ইটভাটার কালোধোঁয়ায় নাঙ্গলকোটে বোরো ধানের ব্যাপক ক্ষতি | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ নাঙ্গলকোটে নবম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণ, টাকা দিয়ে সমঝোতার চেষ্টা অতঃপর থানায় মামলা ◈ কুমিল্লায় মাদ্রাসার কম্বলের নিচ থেকে শিশুর মরোদেহ উদ্ধার, মৃত্যু নিয়ে সন্দেহ ◈ কুমিল্লার তিতাসে সংখ্যালঘু পরিবারের সম্পত্তি দখলের অভিযোগ ◈ বাঙ্গড্ডায় সন্দেহ হওয়ায় পরিচয় জানতে চাইলে পিকআপ ভ্যান রেখে চালক উধাও ◈ ইটভাটার কালোধোঁয়ায় নাঙ্গলকোটে বোরো ধানের ব্যাপক ক্ষতি ◈ ঠিকানা খুঁজে পাওয়া গেল হারিয়ে যাওয়া শারমিনের ◈ কুমিল্লা সেন্ট্রাল মেডিকেল ছাত্রের প্রাইভেটকার চাপায় মৃত্যু ◈ সেবাই আমার কর্ম, মোঃ হেলাল উদ্দিন ভূইয়া ◈ নাঙ্গলকোটে নিজ ঠিকানায় ফিরে যেতে চায় শারমিন ◈ কুমিল্লায় সিজার করার ৫মাস পর পেট থেকে বের করা হলো গজ

ইটভাটার কালোধোঁয়ায় নাঙ্গলকোটে বোরো ধানের ব্যাপক ক্ষতি

8 April 2021, 11:58:00

মোঃ সাইফুল ইসলাম,নাঙ্গলকোট।

কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার রায়কোট ইউপির মন্তলী-শ্রীরামপুর ও দক্ষিন মাহিনী গ্রামে অবস্থিত কৃষি জমিতে গড়ে উঠেছে হাজারী ইটভাটা। নিয়মনীতি অমান্য করে চলছে এ ভাটার কাজ কর্ম। কালোধোয়ার কারনে শতশত একর কৃষি জমির বোরো ধান নষ্ট হয়ে গেছে। কৃষক জমিতে সার,ঔষধ দিয়ে কোন সুফল পাচ্ছেন না। এক বছরে এক ফসল, তা আবার বোরো ধান। ইটভাটা কর্তৃপক্ষকে ও জানালে তারা বিষয়টি অমান্য করছে। এছাড়াও ইটভাটায় রয়েছে কৃষি জমির টপসয়েল। কৃষকরা উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপ চেয়েছেন। দক্ষিণ মাহিনী গ্রামের কৃষক সামছুল হক বলেন- এবার ২৮ জাতের ধান চাষ করেছি। ৩০ শতক জমির ধান নষ্ট হয়ে গেছে। এর জন্য তিনি দায়ী করেন ইটভাটাকে । শ্রীরামপুর গ্রামের কৃষক অহিদুর রহমান বলেন-৪৮ জাতের ধান চাষ করেছি। সঠিক ভাবে ঔষধ ও সার দিয়েছি। কিন্তু ৩৬ শতক জমির ফসল সব নষ্ট হয়ে গেছে। বাড়ীর ফলদ গাছের সব ফল নষ্ট হয়ে গেছে। শ্রীরামপুর গ্রামের দরিদ্র কৃষক আমান উল্লাহ বলেন- ২৮ জাতের ধান চাষ করেছি। পুরো জমির ধান গাছ আছে,কিন্তু গাছে ফসল নাই। হাজারী ইটভাটার ম্যানেজার মামুনুর রশিদ বলেন -ইটভাটার কারনে ফসল নষ্ট হয়নি। এব্যাপারে গত সোমবার রায়কোট ইউপি কৃষি উপসহকারী কর্মকর্তা কামাল হোসেন বলেন, সরেজমিনে গিয়ে দেখে এসেছি। ইটভাটার কালোধোয়ার কারনে কৃষকদের শতশত একর বোরো ধান নষ্ট হয়ে গেছে। নাঙ্গলকোট উপজেলা কৃষি অফিসার মো: জাহিদুল ইসলাম বলেন- ইটভাটা অনেক আগের। তার পরও কৃষি জমির কি ক্ষতি হয়েছে, তা তদন্ত করে দেখা হবে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার লামইয়া সাইফুল বলেন, তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য:

x