হোমনায় অভিযোগের ১১দিনেও ব্যবস্থা না নেয়ায় অটোচালকদের বিক্ষোভ | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ ◈ অনুকূল পরিবেশ হলে এইচএসসি পরীক্ষা ◈ কুমিল্লায় বিপুল ইয়াবাসহ দম্পতি আটক!

হোমনায় অভিযোগের ১১দিনেও ব্যবস্থা না নেয়ায় অটোচালকদের বিক্ষোভ

29 January 2017, 10:55:11

নিজস্ব প্রতিনিধি-হোমনা
কুমিল্লার হোমনায় সিএনজি অটোচালকদের নিকট থেকে ঘাটে ঘাটে চাঁদাবাজি বন্ধের দাবিতে অভিযোগ করলেও চাঁদাবাজি বন্ধ না হওয়ায় বিক্ষোভ ও অবস্থান কর্মসূচী পালন করেছে সিএনজি মালিক ও চালকরা।
গতকাল রবিবার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ের সামনে এ কর্মসূচী পালন করে দোষিদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহনের দাবি জানায়। এর আগে গত ১৮জানুয়ারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর উপজেলার বিভিন্ন সিএনজি স্ট্যাশন থেকে চাঁদা উত্তলন বন্ধের দাবিতে একটি লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়।
অভিযোগ ও অটোরিকশা চালক সুত্রে জানা যায়, হোমনার বিভিন্ন রুটে প্রতিদিন কয়েক হাজার সিএনজি অটোরিকশা হোমনাÑতিতাস, গৌরীপুরÑমেঘনা ও বাঞ্ছারামপুর উপজেলায় চলাচল করে। এরই সুবাধে নামেÑবেনামে উপজেলার বিভিন্ন সড়কে চলাচলকারী অটোরিকশা চালকদের নিকট থেকে প্রতিটি স্ট্যাশন থেকে প্রতিদিন ও মাসে চাঁদা নেওয়া হয়।
হোমনা সিএনজি মালিক সমিতির নামে প্রতিদিন ১০টাকা, হোমনা চৌরাস্তায় স্টিকার লাগিয়ে প্রতিমাসে ভাই ভাই ট্রেডার্সের নামে ৩শ’ টাকা, হোমনা পোস্ট অফিস মোড়, হোমনা পুরাতন ও নতুন বাসস্ট্যান্ড মোড়েও চাঁদা দিতে হয়।
এছাড়াও তিতাসের বাতাকান্দি বাজার, কড়িকান্দি বাজার (চারানশা পুর), গৌরীপুর ব্রীজ এবং দাউদকান্দির গৌরীপুর বাজার ও মোড়ে বাঞ্ছারামপুর, মেঘনা, হোমনা ও তিতাসের কয়েক হাজার সিএনজি গ্যাস আনতে গিয়ে প্রতিটি সিএনজিকে প্রায় দেড়শ টাকা চাঁদা দিতে হচ্ছে বলেও উল্লেখ করা হয়। প্রতিদিন এভাবে ঘাটে ঘাটে চাঁদা দিয়ে মালিকের জমা দিয়ে একজন চালকের সংসার চালানো অনেক কষ্টকর হয়ে পড়ে বলেও অভিযোগে জানান। এসব চাঁদাবাজি বন্ধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে সংশ্লীষ্টদের প্রতি অনুরোধ জানায় ভূক্তভোগি মালিক চালকরা।
কয়েকজন অটোচালক নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, সমিতির নামে প্রতিদিন প্রতিটি অটোরিকশা থেকে স্টিকার লাগিয়ে হোমনায় প্রতি মাসে ৩শ’ টাকা করে চাঁদা আদায় করে এবং গৌরীপুর গ্যাস আনতে গেলে ঘাটে ঘাটে চাঁদা দিতে হয়। চাঁদা না দিলে নানা হয়রানীর শিকার হতে হয়।
শ্রমিকলীগের সভাপতি এসএম সালাউদ্দিন বলেন, বিভিন্ন রোটে সিএনজি চালকদেও কাছ থেকে মালিক সমিতিও বিভিন্ন নামে চাঁদা নেয়া হচ্ছে । চাঁদাবাজি বন্দে আমরা ইউএনও স্যারের কাছে আমরা একটি আবেদন জানিয়ে ছিলাম ।সেই প্রেক্ষিতে আজ চাঁদাবাজি বন্দেও নির্দেশ দিয়েছেন ইউএনও স্যার ।

হোমনা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী শহিদুল ইসলাম বলেন, কিছু অটোরিকশা চালক বিভিন্নস্থানে চাঁদাবাজির শিকার হচ্ছে জানিয়ে একটি অভিযোগ দিয়েছে। আজ তারা আমার কাছে আসলে চাঁদাবাজি বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে ।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: