২০১৮ টি-২০ বিশ্বকাপের আয়োজন দুই বছর পেছানো হচ্ছে! | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বিশ্ব পর্যটন দিবস ও আমাদের সম্ভাবনা ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ
প্রচ্ছদ / খেলাধুলা / বিস্তারিত

২০১৮ টি-২০ বিশ্বকাপের আয়োজন দুই বছর পেছানো হচ্ছে!

19 June 2017, 8:13:59

আইসিসির সূচি অনুযায়ী সদ্য সমাপ্ত চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির পর আইসিসির পরবর্তী বৈশ্বিক ইভেন্ট ছিল টি-২০ বিশ্বকাপ, যা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল ২০১৮ সালে। তবে তা হচ্ছে না, ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিতব্য ২০১৯ বিশ্বকাপই হতে যাচ্ছে আইসিসির পরবর্তী বৈশ্বিক আসর। কেননা ২০১৮ টি-২০ বিশ্বকাপের আয়োজন দুই বছর পেছানো হচ্ছে।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল- আইসিসির দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, ২০১৮ সালে টি-২০ বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাবনা নেই। দুই বছর পিছিয়ে আসরটি অনুষ্ঠিত হবে ২০২০ সালে।

উদ্ভাবনের পর থেকেই প্রতি দুই বছর অন্তর অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে দর্শক জনপ্রিয় টি-২০ বিশ্বকাপ। তবে মূল বিশ্বকাপের মতো এই আসরটিতেও আগামী আয়োজন থেকে থাকতে পারে ৪ বছর করে বিরতি। আন্তর্জাতিক দলগুলোর ব্যস্ততাই মূলত আইসিসিকে জমজমাট এই আসরে বিরতি বাড়ানোর তাড়না দিয়েছে।

আইসিসির বিশ্বস্ত এক সূত্র জানায়, ‘হ্যাঁ, এটা সত্যি যে আমরা ২০১৮ সালে টি-২০ বিশ্বকাপ আয়োজন করছি না। দেখুন, কোনো ভেন্যুও নির্ধারণ করা হয়নি। পেছানোর প্রাথমিক কারণ হচ্ছে, সদস্য দেশগুলোর অনেক বেশি দ্বিপাক্ষিক সিরিজ এই সময়ের মাঝে অনুষ্ঠিত হবে। ২০১৮ সালে টুর্নামেন্টটি আয়োজন করা সম্ভব ছিল না। এটি আয়োজন করা হবে ২০২০ সালে। আয়োজক হতে পারে দক্ষিণ আফ্রিকা অথবা অস্ট্রেলিয়া।’

আরও জানানো হয়, বড় আসরগুলো আয়োজনে অংশগ্রহণকারী দেশগুলোও লম্বা বিরতি চেয়েছে- ‘দ্বিপাক্ষিক সিরিজ ছাড়াও আরও একটি কারণ হল- কাছাকাছি সময়ে অনেকগুলো আইসিসি ইভেন্ট। সদস্য দেশগুলোও এদের মধ্যে বিরতি চেয়েছে।’

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: