া করাতে হবে। তাদের মধ্য থেকে বেরিয়ে আসবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, পরিকল্পনা মন্ত্রী লোটাস কামাল।

পরিকল্পনা মন্ত্রী, সন্তানদের শিক্ষা দিয়ে মানুষ না করলে আপনারা স্রষ্টার নিকট দায়ী থাকবেন বলেও তিনি মন্তব্য করেন। তিনি বস্তির মেয়েদের অল্প বয়সে বিয়ে না দিতেও সবার প্রতি অনুরোধ করেন।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর মহা-পরিচালক গোলাম মোস্তফা কামাল।

এসময় উপস্থিত ছিলেন পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব আমিনুল বর চৌধুরী, পরিসংখ্যান ব্যুরোর পরিচালক আবুল কালাম আজাদ,পুলিশ সুপার টুটুল চক্রবর্তী, পরিসংখ্যান ব্যুরো কুমিল্লার উপ-পরিচালক মো. শাহ আলম ও সদর দক্ষিণ উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল হাই বাবলু প্রমুখ।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: