“আমার বাবা” ____মোঃ ফাহিম | আমাদের নাঙ্গলকোট
সর্বশেষ সংবাদ
◈ বঙ্গবন্ধুর মানবিক গুনাবলী ও ধর্মীয় চেনতা-মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ ◈ সুপ্রিম কোর্টের অবকাশকালীন সব ছুটি বাতিল! ◈ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া সেই লিগ্যাল নোটিশ প্রত্যাহার ◈ জোড্ডা পূর্ব ইউনিয়ন জাতীয়তাবাদী প্রবাসী ফোরামের আহ্বায়ক কমিটি গঠন ◈ রূপসায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ইউপি সদস্যসহ ৫ জন আহত ◈ বিপদসংকুল, রাহিমা আক্তার দিললুবা ◈ সাংবাদিক শহিদ উল্লাহ্‌ মিয়াজী জামিনে মুক্ত ◈ নাঙ্গলকোট প্রেসক্লাবের ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত ◈ নাঙ্গলকোট প্রেসক্লাব নতুন কমিটিকে মেয়র আব্দুল মালেকের শুভেচ্ছা ◈ নাঙ্গলকোট প্রেসক্লাবের কমিটি গঠন ◈ নাঙ্গলকোট বাইয়ারা প্রবাসী কল্যাণ ইউনিটের মাস্ক বিতরণ ◈ রূপসায় সামান্য বৃষ্টি হলেই পানিতে নিমজ্জিত তালিমপুরসহ কয়েকটি গ্রাম ◈ মসজিদের নওমুসলিম ইমাম হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন
প্রচ্ছদ / ক্যাম্পাস / বিস্তারিত

“আমার বাবা” ____মোঃ ফাহিম

14 June 2021, 11:36:36

 

বাবা, আমি জানি তুমি আমার লেখা কথা গুলো দেখছো না। কিন্তু, জীবনে চলার পথে, মাএ এলাম , এতো অল্প সময় মধ্যে বাবা তোমার গুরুত্ব এত বেশি আমি সামানো আনুমান ও করতে পারি নি।

গত ১৮ বছর, কিন্তু ১৯ বছর বয়সে পা রাখার সাথে সাথে হাই স্কুল চেড়ে যখন কলেজ লাইফ মাএ এলাম, ঘর চেড়ে নতুন দুনিয়া চিনতে শহর জীবনে। তখন বুঝলাম দুনিয়া কেমন হতে পারে একটু অনুমান করলাম।

তখনি বুঝলাম আমার বাবা অবদান আমার জীবনে কতটুকু।। আজ নিজে কে বড় অপরাদি মনে হয়। বাবা আমাদের জন্য তুমি কত কিছু না কর। আমি তোমার জন্য কি করলাম ? বাবা শব্দ কষ্ট আর ধার্য এই দুইটি ধারা আবদ। আর এই কষ্ট আর ধার্য পরিমাণ করা যায় না। আমি তো বাবা কে খুশি জন্য কোনো কাজ ই করি নি আর বাবা নিসার্থ মতো বিদেশের মাটিতে কাটিঁয়ে দিয়েছেন বছর পর বছর।
আজ এক বারআমি জন্য বাবার কষ্ট অনুভব করতে চাইলে। আমার চোখে জলের বাদ মানে না। নিরলে নদীর মতো চোখের জল বয়ে যায়।
বাবা তুমি কত না কষ্ট করো কিন্তু কাউকে সামানো পরিমাণ বুঝতে দেওনা। তুমি কি কষ্ট পাওনা ? এত তেগ দিয়ে নিজে কে সবার থেকে আলাদা রেখে। সবার মুখে হাসিঁ ফুটাতে,!!
বাবা তোমার মতো এমন মানুষ হয় না,, যে মানুষ একটি পরিবারের জন্য নিজের সবটুকু উজার করে দিতে পারে।।

বাবা তুমি কিভাবে পার বছর পর বছর নিজের কষ্ট গুলো আড়াল করতে??
আমি যখন ছোট ছিলাম আমি শুধু চাইতাম তুমি আমাকে কি দিলে। আর আমার কি কি জিনিস দাও নি। আমার আমার করে যেতাম। কিন্তু কখন তোমার জায়গায় নিজেকে দাড় করে এটা ভাবি নি তুমি কিভাবে আমাদের এত গুলো চাহিদা একা হাসিঁ মুখে পুড়ন করার চেষ্টা কর। তোমার কি কষ্ট হয় না??
যত ভাবি বাবা তোমাকে নিয়ে তত বেশি অবাক হই।। তুমি এমনি এক জন যার বুকে থাকে পুরো পরিবার। যে নিজের ক্লনতি তেগ দেয় একটি পরিবার পরিপুনো রাখার জন্য।
হাজার ও সমস্যা মোকাবেলা করো “তুমি একা” পরিবারের জন্য। হাজার ও সমস্যা মোকাবেলা করতে এতটুকু দিধা কর না। এক মাএ কারণ এই পরিবার কে নিয়ে তোমার যত স্বপ্ন।
বাবা তুমি তো সেই মেঘের মতো যে কাছে না থেকে ও দূর থেকে মাথার উপর চায়া দিয়ে রাখো।
সত্যি বাবা তোমার মত মানুষ হয় না।।
তুই আমার জীবনে রিয়েল হিরো।।

Amader Nangalkot'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।  আমাদের নাঙ্গলকোট পত্রিকা তথ্য মন্ত্রনালয়ের তালিকাভক্তি নং- ১০৫।

পাঠকের মন্তব্য:

x