সর্বশেষ সংবাদ
◈ নাঙ্গলকোট থানার ওসির বিদায় সংবর্ধনা ◈ নাঙ্গলকোটে পুত্রের লাশ দেখে পিতার মৃত্যু ◈ নাঙ্গলকোটে শারদীয় দূর্গাপুজা উদযাপনের জন্য প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলের চেক বিতরণ ◈ নাঙ্গলকোট উপজেলার দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত ◈ কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রীকে অপহরণের চেষ্টা,আটক ৩ ◈ এনটিভি’র লাইসেন্স বাতিলের দাবিতে ওলামা লীগের মানববন্ধন ◈ আবরার হত্যার প্রতিবাদে বিএফইউজে ও ডিইউজে’র মানববন্ধন ◈ অর্থপাচার ও ঋণ খেলাপীর অভিযোগ মিথ্যা ও বানোয়াট: বললেন শাহজাহান বাবলু ◈ কুমিল্লায় সৈয়দ শামসুল হকের ৩য় প্রয়াণ দিবসে শ্রদ্ধা ◈ নাঙ্গলকোটে পূজা মন্ডবে শিক্ষার্থীদের মাঝে ঢাবি ছাত্রলীগ নেতার ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী ‘ বই বিতরণ

হোমনায় যৌতুক না পেয়ে গৃহবধূকে পিটিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা- আটকঃ১

২৯ মে ২০১৯, ৮:৫৮:০০

সোনিয়া আফরিনঃ
কুমিল্লার হোমনায় নাজমা আক্তার (২৮) নামে এক গৃহবধূকে হাত-পা বেধে পিটিয়ে ও শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে স্বামীসহ শ্বশুরবাড়ীর লোকজন। ঘটনাটি ঘটে ২৮ মে রাতে উপজেলার ঘাগুটিয়া ইউনিয়নের দূর্গাপুর গ্রামের মৃত মোঃ হোসেন মোল্লার বাড়ীতে। খবর পেয়ে হোমনা থানা পুলিশ ২৯ মে বুধবার সকালে নিহত গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা হাসপাতালে প্রেরণ করেছেন। এ ঘটনা নিহতের বাবা বাদী হয়ে ৬ জনকে আসামী করে হোমনা থানায় মামলা নং ১২ তারিখ ২৯.০৫.১৯ইং দায়ের করলে পুলিশ ১ জনকে গ্রেফতার করেছে।
অভিযোগসূত্রে জানা যায়, গত ৬ বছর পূর্বে তিতাস উপজেলার কড়িকান্দি গ্রামের হাজ্বী আব্দুস সালামের ছোট মেয়ে নাজমা আক্তারকে হোমনা উপজেলার ঘাগুটিয়া ইউনিয়নের দুর্গাপুর গ্রামের মৃত হোসেন মোল্লার ছেলে কথিত ডাক্তার মোঃ মাঈন উদ্দিনের সাথে মুসলিম শরিয়া মোতাবেক বিবাহ হয়। সে সময় তাকে নগদ যৌতুকবাবদ প্রায় সাড়ে তিন লাখ টাকা দেয়া হয়। ৬ বছরের সংসারে মাহিনুর আক্তার (৪) ও নোমান হাসান (৮মাস) বয়সের দুটি সন্তান হয়। তবে দীর্ঘ ৬বছরে যৌতুক লোভী স্বামী ও তার পরিবারের লোকজনের নির্যাতনের খড়গ থেকে কখনোই রেহাই পায়নি মা হারা এতিম নাজমা আক্তার। এরই মধ্যে মাইন উদ্দিন গোপনে পাশ বর্তী বাঞ্ছারামপুর ইপজেলার বুধাইরকান্দি গ্রামের ছালমা আক্তার (২৯) নামে এক মেয়েকে বিয়ে করে। সেখানেও তার একটি ছেলে সন্তান জন্ম হয়।তবে ছালমা ও মাইন উদ্দিনের সংসার যৌতুকের জন্য ডিভোর্স হলেও ফের গত কয়েকমাস ধরে সেই দ্বিতীয় স্ত্রী ছালমা ও মাইন উদ্দিনের অনৈতিক মেলামেশা গোপনে জমে উঠে এবং উভয়েই প্রকাশ্যে নাজমাকে পরিকল্পিতভাবে নির্যাতন করা শুরু করে। নাজমাকে ও তার পরিবারের কাছে মাইন উদ্দিন ১৬ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে। এত টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করাতেই গত ২৮ মে রাতে হাত-পা বেধে পিটিয়ে হত্যা করে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে রাখে এবং মাইন উদ্দিন নিজেই নাজমার বাপের বাড়িতে ফোন দিয়ে জানায় সে আত্মহত্যা করেছে। তবে পাষান স্বামীর এ হেন ঘটনায় নিন্দার ঝড় উঠে খোদ দুর্গাপুর গ্রামেই। নিষ্পাপ শিশু নোমানকে কোলে নিয়ে কান্নার রোল পড়ে যায় প্রতিবেশীদের মাঝে। সকলের দাবি মাইন উদ্দিনসহ ঘটনায় জড়িতদের অবিলম্বে গ্রেফতারপূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।
নিহত নাজমার বাবা ও মামলার বাদি হাজ্বী আব্দুস সালাম বলেন, আমার মেয়েটি এতিম দেইখা জামাই যখন যা চাইছে তা ই দিছি। গত কয়েকমাস ধরে আমার কাছে ১৬ লাখ টাকা দাবি করতেছে। আমি টাকা না দেয়ায় আমার মেয়েটারে এভাবে খুন করবো আমি ভাবতে পারি নাই। আমি আমার মেয়ে হত্যার খুনিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

হোমনা থানা অফিসার ইনচার্জ সৈয়দ মোঃ ফজলে রাব্বি বলেন, নিহত গৃহবধূর পিতা বাদী হয়ে ৬জনকে আসামী করে মামলা করেছে। গৃহবধূর সুরতহাল রিপোর্ট তৈরীর সময় শরীরের একাধিক স্থানে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। আমরা ১জনকে গ্রেফতার করেছি। অন্য আসামীদের গ্রেফতারের অভিযান চলছে।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: