2017 সালে-ই মহাশূন্যে যাবে বাংলাদেশের স্যাটেলাইট | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ বিশ্ব পর্যটন দিবস ও আমাদের সম্ভাবনা ◈ মোল্লা নিয়ে আলোচনা -সমালোচনা- এ,কে,এম মনিরুল হক ◈ বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট’র বাহারাইন শাখা কমিটি গঠন ◈ পাই যে কৃপার ভাগ – মোঃ জহিরুল ইসলাম। ◈ কুমিল্লায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে জুতা পেটা খাওয়া ছাত্রলীগ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার ◈ সামাজিক সংগঠন ”খাজুরিয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার” ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ◈ দৌলখাঁড় উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম মজুমদার ◈ শিক্ষকদের মূল্যায়ন কতক্ষণ করবে- জহিরুল ইসলাম ◈ শুধু ভুলে যাই- গাজী ফরহাদ

2017 সালে-ই মহাশূন্যে যাবে বাংলাদেশের স্যাটেলাইট

5 March 2017, 3:07:23

বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশন (বিটিআরসি) চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ বলেছেন, চলতি বছরেই বাংলাদেশের নিজস্ব স্যাটেলাইট মহাশূন্যে যাবে। এ বিষয়ে কাজ এগিয়ে চলেছে।

গতকাল শনিবার ওয়াশিংটনে একটি তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান উদ্বোধন করার সময় তিনি এ কথা বলেন।

বিটিআরসির চেয়ারম্যান বলেন, এ বছরের ডিসেম্বরেই বাংলাদেশের নিজস্ব স্যাটেলাইট ফ্লোরিডা থেকে মহাশূন্যে উৎক্ষেপণ করা হবে।

গতকাল ওয়াশিংটনে যাত্রা শুরু হয় সুফিয়া ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজির। ওয়াশিংটনের তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান ডাটাগ্রুপের কর্ণধার জাকির হোসাইন তাঁর মা সুফিয়া বেগমের নামে এই প্রতিষ্ঠানটি প্রতিষ্ঠা করেন। শনিবার সন্ধ্যায় এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠানটির উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশন (বিটিআরসি) চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ। ডাটাগ্রুপের কর্মকর্তা মৃদুল রহমানের শুভেচ্ছা বক্তব্য এবং মির সালাউদ্দীনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন মোহাম্মদ আলমগীর, সাদেক এম খান, মাহমুদুন নবী বাকী, লিয়াকত আলী খান, শারমিন সুলতানা, টেসোমি ওয়ারদোফা, মেংগাস্টো, এন্থনি পিয়ুস গোমেজ, শিব্বীর আহমেদ প্রমুখ।

প্রধান অতিথি ড. শাহজাহান মাহমুদ ডাটাগ্রুপ ও সুফিয়া ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজির প্রতিষ্ঠাতা জাকির হোসাইনের ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং তাঁর প্রতিষ্ঠানের সমৃদ্ধি কামনা করেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিটিআরসি চেয়ারম্যান বাংলাদেশে শেখ হাসিনা সরকারের আইসিটি নীতিমালা গ্রহণ এবং সেই নীতিমালা বাস্তবায়নে ডিজিটাল বাংলাদেশের রূপকার সজীব ওয়াজেদ জয়কে ‘ডিজিটাল বাংলাদেশের জনক’ হিসেবে উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, টেলিকমিউনিকেশন সেক্টরে বাংলাদেশ আজ বিশ্ব দরবারে রোল মডেল হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে। তিনি বলেন, শেখ হাসিনা সরকারের সঠিক এবং বলিষ্ঠ পদক্ষেপ গ্রহণ এবং জয়ের নির্দেশনায় বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে ইন্টারনেট-সুবিধা ছড়িয়ে পড়েছে। ১৬ কোটি মানুষের বাংলাদেশে ১৪ কোটি মোবাইল ফোন চালু রয়েছে। ২০ কোটি সিম রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে বায়োমেট্রিক পদ্ধতির মাধ্যমে। বাংলাদেশের শহর থেকে গ্রামের কোটি কোটি মানুষ আজ ইন্টারনেট ও মোবাইল সেবা গ্রহণ করছে প্রতিদিন।

বিটিআরসি চেয়ারম্যান বলেন, দ্বিতীয় সাবমেরিন কেব্‌ল বাংলাদেশে সংযোগ স্থাপন করেছে এবং খুব শিগগির বাংলাদেশে ফোরজি এলটিই সেবা চালু হবে। ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ উচ্চমধ্যবিত্ত আয়ের দেশে পরিণত হবে।

জাকির হোসাইন তাঁর বক্তব্যে তাঁর মায়ের নামে প্রতিষ্ঠিত সুফিয়া ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজির সাফল্যের জন্য সবার সহযোগিতা চান।

অনুষ্ঠান শেষে প্রধান অতিথি ড. শাহজাহান মাহমুদ প্রতিষ্ঠানটির ওয়েবসাইট লোগো উন্মোচন। অনুষ্ঠানে মেট্রো ওয়াশিংটন এরিয়ার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও ডাটাগ্রুপের ছাত্রছাত্রীরা উপস্থিত ছিলেন।

বিটিআরসি চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটসংক্রান্ত বৈঠকে যোগদানের জন্য ৩ মার্চ ওয়াশিংটনে এসে পৌঁছেছেন। সোম ও মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের রাজধানী ওয়াশিংটনে যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তাদের সঙ্গে তাঁর বৈঠক করার কথা। আগামী বুধবার তিনি ওয়াশিংটন থেকে সানফ্রান্সিসকোয় যাবেন। সেখান থেকে ১৪ মার্চ তিনি দেশে ফিরে যাবেন বলে কথা রয়েছে।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য: