শিরোনাম
◈ ক্ষমতার পতন ও অপেক্ষার মিষ্টি ফল-মহসীন ভূঁইয়া ◈ নাঙ্গলকোটে দুই গ্রামের মানুষের চলাচলের প্রধান রাস্তাকে খাল বানিয়ে নিরুদ্দেশ ঠিকাদার! ◈ নাঙ্গলকোটের তিনটি প্রতিষ্ঠান পরিদর্শনে শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের টিম ◈ নাঙ্গলকোটে শত বছরের পানি চলাচলের ড্রেন বন্ধ ,বাড়িঘর ভেঙ্গে ২’শ গাছ নষ্টের আশংকা ◈ পদ্মা সেতুর রেল সংযোগে খরচ বাড়লো ৪ হাজার কোটি টাকা ◈ অরুণাচল সীমান্তে বিশাল স্বর্ণখনির সন্ধান! চীন-ভারত সংঘাতের আশঙ্কা ◈ কুমিল্লার বিশ্বরোডে হচ্ছে দৃষ্টিনন্দন ইউলুপ- লোটাস কামাল ◈ দুই মামলায়খালেদার জামিন আবেদনের শুনানি আজ ◈ মাদকবিরোধী অভিযানএক রাতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১১ ◈ নাঙ্গলকোটে চলবে ৩ দিন ব্যাপী মাটি পরীক্ষা

নাঙ্গলকোট উপজেলায় চাষীরা শ্রমিক সংকটের জন্য মহা বিপদে!

২৩ এপ্রিল ২০১৮, ৭:৫০:২৮
নাঈম উদ্দিন(প্রিন্স নয়ন),নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

কুমিল্লা নাঙ্গলকোট উপজেলার বেশ কয়েকটি ইউনিয়নের মধ্যেবশ্রমিক সংকটে চাষীরা বিপদে পড়েছে। এই মৌসুমে চাষীরা অনেক কষ্ট করে তারা মাথার ঘাম মাটিতে পেলে এই মাঠের মধ্যেই তারা ধানের চারা রোপণ করে। উপজেলার মধ্যেই সরকার কর্তৃক ভালো বীজ ও কীটনাশক সঠিক সময়ে পাওয়ার কারণে তাদের অনেক বেশি ফলন হয়েছিল। আর এই মাঠের মধ্যেই ধান পেকে থাকলে ও শ্রমিক সংকটে পাকা ধান ঘরে তুলতে পারছেনা চাষীরা। চাষীদের টাকা থাকলে ও কিন্তু বেশি টাকা দিয়ে ও তাদের ভাগ্যেই শ্রমিক মিলছে না। এর মধ্যেই পড়েছে প্রাকৃতিক দূর্যোগ ও আবহাওয়ার পরিবর্তন। কাল-বৈশাখী ঝড় ও বৃষ্টিতে পাকা ধান গুলো ঝড়ে  পড়ে যাচ্ছে।

প্রত্যেকটি দিন-রাতে বৃষ্টি হচ্ছে। এই বৃষ্টির কারণে ও চাষীরা তাদের ফসল গুলো নিয়ে চিন্তিত। তাই চাষীরা বিভিন্ন জেলা থেকে শ্রমিক আনার চেষ্টা করে। আর এই শ্রমিক গুলো নিয়ে ও অনেক কাড়াকাড়ি শুরু করে দেয় এলাকা চাষীরা। চাষীদের কাছে শ্রমিকরা  অনেক মূল্যবান হয়ে উঠেছে।

প্রতিদিন ৩বেলা খাবার ও ৩বেলা নাস্তা ও ৪০০-৫০০ টাকা দিয়েও শ্রমিক পাওয়া যাচ্ছেনা।চাষীরা বলেন এই মৌসুমে শ্রমিক সংকটের জন্য তারা তাদের ফলন গুলোকে সঠিক সময়ে ঘরে ও উঠাতে পারছেনা এবং বাজারজাত ও করতে পারবেনা। তাই চাষীরা বলেন এই শ্রমিক সংকটে তাদের ব্যাপক পরিমাণে ক্ষতি হতে পারে।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: